Alokito Sakal
সরকারী চাকরিজীবিদের জন্য বৈষম্যমুক্ত পে-কমিশন সহ ৮ দফা দাবি বাস্তবায়নের আহবান
সোমবার, ১৬ ডিসেম্বর ২০১৯ ০৯:৪৮ PM
Alokito Sakal Alokito Sakal :

মহানবিজয় দিবস/১৯ইং উদযাপন উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় ঠাকুরগাঁও জেলা কমিটির সদস্য সচিব এসএম আজম বলেছেন, সাধারন চাকুরিজীবিদের অবহেলিত ও চরম বৈষম্যের মারপ্যাচে ফেলে দেশের উন্নয়নের ধারাবাহিকতা রক্ষা করা যাবেনা। কারন পেটে ক্ষুধা নিয়ে ভালভাবে কাজ করা যায়না। ১৬ ডিসেম্বর বিকেলে জিয় দিবসের আলোচনা সভায় প্রধান অতিখির বক্তব্যে উল্লেখিত মন্তব্য করেন তিনি। তিনি আরো বলেন,৮েম পে কমিশনের আজ ৪ বছর অতিবাহিত হয়েছে, কিন্তু এখন পর্যন্ত সেটির পূর্নাঙ্গ বাস্তবায়ন দেখা যায়নি। গরীব কর্চারীদের স্বাস্থ্য বীমা চালু হয়নি, গৃহ নির্মান লোন চালু হয়নি, বাস্তবায়ন হয়নি কর্মকর্তা- কর্মচারীদের শ্রেণী বিভাজন। বলা হয়েছিল পরিচিতি হবে গ্রেডের ভিত্তিতে, কিন্তু হয়নি তাই বৈসশ্যে ভরা এই পে কমিশন বাতিল করে বঙ্গবন্ধরি করে যাওয়া ১৯৭৩ এর ১০ গ্রেডের পে কমিশন করার আহবান জানান তিনি।
১৬ ডিসেম্বর সরকারী চাকুরিজীবিদের সম্মিলিত অধিকার আদায় ফোরাম ঠাকুরগাঁও জেলা কমিটি ঠাকুরগাঁও সদরে ও পীরগঞ্জ উপজেলায় কেন্দ্রীয় শহীদ মেনারে পুষ্পার্ঘ অপর্ন করেছে। দিবসের ১ম প্রহরে ঠাকুরগাঁও কেন্দ্রীয় স্মৃতি সৌধে জেলা কমিটির আহবায়ক মো. গোলাবুল ইসলামের নেতৃত্বে আনন্দ র‌্যালি সহ ফোরামের নেতা-কমীদের নিয়ে পুষ্পস্তবক অপন করা হয়।
এদিকে জেলার পীরগঞ্জ উপজেলা কমিটির উদ্যোগে জেলা কমিটির সদস্য সচিব এসএম আজম এর নেতৃত্বে যুগ্ন আহবায়ক হাফিজ উদ্দিন ও উপজেলা সদস্যরা কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পন করেন। বিকেলে দিবসের তাৎপর্য তুলে ধরে আয়োজিত সংক্ষিপ্ত আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন সংগঠনের বিভিন্ন স্তরের সদস্যরা। জেলা কমিটির সদস্য সচিব বক্তব্য দানকালে বলেন, ৯ মাসের সশষ্ত্র যুদ্ধের ফসল এই বিজয়। এ বিজয়কে এখনো ষড়যন্ত্রকারীরা মেনেনিতে পারেনি, তারা নানামুখি পরিকল্পনা ও ষড়যন্ত্রের মাধ্যমে এ দেশকে একটি অকার্যকর রাষ্ট্রে পরিনত করতে চায় কিন্তু তাদের এ স্বপ্ন কখনোই বাস্তবায়ন হবেনা। তিনি বলেন বিজয়ের এ মাসে সারাদেশের ১৫ লাখ সরকারী চাকুরিজীবির বৈষম্যমুক্ত পে কমিশন গঠন করে তাদের ন্যায্য দাবি-দাওয়া মেনে নেয়ার জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর প্রতি আহবান জানান।