ঢাকা ০৮:৪৮ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২৮ নভেম্বর ২০২২, ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে বিএনপি সমাবেশের অনুমতি চায়নি: এ্যানী।

রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে বিএনপি সমাবেশের অনুমতি চায়নি বলে জানিয়েছেন দলটির প্রচার সম্পাদক শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানী।

বৃহস্পতিবার (২৪ নভেম্বর ) সন্ধ্যায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামালের বক্তব্যের প্রতিক্রিয়ায় তিনি এ তথ্য জানান।

‘শর্তসাপেক্ষে বিএনপিকে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে ১০ ডিসেম্বর সমাবেশের অনুমতি দেওয়া হবে’—স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর এই বক্তব্য প্রতিক্রিয়ায় জানাতে গিয়ে বিএনপি নেতা এ্যানী বলেন, প্রথমত আমরা সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে সমাবেশের অনুমতি চাইনি। দ্বিতীয়ত, ৭ ও ৮ তারিখে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে আওয়ামী লীগের অঙ্গ সংগঠনের সম্মেলন আছে। সেখানে ১০ তারিখে আমাদের সমাবেশ করা সাংঘর্ষিক।

এ্যানী আরও বলেন, আমরা নয়াপল্টনে দলের কার্যালয়ে সামনে শান্তিপূর্ণ সমাবেশ করার জন্য অনুমতি চেয়েছি। এটা আমাদের দলীয় সিদ্ধান্ত। আশা করি, সরকারও বিষয়টি বুঝতে পারবে ও সেখানে সমাবেশ করার প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেবে।

এর আগে সকালে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায় এক অনুষ্ঠানে বলেন, আমরা নয়াপল্টনে সমাবেশ করতে অনুমতি চেয়েছি। অনুমতি দিলেও সেখানে সমাবেশ করব, না দিলেও করব।

Tag :
জনপ্রিয়

নির্বাচিত হলে ১৩নং ওয়ার্ড বাসীর জন্য এ্যাম্বুলেন্স উপহার দিব; রসিকের কাউন্সিলর প্রার্থী তুহিন

রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে বিএনপি সমাবেশের অনুমতি চায়নি: এ্যানী।

প্রকাশের সময় : ০৯:৫৬:২৫ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৪ নভেম্বর ২০২২

রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে বিএনপি সমাবেশের অনুমতি চায়নি বলে জানিয়েছেন দলটির প্রচার সম্পাদক শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানী।

বৃহস্পতিবার (২৪ নভেম্বর ) সন্ধ্যায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামালের বক্তব্যের প্রতিক্রিয়ায় তিনি এ তথ্য জানান।

‘শর্তসাপেক্ষে বিএনপিকে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে ১০ ডিসেম্বর সমাবেশের অনুমতি দেওয়া হবে’—স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর এই বক্তব্য প্রতিক্রিয়ায় জানাতে গিয়ে বিএনপি নেতা এ্যানী বলেন, প্রথমত আমরা সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে সমাবেশের অনুমতি চাইনি। দ্বিতীয়ত, ৭ ও ৮ তারিখে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে আওয়ামী লীগের অঙ্গ সংগঠনের সম্মেলন আছে। সেখানে ১০ তারিখে আমাদের সমাবেশ করা সাংঘর্ষিক।

এ্যানী আরও বলেন, আমরা নয়াপল্টনে দলের কার্যালয়ে সামনে শান্তিপূর্ণ সমাবেশ করার জন্য অনুমতি চেয়েছি। এটা আমাদের দলীয় সিদ্ধান্ত। আশা করি, সরকারও বিষয়টি বুঝতে পারবে ও সেখানে সমাবেশ করার প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেবে।

এর আগে সকালে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায় এক অনুষ্ঠানে বলেন, আমরা নয়াপল্টনে সমাবেশ করতে অনুমতি চেয়েছি। অনুমতি দিলেও সেখানে সমাবেশ করব, না দিলেও করব।