ঢাকা ০৬:৫১ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২৮ নভেম্বর ২০২২, ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

সিলেটে প্রায় ২১ কোটি টাকার মাদকদ্রব্য ধ্বংস

সিলেটের বিভিন্ন সীমান্ত থেকে গত দেড় বছরে উদ্ধারকৃত প্রায় ২১ কোটি টাকার বিভিন্ন ধরনের মাদকদ্রব্য ধ্বংস করেছে বর্ডারগার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)।

বৃহস্পতিবার (২৪ নভেম্বর) দুপুরে সিলেটের ১৯ বিজিবি ব্যাটালিয়ন সদর দপ্তরে এই মাদকদ্রব্যগুলো ধ্বংসকরণ কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন বিজিবির উপ-মহাপরিচালক ও জিএইচএম সেলিম হাসান।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সিলেটের বিভাগীয় কমিশনার মোশাররফ হোসেন।

ধ্বংসকৃত মাদকদ্রব্যগুলোর মধ্যে রয়েছে- ৬৫ হাজার ৬০১ বোতল ভারতীয় বিভিন্ন ব্রান্ডের মদ, ৯ হাজার ৫৬৭ বোতল ফেনসিডিল ও ৫ হাজার ৮৬ পিস ইয়াবাসহ বিভিন্ন ধরণের মাদকদ্রব্য।

বিজিবি কর্মকর্তারা জানান, ধ্বংসকৃত মাদকদ্রব্যের আনুমানিক মূল্য প্রায় ২০ কোটি ৭৫ লাখ ৬৬ হাজার টাকা। ২০২১ সালের ১ মার্চ থেকে ২০২২ সালের ৪ অক্টোবর পর্যন্ত বিভিন্ন সীমান্ত এলাকায় ভারত থেকে অবৈধভাবে নিয়ে আসা এসব মাদকদ্রব্য উদ্ধার করা হয়।

সীমান্ত দিয়ে মাদক প্রবেশ বন্ধে বিজিবির তৎপরতা আরও বাড়ানো হয়েছে বলে জানান বিজিবি কর্মকর্তারা।

Tag :
জনপ্রিয়

নির্বাচিত হলে ১৩নং ওয়ার্ড বাসীর জন্য এ্যাম্বুলেন্স উপহার দিব; রসিকের কাউন্সিলর প্রার্থী তুহিন

সিলেটে প্রায় ২১ কোটি টাকার মাদকদ্রব্য ধ্বংস

প্রকাশের সময় : ০৯:৫২:২৩ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৪ নভেম্বর ২০২২

সিলেটের বিভিন্ন সীমান্ত থেকে গত দেড় বছরে উদ্ধারকৃত প্রায় ২১ কোটি টাকার বিভিন্ন ধরনের মাদকদ্রব্য ধ্বংস করেছে বর্ডারগার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)।

বৃহস্পতিবার (২৪ নভেম্বর) দুপুরে সিলেটের ১৯ বিজিবি ব্যাটালিয়ন সদর দপ্তরে এই মাদকদ্রব্যগুলো ধ্বংসকরণ কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন বিজিবির উপ-মহাপরিচালক ও জিএইচএম সেলিম হাসান।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সিলেটের বিভাগীয় কমিশনার মোশাররফ হোসেন।

ধ্বংসকৃত মাদকদ্রব্যগুলোর মধ্যে রয়েছে- ৬৫ হাজার ৬০১ বোতল ভারতীয় বিভিন্ন ব্রান্ডের মদ, ৯ হাজার ৫৬৭ বোতল ফেনসিডিল ও ৫ হাজার ৮৬ পিস ইয়াবাসহ বিভিন্ন ধরণের মাদকদ্রব্য।

বিজিবি কর্মকর্তারা জানান, ধ্বংসকৃত মাদকদ্রব্যের আনুমানিক মূল্য প্রায় ২০ কোটি ৭৫ লাখ ৬৬ হাজার টাকা। ২০২১ সালের ১ মার্চ থেকে ২০২২ সালের ৪ অক্টোবর পর্যন্ত বিভিন্ন সীমান্ত এলাকায় ভারত থেকে অবৈধভাবে নিয়ে আসা এসব মাদকদ্রব্য উদ্ধার করা হয়।

সীমান্ত দিয়ে মাদক প্রবেশ বন্ধে বিজিবির তৎপরতা আরও বাড়ানো হয়েছে বলে জানান বিজিবি কর্মকর্তারা।