ঢাকা ০৭:১৬ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২৮ নভেম্বর ২০২২, ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

সুনামগঞ্জে অনির্দিষ্টকালের বাস ধর্মঘট।

সুনামগঞ্জে আবারও আন্তঃজেলা পরিবহন ধর্মঘট দিয়েছে পরিবহন মালিক সমিতি। সড়কে দাঁড়িয়ে থাকা বাস পুলিশ কর্তৃক আটকের প্রতিবাদে এ ধর্মঘটের ডাক দিয়েছে তারা।

বৃহস্পতিবার (২৪ নভেম্বর) সন্ধ্যায় বাস ধর্মঘটের বিষয়টি নিশ্চিত করেন সুনামগঞ্জ জেলা সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক জুয়েল মিয়া।

এদিকে হুট করে ধর্মঘট ঘোষণার সঙ্গে সঙ্গে তাৎক্ষণিকভাবে বাস চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। বন্ধ রয়েছে সকল টিকিট কাউন্টারও। যাত্রী নিতে সন্ধ্যার পর কোনো বাস শহরে ঢোকেনি। খালি পড়ে রয়েছে স্ট্যান্ড। এ কারণে ভোগান্তিতে পড়েছেন সাধারণ যাত্রীরা।

অবৈধ পার্কিংয়ের কারণে সৃষ্ট যানজট থেকে সড়ক মুক্ত রাখতে এবং বাসের বৈধ কাগজপত্র না দেখাতে পাড়ায় বাস আটক করা হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশের ট্রাফিক বিভাগ। অবৈধ পার্কিং এবং বৈধ কাগজ না থাকায় শ্যামলী, মামুন, সাকিল পরিবহনের ৩টি বাস আটক আছে বলেও জানানো হয়।

এ বিষয়ে সুনামগঞ্জ জেলা সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক জুয়েল মিয়া বলেন, আমাদের স্ট্যান্ডে পর্যাপ্ত জায়গা নেই। তাই বাস সড়কে রাখতে হয়। সড়ক ছাড়া আর কোনো জায়গা নেই যেখানে বাস রাখা যাবে। যার জন্য আমাদের বাস আটক করেছে পুলিশ। এর প্রতিবাদে বাস শ্রমিকরা কর্মবিরতিতে আছে।

ট্রাফিক পুলিশ পরিদর্শক (ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা) আবু হানিফ বলেন, সড়কে অবৈধভাবে বাস রাখার কারণে যান চলাচলে বিঘ্ন হচ্ছিল। সড়কে যানজট লেগে যাচ্ছিল। তখন বাসগুলোর কাগজ যাচাই করলে তারা বৈধ কাগজ দেখাতে পারেনি। তাই ৩টি বাস আটক করে পুলিশ লাইনে পাঠানো হয়েছে। বৈধ কাগজ দেখিয়ে বাস আনতে পারবেন তারা।

Tag :
জনপ্রিয়

নির্বাচিত হলে ১৩নং ওয়ার্ড বাসীর জন্য এ্যাম্বুলেন্স উপহার দিব; রসিকের কাউন্সিলর প্রার্থী তুহিন

সুনামগঞ্জে অনির্দিষ্টকালের বাস ধর্মঘট।

প্রকাশের সময় : ০৯:০২:৪৫ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৪ নভেম্বর ২০২২

সুনামগঞ্জে আবারও আন্তঃজেলা পরিবহন ধর্মঘট দিয়েছে পরিবহন মালিক সমিতি। সড়কে দাঁড়িয়ে থাকা বাস পুলিশ কর্তৃক আটকের প্রতিবাদে এ ধর্মঘটের ডাক দিয়েছে তারা।

বৃহস্পতিবার (২৪ নভেম্বর) সন্ধ্যায় বাস ধর্মঘটের বিষয়টি নিশ্চিত করেন সুনামগঞ্জ জেলা সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক জুয়েল মিয়া।

এদিকে হুট করে ধর্মঘট ঘোষণার সঙ্গে সঙ্গে তাৎক্ষণিকভাবে বাস চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। বন্ধ রয়েছে সকল টিকিট কাউন্টারও। যাত্রী নিতে সন্ধ্যার পর কোনো বাস শহরে ঢোকেনি। খালি পড়ে রয়েছে স্ট্যান্ড। এ কারণে ভোগান্তিতে পড়েছেন সাধারণ যাত্রীরা।

অবৈধ পার্কিংয়ের কারণে সৃষ্ট যানজট থেকে সড়ক মুক্ত রাখতে এবং বাসের বৈধ কাগজপত্র না দেখাতে পাড়ায় বাস আটক করা হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশের ট্রাফিক বিভাগ। অবৈধ পার্কিং এবং বৈধ কাগজ না থাকায় শ্যামলী, মামুন, সাকিল পরিবহনের ৩টি বাস আটক আছে বলেও জানানো হয়।

এ বিষয়ে সুনামগঞ্জ জেলা সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক জুয়েল মিয়া বলেন, আমাদের স্ট্যান্ডে পর্যাপ্ত জায়গা নেই। তাই বাস সড়কে রাখতে হয়। সড়ক ছাড়া আর কোনো জায়গা নেই যেখানে বাস রাখা যাবে। যার জন্য আমাদের বাস আটক করেছে পুলিশ। এর প্রতিবাদে বাস শ্রমিকরা কর্মবিরতিতে আছে।

ট্রাফিক পুলিশ পরিদর্শক (ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা) আবু হানিফ বলেন, সড়কে অবৈধভাবে বাস রাখার কারণে যান চলাচলে বিঘ্ন হচ্ছিল। সড়কে যানজট লেগে যাচ্ছিল। তখন বাসগুলোর কাগজ যাচাই করলে তারা বৈধ কাগজ দেখাতে পারেনি। তাই ৩টি বাস আটক করে পুলিশ লাইনে পাঠানো হয়েছে। বৈধ কাগজ দেখিয়ে বাস আনতে পারবেন তারা।