ঢাকা ০৬:৫০ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২৮ নভেম্বর ২০২২, ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

কিয়েভে রুশ-সমর্থিত চার্চে ইউক্রেনের নিরাপত্তা বাহিনীর হানা

ইউক্রেনের নিরাপত্তা বাহিনী ও পুলিশ ইউক্রেনের রাজধানী কিয়েভের হাজার বছরের পুরনো রুশ-সমর্থিত একটি অর্থোডক্স খ্রিস্টান মঠে অভিযান চালিয়েছে। রুশ বিশেষ বাহিনীর সন্দেহজনক অন্তর্ঘাত ভণ্ডুল করে দিতে এই পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

স্থাপনাটি কিয়েভ পেচারস্ক লাভরা কমপ্লেক্স বা কিয়েভ মনাস্টেরি নামে পরিচিত। বিশাল এই কমপ্লেক্সে ক্যাথেড্রাল, চার্চ, আরো কয়েকটি ভবন রয়েছে। এটি ইউনেস্কোর তালিকাভুক্ত ওয়ার্ল্ড হেরিটেজের অংশবিশেষ।

নিপার নদীর ডান তীরে অবস্থিত স্থাপনটিতে রুশ-সমর্থিত ইউক্রেনিয়ান অর্থোডক্স চার্চের সদরদফতর অবস্থিত। এটি মস্কোর প্যাট্রিয়াচের অধীনে।

ইউক্রেনের গোয়েন্দা ও সন্ত্রাসবিরোধী সার্ভিস জানিয়েছে, নিয়মিত তল্লাসির অংশ হিসেবে স্থাপনাটিতে অভিযান চালানো হয়েছে। তবে অভিযানের ফলাফল সম্পর্কে কোনো তথ্য প্রকাশ করা হয়নি।

এসবিইউ নামে পরিচিত ইউক্রেনের গোয়েন্দা সংস্থা জানায়, স্থাপনাটিকে ‘রুশিয়ান বিশ্বের কেন্দ্র’ হিসেবে ব্যবহার প্রতিরোধ করার লক্ষ্যেই এই অভিযান চালানো হয়। এছাড়া এর প্রাঙ্গনটি অন্তর্ঘাত চালানোর কাজে ব্যবহার করা হয় কিনা তা জানাও ছিল লক্ষ্য।

উল্লেখ্য, প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের নতুন পররাষ্ট্রনীতির মূলমন্ত্র হলো ‌’রুশিয়ান বিশ্ব’। এর লক্ষ্য রাশিয়ার ভাষা, সংস্কৃতি ও ধর্মকে রক্ষা করা। বিদেশে হস্তক্ষেপের জন্য এই রক্ষণশীল মতাদর্শ ব্যবহার করা হয়।
সূত্র : আলজাজিরা

Tag :
জনপ্রিয়

নির্বাচিত হলে ১৩নং ওয়ার্ড বাসীর জন্য এ্যাম্বুলেন্স উপহার দিব; রসিকের কাউন্সিলর প্রার্থী তুহিন

কিয়েভে রুশ-সমর্থিত চার্চে ইউক্রেনের নিরাপত্তা বাহিনীর হানা

প্রকাশের সময় : ১০:০৮:২৪ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২৩ নভেম্বর ২০২২

ইউক্রেনের নিরাপত্তা বাহিনী ও পুলিশ ইউক্রেনের রাজধানী কিয়েভের হাজার বছরের পুরনো রুশ-সমর্থিত একটি অর্থোডক্স খ্রিস্টান মঠে অভিযান চালিয়েছে। রুশ বিশেষ বাহিনীর সন্দেহজনক অন্তর্ঘাত ভণ্ডুল করে দিতে এই পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

স্থাপনাটি কিয়েভ পেচারস্ক লাভরা কমপ্লেক্স বা কিয়েভ মনাস্টেরি নামে পরিচিত। বিশাল এই কমপ্লেক্সে ক্যাথেড্রাল, চার্চ, আরো কয়েকটি ভবন রয়েছে। এটি ইউনেস্কোর তালিকাভুক্ত ওয়ার্ল্ড হেরিটেজের অংশবিশেষ।

নিপার নদীর ডান তীরে অবস্থিত স্থাপনটিতে রুশ-সমর্থিত ইউক্রেনিয়ান অর্থোডক্স চার্চের সদরদফতর অবস্থিত। এটি মস্কোর প্যাট্রিয়াচের অধীনে।

ইউক্রেনের গোয়েন্দা ও সন্ত্রাসবিরোধী সার্ভিস জানিয়েছে, নিয়মিত তল্লাসির অংশ হিসেবে স্থাপনাটিতে অভিযান চালানো হয়েছে। তবে অভিযানের ফলাফল সম্পর্কে কোনো তথ্য প্রকাশ করা হয়নি।

এসবিইউ নামে পরিচিত ইউক্রেনের গোয়েন্দা সংস্থা জানায়, স্থাপনাটিকে ‘রুশিয়ান বিশ্বের কেন্দ্র’ হিসেবে ব্যবহার প্রতিরোধ করার লক্ষ্যেই এই অভিযান চালানো হয়। এছাড়া এর প্রাঙ্গনটি অন্তর্ঘাত চালানোর কাজে ব্যবহার করা হয় কিনা তা জানাও ছিল লক্ষ্য।

উল্লেখ্য, প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের নতুন পররাষ্ট্রনীতির মূলমন্ত্র হলো ‌’রুশিয়ান বিশ্ব’। এর লক্ষ্য রাশিয়ার ভাষা, সংস্কৃতি ও ধর্মকে রক্ষা করা। বিদেশে হস্তক্ষেপের জন্য এই রক্ষণশীল মতাদর্শ ব্যবহার করা হয়।
সূত্র : আলজাজিরা