ঢাকা ০৩:১১ অপরাহ্ন, রবিবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২২, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

‘ফুটবল বিশ্বকাপ’এর আদলে পত্নীতলায় পুজামণ্ডপ

মাসুদ রানা পত্নীতলা (নওগাঁ) প্রতিনিধিঃ

নওগাঁর পত্নীতলার নজিপুর পৌরসভার ৯নং ওয়ার্ড ছোট চাঁদপুর সার্বজনীন দূর্গা মন্দিরটি ফুটবল বিশ্বকাপের আদলে সাজানো হয়েছে। এবারের প্রতিপাদ্য ” ফুটবলই প্রেম” গত মাসে বাংলার বাঘিনী কন্যারা সাফ চ্যাম্পিয়ন শিরোপা জিতে এবং সামনে কাতার ফুটবল বিশ্বকাপ ট্রফির আদলে গড়ে তোলা হয়েছে এই মন্ডপ।
প্রতিবছরই ভিন্নধর্মী থিম নিয়ে মণ্ডপ সাজিয়ে পত্নীতলায় আলোচনার কেন্দ্রে থাকে এই মন্দিরটি ।

মঙ্গলবার রাতে সরেজমিনে দেখা যায় মন্দিরের মূল গেটের উপরে ট্রফির ছবি দুপাশে কয়েকজন বিখ্যাত খেলোয়াড়ের ছবি, ভেতরে প্রবেশ করতেই বাশি হাতে রেফারির মূর্তি। ডান বাম দুপাশে দর্শক গ্যালারী, উপরে তাকালে দেখতে পাবেন সারিবদ্ধ বিভিন্ন দেশের জাতীয় পতাকা, সামনে দুর্গা, গণেশ, কার্তিক ও মহিষাসুর, লক্ষী,স্বরস্বতি ও তাদের বাহনের প্রতিমা। প্রতিমার পেছনে গোলবার ও বাংলাদেশের জাতীয় পতাকার প্রতিকৃতি। পুরো মন্দির মনে হবে যেন একটি স্টেডিয়াম। আরই দৃশ্য দেখতে এবং প্রতিমা দর্শন করতে দর্শনার্থীদের বাঁধ ভাঙা ঢেউ।
গতবছর করোনার থিমের আদলে সাজানো হয়েছিল এই মন্দির প্রতিপাদ্য ছিল “ভ্যাকসিন নিন সুস্থ থাকুন ” । তার আগের বছর ছিল ” যুদ্ধ নয় শান্তি চাই ” এভাবেই প্রতিবছরই নতুন থিমের আদলে সাজিয়ে থাকে এই মন্দির টি।

আয়োজক কমিটির সাধারণ সম্পাদক শুভ বলেন সবাইকে শারদীয় শুভেচ্ছা, আমাদের ছোট চাঁদপুর মন্দিরে এবারে ৭ম আয়োজন ছিল। আপনারা জানেন আগামী একমাস পরেই ফুটবল বিশ্বকাপ ফটবুল বিশ্বকাপের উপরে বড় কোন উন্মাদনা নেই, এই ফুটবল বিশ্বকাপকে ঘিরেই এবার আমাদের পুজার থিম , আমরা থিমের নাম দিয়েছি “ফুটবলই প্রেম” আমাদের নারী ফুটবল টিম দক্ষিণ এশিয়ায় চ্যাম্পিয়ন হয়েছে, তাদের কে অভিনন্দন আর আমাদের পুজা বরাবরই ব্যতিক্রম থাকে, গত বছর করোনার সচেতনতায় করোনা ও মাস্ক দিয়ে থিম করা হয়েছিল।

মহাদেবপুর থেকে প্রতিমা দর্শনে আসা প্রিয়ঙ্কা রানী বলেন এবার আমি ৫০ টিরও বেশী প্রতিমা দর্শন করেছি এই মন্দিরটির সাজ সজ্জা ও ফুটবলের থিমে আমি মুগ্ধ হয়েছি।

সনাতন ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দুর্গাপূজা। এই ধর্মাবলম্বীদের কাছে দেবী দুর্গা শক্তি ও সুন্দরের প্রতীক ।প্রতিবছর অসুরের বিনাশ করতেই মা দেবী দুর্গা ধরাধামে আবিভূত হন। সমাজ থেকে অন্যায় অবিচার দূর করতেই এ পুজার আয়োজন।

গত ১ অক্টোবর শনিবার মহাষষ্ঠীর পুজা অর্চনার মধ্য দিয়ে শুরু হয়েছে দূর্গা পুজা আগামীকাল বুধবার বিজয়া দশমী প্রতিমা বিসর্জ্জনের মাধ্যমে সমাপ্তি হবে এবারের দূর্গোৎসব।পুরোহিতদের মতে এবার দেবী দূর্গা গজে আগমন করেছে এবং নৌকায় গমন করবে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায় এবার উপজেলায় ১১ টি ইউনিয়ন ও ১ টি পৌরসভায় মোট ৮৬টি মন্ডপে শারদীয় দূর্গা পুজা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। নজিপুর পৌরসভা এলাকায় ১৬ টি
পত্নীতলা ইউনিয়ন ১০ টি,দিবর ইউনিয়ন ০৪ টি, আকবরপুর ইউনিয়ন ০৪ টি, মাটিন্দর ইউনিয়ন ০৫ টি, কৃষ্ণপুর ইউনিয়ন ০৫ টি, পাটিচড়া ইউনিয়ন ০৮ টি, নজিপুর ইউনিয়ন ১৫ টি, ঘোষনগর ইউনিয়ন ০৬ টি, আমাইড় ইউনিয়ন ১৩ টি

প্রতিটি মন্দিরে নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার লক্ষ্য করা গেছে। বিভিন্ন মন্দির কমিটির নেতৃবৃন্দ জানান শান্তিপূর্ণ পরিবেশে পুজা হচ্ছে। উপজেলার কোথাও কোন বিশৃঙ্খলার খবর পাওয়া যায়নি।

 

Tag :
জনপ্রিয়

আগামী বছর থেকে বিদ্যুৎ সংকট অনেকটাই কেটে যাবে: জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী।

‘ফুটবল বিশ্বকাপ’এর আদলে পত্নীতলায় পুজামণ্ডপ

প্রকাশের সময় : ০৪:৩২:০৯ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৪ অক্টোবর ২০২২

মাসুদ রানা পত্নীতলা (নওগাঁ) প্রতিনিধিঃ

নওগাঁর পত্নীতলার নজিপুর পৌরসভার ৯নং ওয়ার্ড ছোট চাঁদপুর সার্বজনীন দূর্গা মন্দিরটি ফুটবল বিশ্বকাপের আদলে সাজানো হয়েছে। এবারের প্রতিপাদ্য ” ফুটবলই প্রেম” গত মাসে বাংলার বাঘিনী কন্যারা সাফ চ্যাম্পিয়ন শিরোপা জিতে এবং সামনে কাতার ফুটবল বিশ্বকাপ ট্রফির আদলে গড়ে তোলা হয়েছে এই মন্ডপ।
প্রতিবছরই ভিন্নধর্মী থিম নিয়ে মণ্ডপ সাজিয়ে পত্নীতলায় আলোচনার কেন্দ্রে থাকে এই মন্দিরটি ।

মঙ্গলবার রাতে সরেজমিনে দেখা যায় মন্দিরের মূল গেটের উপরে ট্রফির ছবি দুপাশে কয়েকজন বিখ্যাত খেলোয়াড়ের ছবি, ভেতরে প্রবেশ করতেই বাশি হাতে রেফারির মূর্তি। ডান বাম দুপাশে দর্শক গ্যালারী, উপরে তাকালে দেখতে পাবেন সারিবদ্ধ বিভিন্ন দেশের জাতীয় পতাকা, সামনে দুর্গা, গণেশ, কার্তিক ও মহিষাসুর, লক্ষী,স্বরস্বতি ও তাদের বাহনের প্রতিমা। প্রতিমার পেছনে গোলবার ও বাংলাদেশের জাতীয় পতাকার প্রতিকৃতি। পুরো মন্দির মনে হবে যেন একটি স্টেডিয়াম। আরই দৃশ্য দেখতে এবং প্রতিমা দর্শন করতে দর্শনার্থীদের বাঁধ ভাঙা ঢেউ।
গতবছর করোনার থিমের আদলে সাজানো হয়েছিল এই মন্দির প্রতিপাদ্য ছিল “ভ্যাকসিন নিন সুস্থ থাকুন ” । তার আগের বছর ছিল ” যুদ্ধ নয় শান্তি চাই ” এভাবেই প্রতিবছরই নতুন থিমের আদলে সাজিয়ে থাকে এই মন্দির টি।

আয়োজক কমিটির সাধারণ সম্পাদক শুভ বলেন সবাইকে শারদীয় শুভেচ্ছা, আমাদের ছোট চাঁদপুর মন্দিরে এবারে ৭ম আয়োজন ছিল। আপনারা জানেন আগামী একমাস পরেই ফুটবল বিশ্বকাপ ফটবুল বিশ্বকাপের উপরে বড় কোন উন্মাদনা নেই, এই ফুটবল বিশ্বকাপকে ঘিরেই এবার আমাদের পুজার থিম , আমরা থিমের নাম দিয়েছি “ফুটবলই প্রেম” আমাদের নারী ফুটবল টিম দক্ষিণ এশিয়ায় চ্যাম্পিয়ন হয়েছে, তাদের কে অভিনন্দন আর আমাদের পুজা বরাবরই ব্যতিক্রম থাকে, গত বছর করোনার সচেতনতায় করোনা ও মাস্ক দিয়ে থিম করা হয়েছিল।

মহাদেবপুর থেকে প্রতিমা দর্শনে আসা প্রিয়ঙ্কা রানী বলেন এবার আমি ৫০ টিরও বেশী প্রতিমা দর্শন করেছি এই মন্দিরটির সাজ সজ্জা ও ফুটবলের থিমে আমি মুগ্ধ হয়েছি।

সনাতন ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দুর্গাপূজা। এই ধর্মাবলম্বীদের কাছে দেবী দুর্গা শক্তি ও সুন্দরের প্রতীক ।প্রতিবছর অসুরের বিনাশ করতেই মা দেবী দুর্গা ধরাধামে আবিভূত হন। সমাজ থেকে অন্যায় অবিচার দূর করতেই এ পুজার আয়োজন।

গত ১ অক্টোবর শনিবার মহাষষ্ঠীর পুজা অর্চনার মধ্য দিয়ে শুরু হয়েছে দূর্গা পুজা আগামীকাল বুধবার বিজয়া দশমী প্রতিমা বিসর্জ্জনের মাধ্যমে সমাপ্তি হবে এবারের দূর্গোৎসব।পুরোহিতদের মতে এবার দেবী দূর্গা গজে আগমন করেছে এবং নৌকায় গমন করবে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায় এবার উপজেলায় ১১ টি ইউনিয়ন ও ১ টি পৌরসভায় মোট ৮৬টি মন্ডপে শারদীয় দূর্গা পুজা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। নজিপুর পৌরসভা এলাকায় ১৬ টি
পত্নীতলা ইউনিয়ন ১০ টি,দিবর ইউনিয়ন ০৪ টি, আকবরপুর ইউনিয়ন ০৪ টি, মাটিন্দর ইউনিয়ন ০৫ টি, কৃষ্ণপুর ইউনিয়ন ০৫ টি, পাটিচড়া ইউনিয়ন ০৮ টি, নজিপুর ইউনিয়ন ১৫ টি, ঘোষনগর ইউনিয়ন ০৬ টি, আমাইড় ইউনিয়ন ১৩ টি

প্রতিটি মন্দিরে নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার লক্ষ্য করা গেছে। বিভিন্ন মন্দির কমিটির নেতৃবৃন্দ জানান শান্তিপূর্ণ পরিবেশে পুজা হচ্ছে। উপজেলার কোথাও কোন বিশৃঙ্খলার খবর পাওয়া যায়নি।