ঢাকা ০৩:২৯ অপরাহ্ন, রবিবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২২, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

রাজধানীর কলাবাগানে কিশোর গ্যাংয়ের ছুরিকাঘাতে নিহত ১

শিপন (১৫) নামে একজন নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় স্বাধীন (২২) নামে একজনকে আটক করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার (২৯ সেপ্টেম্বর) রাত ১০টার দিকে এক কিশোরকে রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখেন স্থানীয়রা। পরে তাকে উদ্ধার করে রাত সাড়ে ১২টার দিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

নিহতের বাবা মজিবর রহমান বলেন, শিপন আহত অবস্থায় পড়ে থাকলে তাকে স্থানীয়রা প্রথমে উদ্ধার করে একটি বেসরকারি হাসপাতালে নিয়ে যায় সেখান থেকে ঢাকা মেডিকেলে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসার মৃত ঘোষণা করেন। একই এলাকার স্বাধীন নামের পূর্ব পরিচিত এক কিশোর শিপনের উরুতে ছুরি দিয়ে আঘাত করলে অতিরিক্ত রক্তক্ষরণে তার মৃত্যু হয়। আমার ছেলেকে যারা হত্যা করেছে আমি তাদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করছি।

তিনি বলেন, শিপন ফ্রিজের দোকানে কাজ করতো। কলাবাগানে আমাদের সঙ্গেই থাকত। আমাদের বাড়ি চাঁদপুর জেলার হাজীগঞ্জ থানার রাজারগাও গ্রামে।

এলাকাবাসীর অভিযোগ, স্বাধীন ও অন্য কয়েকজন মিলে গড়ে তুলে কিশোর গ্যাং ‘টিম ‌‌কলাবাগান’। এর সদস্যরা এলাকায় চুরি, ছিনতাই ও ইভটিজিং করত। এ ঘটনায় দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেছেন তারা। তাদের নামে কলাবাগান থানায় বিভিন্ন অপরাধে মামলা রয়েছে বলে জানান তারা।

ঘটনার বিষয়ে কলাবাগান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. সাইফুল ইসলাম  বলেন, খবর পেয়ে ঢাকা মেডিকেলে যাই। এ ঘটনায় শিপনের হত্যাকারী মূল অভিযুক্ত স্বাধীনকে আটক করা হয়েছে। শিপনের মরদেহটি হাসপাতালের জরুরি বিভাগের মর্গে রাখা হয়েছে। স্বাধীনের বিষয়ে পূর্ণাঙ্গ খোঁজখবর নেওয়া হচ্ছে।

Tag :
জনপ্রিয়

আগামী বছর থেকে বিদ্যুৎ সংকট অনেকটাই কেটে যাবে: জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী।

রাজধানীর কলাবাগানে কিশোর গ্যাংয়ের ছুরিকাঘাতে নিহত ১

প্রকাশের সময় : ০৬:৪১:২৪ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২

শিপন (১৫) নামে একজন নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় স্বাধীন (২২) নামে একজনকে আটক করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার (২৯ সেপ্টেম্বর) রাত ১০টার দিকে এক কিশোরকে রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখেন স্থানীয়রা। পরে তাকে উদ্ধার করে রাত সাড়ে ১২টার দিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

নিহতের বাবা মজিবর রহমান বলেন, শিপন আহত অবস্থায় পড়ে থাকলে তাকে স্থানীয়রা প্রথমে উদ্ধার করে একটি বেসরকারি হাসপাতালে নিয়ে যায় সেখান থেকে ঢাকা মেডিকেলে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসার মৃত ঘোষণা করেন। একই এলাকার স্বাধীন নামের পূর্ব পরিচিত এক কিশোর শিপনের উরুতে ছুরি দিয়ে আঘাত করলে অতিরিক্ত রক্তক্ষরণে তার মৃত্যু হয়। আমার ছেলেকে যারা হত্যা করেছে আমি তাদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করছি।

তিনি বলেন, শিপন ফ্রিজের দোকানে কাজ করতো। কলাবাগানে আমাদের সঙ্গেই থাকত। আমাদের বাড়ি চাঁদপুর জেলার হাজীগঞ্জ থানার রাজারগাও গ্রামে।

এলাকাবাসীর অভিযোগ, স্বাধীন ও অন্য কয়েকজন মিলে গড়ে তুলে কিশোর গ্যাং ‘টিম ‌‌কলাবাগান’। এর সদস্যরা এলাকায় চুরি, ছিনতাই ও ইভটিজিং করত। এ ঘটনায় দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেছেন তারা। তাদের নামে কলাবাগান থানায় বিভিন্ন অপরাধে মামলা রয়েছে বলে জানান তারা।

ঘটনার বিষয়ে কলাবাগান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. সাইফুল ইসলাম  বলেন, খবর পেয়ে ঢাকা মেডিকেলে যাই। এ ঘটনায় শিপনের হত্যাকারী মূল অভিযুক্ত স্বাধীনকে আটক করা হয়েছে। শিপনের মরদেহটি হাসপাতালের জরুরি বিভাগের মর্গে রাখা হয়েছে। স্বাধীনের বিষয়ে পূর্ণাঙ্গ খোঁজখবর নেওয়া হচ্ছে।