ঢাকা ০২:৪৮ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২২, ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

শাকিব খান কি বুবলী ও তার সন্তানের স্বীকৃতি দেবেন, নাকি…

চিত্রনায়িকা শবনম ইয়াসমিন বুবলীর মা হওয়ার খবরে কয়েকদিন ধরে মিডিয়াপাড়া তোলপাড়। প্রথমে শোনা গিয়েছিল তিনি কন্যাসন্তানের মা হয়েছেন। পরে শোনা যায়, সুদূর আমেরিকায় উড়ে গিয়ে পুত্রসন্তানের জন্ম দিয়েছেন আলোচিত এই নায়িকা। তবে মেয়ে হোক বা ছেলে, বুবলী যে মা হয়েছেন এটাই বড় কথা। আর সেই সন্তানের বাবা হিসেবে জোরেসোরে শোনা যাচ্ছে ঢালিউড সুপারস্টার শাকিব খানের নাম।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে বুবলীর একাধিক ঘনিষ্ঠ সূত্রও এটা নিশ্চিত করেছেন যে, নায়িকার সন্তানের বাবা শাকিব খানই। কিন্তু তিনি কি বুবলী এবং তার সন্তানকে স্বীকৃতি দেবেন? উঠেছে প্রশ্ন। অনেকে বলছেন, বুবলীর সঙ্গে যদি শাকিব খানের বিয়ে হয়ে থাকে, নায়িকা যদি কাবিননামাসহ প্রয়োজনীয় প্রমাণপত্র প্রকাশ করেন, তবে কিং খানের স্বীকার না করা ছাড়া উপায় থাকবে না।

আবার অনেকে বলছেন, স্বীকার করলেও বুবলীর পরিস্থিতি শাকিব খানের সাবেক স্ত্রী অপু বিশ্বাসের মতোই হবে। ২০০৮ সালে অপু বিশ্বাসকেও গোপনে বিয়ে করেছিলেন চলচ্চিত্রের শীর্ষ এই নায়ক। দীর্ঘ ৯ বছর সে খবর লুকিয়ে রেখেছিলেন। এরপর ২০১৬ সালে অপু বিশ্বাস হঠাৎই লাপাত্তা হয়ে যান। কলকাতায় গিয়ে ছেলে আব্রাম খান জয়ের জন্ম দেন। এরপর ২০১৭ সালে একটি টিভি চ্যানেলে গিয়ে ফাঁস করেন সবকিছু।

তারপর কী হয়েছিল তা কম-বেশি সবারই জানা। অপু তার বিয়ে ও সন্তানের কথা প্রকাশ করার কয়েক মাস পরই নানা ভিত্তিহীন অভিযোগ তুলে তাকে তালাকের নোটিশ ধরিয়ে দিয়েছিলেন শাকিব খান। যদিও ছেলে জয়ের ভরণপোষণ ঠিকই দেন। বুবলীর ক্ষেত্রেও কি তেমনটাই হবে? এই নায়িকা তার সন্তান ও স্বামীর নাম প্রকাশ্যে আনলে তার কপালেও অপু বিশ্বাসের মতো তালাকের নোটিশ জুটবে না তো? প্রশ্ন নানা মহলে।

এসব প্রশ্নের জবাব মিলবে বুবলী ফের মুখ খোলার পর। গত মঙ্গলবার তিনি গণমাধ্যমকে জানান, খুব শিগগিরই তিনি সবকিছু পরিষ্কার করবেন। এমন ইঙ্গিতও দেন, তিনি যা কিছু করেছেন, একজন মুসলিম হিসেবে শালীনভাবেই করেছেন। অর্থাৎ, তিনি হয়তো শালীনভাবে করা বলতে বিয়ে এবং সন্তান জন্মদানের বিষয়টাকেই বুঝিয়েছেন। তবে ভালোভাবে বিষয়টা পরিষ্কার হওয়ার জন্য বুবলীর মুখ খোলার অপেক্ষায় সবাই।

২০১৬ সালে শাকিব খানের বিপরীতেই ‘বসগিরি’ ছবির মাধ্যমে চলচ্চিত্রে অভিষেক হয়েছিল একসময়ের সংবাদপাঠিকা শবনম বুবলীর। এরপর তিনি ধারাবাহিক এক ডজন ছবিতে শুধু শাকিব খানের সঙ্গেই কাজ করেন। তাতে গুঞ্জন ওঠে, ‘কুছ কুছ হোতা হ্যায়’। ২০২০ সালে জোরালোভাবে শোনা যায়, শাকিব-বুবলী গোপনে বিয়ে করেছেন। সে সময় বুবলীর অন্তঃসত্ত্বা অবস্থার একটি ছবিও ভাইরাল হয়।

ওই সময় শাকিবের সঙ্গে ‘বীর’ ছবির শুটিং করছিলেন নায়িকা। শুটিং শেষ হতেই বুবলী লাপাত্তা হয়ে যান। চলে যান আমেরিকা। সেখানেই গিয়েই সন্তানের জন্ম দেন তিনি। আমেরিকায় বুবলীর জন্মদান, তার চিকিৎসা, থাকা-খাওয়াসহ সবকিছু দেখাশোনা করেন শাকিব-ঘনিষ্ঠ নির্মাতা হিমেল আশরাফ। এরইমধ্যে বুবলীর ছেলের একটি ছবিও ভাইরাল হয়েছে। আজই তিনি এ বিষয়ে ঘোষণা দিতে পারেন বলে জানা গেছে।

Tag :
জনপ্রিয়

সাটুরিয়ায় নিয়োগ বাতিলের দাবীতে মানববন্ধন

শাকিব খান কি বুবলী ও তার সন্তানের স্বীকৃতি দেবেন, নাকি…

প্রকাশের সময় : ০৬:২৬:২৫ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২

চিত্রনায়িকা শবনম ইয়াসমিন বুবলীর মা হওয়ার খবরে কয়েকদিন ধরে মিডিয়াপাড়া তোলপাড়। প্রথমে শোনা গিয়েছিল তিনি কন্যাসন্তানের মা হয়েছেন। পরে শোনা যায়, সুদূর আমেরিকায় উড়ে গিয়ে পুত্রসন্তানের জন্ম দিয়েছেন আলোচিত এই নায়িকা। তবে মেয়ে হোক বা ছেলে, বুবলী যে মা হয়েছেন এটাই বড় কথা। আর সেই সন্তানের বাবা হিসেবে জোরেসোরে শোনা যাচ্ছে ঢালিউড সুপারস্টার শাকিব খানের নাম।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে বুবলীর একাধিক ঘনিষ্ঠ সূত্রও এটা নিশ্চিত করেছেন যে, নায়িকার সন্তানের বাবা শাকিব খানই। কিন্তু তিনি কি বুবলী এবং তার সন্তানকে স্বীকৃতি দেবেন? উঠেছে প্রশ্ন। অনেকে বলছেন, বুবলীর সঙ্গে যদি শাকিব খানের বিয়ে হয়ে থাকে, নায়িকা যদি কাবিননামাসহ প্রয়োজনীয় প্রমাণপত্র প্রকাশ করেন, তবে কিং খানের স্বীকার না করা ছাড়া উপায় থাকবে না।

আবার অনেকে বলছেন, স্বীকার করলেও বুবলীর পরিস্থিতি শাকিব খানের সাবেক স্ত্রী অপু বিশ্বাসের মতোই হবে। ২০০৮ সালে অপু বিশ্বাসকেও গোপনে বিয়ে করেছিলেন চলচ্চিত্রের শীর্ষ এই নায়ক। দীর্ঘ ৯ বছর সে খবর লুকিয়ে রেখেছিলেন। এরপর ২০১৬ সালে অপু বিশ্বাস হঠাৎই লাপাত্তা হয়ে যান। কলকাতায় গিয়ে ছেলে আব্রাম খান জয়ের জন্ম দেন। এরপর ২০১৭ সালে একটি টিভি চ্যানেলে গিয়ে ফাঁস করেন সবকিছু।

তারপর কী হয়েছিল তা কম-বেশি সবারই জানা। অপু তার বিয়ে ও সন্তানের কথা প্রকাশ করার কয়েক মাস পরই নানা ভিত্তিহীন অভিযোগ তুলে তাকে তালাকের নোটিশ ধরিয়ে দিয়েছিলেন শাকিব খান। যদিও ছেলে জয়ের ভরণপোষণ ঠিকই দেন। বুবলীর ক্ষেত্রেও কি তেমনটাই হবে? এই নায়িকা তার সন্তান ও স্বামীর নাম প্রকাশ্যে আনলে তার কপালেও অপু বিশ্বাসের মতো তালাকের নোটিশ জুটবে না তো? প্রশ্ন নানা মহলে।

এসব প্রশ্নের জবাব মিলবে বুবলী ফের মুখ খোলার পর। গত মঙ্গলবার তিনি গণমাধ্যমকে জানান, খুব শিগগিরই তিনি সবকিছু পরিষ্কার করবেন। এমন ইঙ্গিতও দেন, তিনি যা কিছু করেছেন, একজন মুসলিম হিসেবে শালীনভাবেই করেছেন। অর্থাৎ, তিনি হয়তো শালীনভাবে করা বলতে বিয়ে এবং সন্তান জন্মদানের বিষয়টাকেই বুঝিয়েছেন। তবে ভালোভাবে বিষয়টা পরিষ্কার হওয়ার জন্য বুবলীর মুখ খোলার অপেক্ষায় সবাই।

২০১৬ সালে শাকিব খানের বিপরীতেই ‘বসগিরি’ ছবির মাধ্যমে চলচ্চিত্রে অভিষেক হয়েছিল একসময়ের সংবাদপাঠিকা শবনম বুবলীর। এরপর তিনি ধারাবাহিক এক ডজন ছবিতে শুধু শাকিব খানের সঙ্গেই কাজ করেন। তাতে গুঞ্জন ওঠে, ‘কুছ কুছ হোতা হ্যায়’। ২০২০ সালে জোরালোভাবে শোনা যায়, শাকিব-বুবলী গোপনে বিয়ে করেছেন। সে সময় বুবলীর অন্তঃসত্ত্বা অবস্থার একটি ছবিও ভাইরাল হয়।

ওই সময় শাকিবের সঙ্গে ‘বীর’ ছবির শুটিং করছিলেন নায়িকা। শুটিং শেষ হতেই বুবলী লাপাত্তা হয়ে যান। চলে যান আমেরিকা। সেখানেই গিয়েই সন্তানের জন্ম দেন তিনি। আমেরিকায় বুবলীর জন্মদান, তার চিকিৎসা, থাকা-খাওয়াসহ সবকিছু দেখাশোনা করেন শাকিব-ঘনিষ্ঠ নির্মাতা হিমেল আশরাফ। এরইমধ্যে বুবলীর ছেলের একটি ছবিও ভাইরাল হয়েছে। আজই তিনি এ বিষয়ে ঘোষণা দিতে পারেন বলে জানা গেছে।