ঢাকা ০৩:৩০ অপরাহ্ন, রবিবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২২, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

মাঝ আকাশে যাত্রীর বোমা হুমকি, যুদ্ধবিমানের পাহারায় প্লেন অবতরণ

যুক্তরাষ্ট্রের সান ফ্রান্সিসকো থেকে সিঙ্গাপুরের চাঙ্গি বিমানবন্দরে আসছিল সিঙ্গাপুর এয়ারলাইন্সের একটি ফ্লাইট। তবে মাঝ আকাশেই নিজের ব্যাগে বোমা থাকার কথা জানিয়ে হামলার হুমকি দেন এক যাত্রী। এতে অন্য যাত্রীদের মাঝে দেখা দেয় আতঙ্ক।

তবে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে সিঙ্গাপুরের বিমান বাহিনীর দু’টি যুদ্ধবিমান উড্ডয়ন করা হয় এবং সেগুলোর পাহারায়ই সিঙ্গাপুর এয়ারলাইন্সের ওই ফ্লাইটটি বিমানবন্দরে অবতরণ করে। অবশ্য ব্যাগে বোমা থাকার বিষয়ে ওই যাত্রীর দাবি ছিল ভুয়া। বুধবার (২৮ সেপ্টেম্বর) এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে বার্তাসংস্থা রয়টার্স এবং সংবাদমাধ্যম সিএনএন।

সিঙ্গাপুরের বিমান বাহিনী বুধবার বলেছে, ‘সান ফ্রান্সিসকো থেকে সিঙ্গাপুরের উদ্দেশ্যে রওনা হওয়া সিঙ্গাপুর এয়ারলাইন্সের একটি ফ্লাইটে এক যাত্রীর বোমা হুমকির পর আমাদের দু’টি এফ১৬সি/ডিএস যুদ্ধবিমান পাঠানো হয় এবং ফ্লাইটটিকে পাহারা দিয়ে নিরাপদে অবতরণ করানো হয়।’

দেশটির বিমান বাহিনী আরও বলেছে, ‘প্লেনটি চাঙ্গি বিমানবন্দরে নিরাপদে অবতরণ না করা পর্যন্ত আমাদের যোদ্ধারা সেটি পাহারায় রেখেছিল।’

এদিকে সিঙ্গাপুরের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, এক যাত্রী ব্যাগের ভেতরে বোমা রয়েছে বলে হুমকি দিলেও পরে সেটি মিথ্যা বলে প্রমাণ হয়। যদিও পরিস্থিতি মোকাবিলায় আগেই বিমানবন্দরে সেনাবাহিনীকে ‘তাৎক্ষণিকভাবে জড়ো করা হয়েছিল’।

সিঙ্গাপুরের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, ‘(সেনাবাহিনীর) কেমিক্যাল, বায়োলজিক্যাল, রেডিওলজিক্যাল ও এক্সপ্লোসিভস ডিফেন্স গ্রুপ এবং এয়ারপোর্ট পুলিশ ডিভিশনের দলগুলো বর্তমানে ঘটনাস্থলে রয়েছে। প্রাথমিক তদন্তে জানা যায়, ৩৭ বছর বয়সী এক পুরুষ যাত্রী প্লেন মাঝ আকাশে থাকা অবস্থায় জানান, তার হাতে বহন করা ব্যাগে একটি বোমা রয়েছে এবং তিনি ক্রুদের আক্রমণ করেন। এ বিষয়ে পুলিশের তদন্ত চলছে।’

সিঙ্গাপুরের সরকারি সম্প্রচারমাধ্যম চ্যানেল নিউজএশিয়া জানিয়েছে, যুক্তরাষ্ট্রের সান ফ্রান্সিসকো থেকে উড্ডয়নের পর ১৬ ঘণ্টা ২৫ মিনিট ভ্রমণ শেষে এই ফ্লাইটটি কোনো ধরনের বিলম্ব ছাড়াই বুধবার ভোর ৫টা ৫০ মিনিটে চাঙ্গি বিমানবন্দরে নিরাপদে অবতরণ করে।

এদিকে সিঙ্গাপুরের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের বরাত দিয়ে পৃথক এক প্রতিবেদনে বার্তাসংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, সান ফ্রান্সিসকো থেকে ছেড়ে আসা ওই ফ্লাইটে ৩৭ বছর বয়সী একজন পুরুষ যাত্রী দাবি করেন, তার হাতের লাগেজে একটি বোমা রয়েছে। এরপরই শোরগোল পড়ে যায়।

যদিও ব্যাগে বোমা থাকা নিয়ে ওই হুমকিটি পরবর্তীতে মিথ্যা বলে প্রমাণিত এবং সন্দেহভাজন ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে জানিয়েছে প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়। এ বিষয়ে পুলিশ তাদের তদন্ত চালিয়ে যাচ্ছে।

সিঙ্গাপুর পুলিশ তাৎক্ষণিকভাবে কোনো মন্তব্য করেনি।

সিঙ্গাপুর এয়ারলাইন্সের একজন মুখপাত্র বলেছেন, ফ্লইটের সকল যাত্রী এবং ক্রু বুধবার সকালে স্বাভাবিকভাবে অবতরণ করেছেন। তবে এই ঘটনায় আরও বিশদ কোনো বিবরণ দেননি তিনি।

Tag :
জনপ্রিয়

আগামী বছর থেকে বিদ্যুৎ সংকট অনেকটাই কেটে যাবে: জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী।

মাঝ আকাশে যাত্রীর বোমা হুমকি, যুদ্ধবিমানের পাহারায় প্লেন অবতরণ

প্রকাশের সময় : ০৮:১২:৪১ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২

যুক্তরাষ্ট্রের সান ফ্রান্সিসকো থেকে সিঙ্গাপুরের চাঙ্গি বিমানবন্দরে আসছিল সিঙ্গাপুর এয়ারলাইন্সের একটি ফ্লাইট। তবে মাঝ আকাশেই নিজের ব্যাগে বোমা থাকার কথা জানিয়ে হামলার হুমকি দেন এক যাত্রী। এতে অন্য যাত্রীদের মাঝে দেখা দেয় আতঙ্ক।

তবে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে সিঙ্গাপুরের বিমান বাহিনীর দু’টি যুদ্ধবিমান উড্ডয়ন করা হয় এবং সেগুলোর পাহারায়ই সিঙ্গাপুর এয়ারলাইন্সের ওই ফ্লাইটটি বিমানবন্দরে অবতরণ করে। অবশ্য ব্যাগে বোমা থাকার বিষয়ে ওই যাত্রীর দাবি ছিল ভুয়া। বুধবার (২৮ সেপ্টেম্বর) এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে বার্তাসংস্থা রয়টার্স এবং সংবাদমাধ্যম সিএনএন।

সিঙ্গাপুরের বিমান বাহিনী বুধবার বলেছে, ‘সান ফ্রান্সিসকো থেকে সিঙ্গাপুরের উদ্দেশ্যে রওনা হওয়া সিঙ্গাপুর এয়ারলাইন্সের একটি ফ্লাইটে এক যাত্রীর বোমা হুমকির পর আমাদের দু’টি এফ১৬সি/ডিএস যুদ্ধবিমান পাঠানো হয় এবং ফ্লাইটটিকে পাহারা দিয়ে নিরাপদে অবতরণ করানো হয়।’

দেশটির বিমান বাহিনী আরও বলেছে, ‘প্লেনটি চাঙ্গি বিমানবন্দরে নিরাপদে অবতরণ না করা পর্যন্ত আমাদের যোদ্ধারা সেটি পাহারায় রেখেছিল।’

এদিকে সিঙ্গাপুরের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, এক যাত্রী ব্যাগের ভেতরে বোমা রয়েছে বলে হুমকি দিলেও পরে সেটি মিথ্যা বলে প্রমাণ হয়। যদিও পরিস্থিতি মোকাবিলায় আগেই বিমানবন্দরে সেনাবাহিনীকে ‘তাৎক্ষণিকভাবে জড়ো করা হয়েছিল’।

সিঙ্গাপুরের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, ‘(সেনাবাহিনীর) কেমিক্যাল, বায়োলজিক্যাল, রেডিওলজিক্যাল ও এক্সপ্লোসিভস ডিফেন্স গ্রুপ এবং এয়ারপোর্ট পুলিশ ডিভিশনের দলগুলো বর্তমানে ঘটনাস্থলে রয়েছে। প্রাথমিক তদন্তে জানা যায়, ৩৭ বছর বয়সী এক পুরুষ যাত্রী প্লেন মাঝ আকাশে থাকা অবস্থায় জানান, তার হাতে বহন করা ব্যাগে একটি বোমা রয়েছে এবং তিনি ক্রুদের আক্রমণ করেন। এ বিষয়ে পুলিশের তদন্ত চলছে।’

সিঙ্গাপুরের সরকারি সম্প্রচারমাধ্যম চ্যানেল নিউজএশিয়া জানিয়েছে, যুক্তরাষ্ট্রের সান ফ্রান্সিসকো থেকে উড্ডয়নের পর ১৬ ঘণ্টা ২৫ মিনিট ভ্রমণ শেষে এই ফ্লাইটটি কোনো ধরনের বিলম্ব ছাড়াই বুধবার ভোর ৫টা ৫০ মিনিটে চাঙ্গি বিমানবন্দরে নিরাপদে অবতরণ করে।

এদিকে সিঙ্গাপুরের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের বরাত দিয়ে পৃথক এক প্রতিবেদনে বার্তাসংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, সান ফ্রান্সিসকো থেকে ছেড়ে আসা ওই ফ্লাইটে ৩৭ বছর বয়সী একজন পুরুষ যাত্রী দাবি করেন, তার হাতের লাগেজে একটি বোমা রয়েছে। এরপরই শোরগোল পড়ে যায়।

যদিও ব্যাগে বোমা থাকা নিয়ে ওই হুমকিটি পরবর্তীতে মিথ্যা বলে প্রমাণিত এবং সন্দেহভাজন ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে জানিয়েছে প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়। এ বিষয়ে পুলিশ তাদের তদন্ত চালিয়ে যাচ্ছে।

সিঙ্গাপুর পুলিশ তাৎক্ষণিকভাবে কোনো মন্তব্য করেনি।

সিঙ্গাপুর এয়ারলাইন্সের একজন মুখপাত্র বলেছেন, ফ্লইটের সকল যাত্রী এবং ক্রু বুধবার সকালে স্বাভাবিকভাবে অবতরণ করেছেন। তবে এই ঘটনায় আরও বিশদ কোনো বিবরণ দেননি তিনি।