ঢাকা ১১:৩২ অপরাহ্ন, সোমবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২২, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

শেহবাজের ১১৫ ঘণ্টার ফাঁস অডিও নিলামে, দাম ৩ কোটি

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী শেহবাজ শরিফের ফাঁস হওয়া ১১৫ ঘণ্টার একটি অডিও ইন্টারনেটের ডার্ক ওয়েবে নিলামে উঠেছে। বাংলাদেশি মুদ্রায় যার দাম চাওয়া হয়েছে সাড়ে তিন কোটি টাকার বেশি। এমনই দাবি করেছেন পাকিস্তানের ক্ষমতাচ্যুত প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের দল পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফের (পিটিআই) নেতা ফাওয়াদ চৌধুরী। খবর এনডিটিভির।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, প্রধানমন্ত্রীর বাড়িতে প্রায় ১১৫ ঘণ্টা ধরে রেকর্ড করা ওই অডিও ক্লিপ নিয়ে ইতোমধ্যেই পাকিস্তানের রাজনীতিতে শুরু হয়েছে বিতর্ক। মিডিয়ার সঙ্গে কথার বলার সময় ফাওয়াদ চৌধুরী বলেন, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় নিরাপদ নয়, এখন ফাঁস অডিও ডার্ক ওয়েবে নিলামে তোলা হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, ফাঁস অডিও নিশ্চিত করেছে লন্ডন থেকে সিদ্ধান্ত সব নেওয়া হচ্ছে এবং প্রধানমন্ত্রীর অডিও ফাঁস নিরাপত্তা বাহিনীর ব্যর্থতা।

রিপোর্ট, দাবি করা হচ্ছে ফাঁস অডিওতে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী শেহবাজসহ শাসক দল পাকিস্তান মুসলিম লিগ (এন)-এর ভাইস প্রেসিডেন্ট মরিয়ম, প্রতিরক্ষামন্ত্রী খেয়াজা আসিফ, আইনমন্ত্রী আজম তরার, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রানা সানাউল্লা এবং পাকিস্তানের সাবেক স্পিকার আয়াজ সাদিকের কন্ঠ শোনা গেছে।

ফাঁস হওয়া প্রথম অডিওতে প্রধানমন্ত্রী শেহবাজ শরিফ এবং মরিয়মের কথোপকথন বলে দাবি করা হচ্ছে। দু’জনকে দেশের অর্থমন্ত্রী মিফতা ইসমাইলের নামে নিন্দা করতে শোনা গিয়েছে।

ফাঁস অডিও নিয়ে পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী রানা সানাউল্লা বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেহবাজ শরিফ অডিও ফাঁসের বিষয়টি নোটিশ করেছেন এবং ইতোমধ্যে তদন্ত শুরু হয়েছে।

Tag :
জনপ্রিয়

সামনে অস্তিত্ব রক্ষার লড়াই”যেকোনো মূল্যে সমাবেশ সফল করতে হবে: ফখরুল।

শেহবাজের ১১৫ ঘণ্টার ফাঁস অডিও নিলামে, দাম ৩ কোটি

প্রকাশের সময় : ১১:৩৯:৩২ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী শেহবাজ শরিফের ফাঁস হওয়া ১১৫ ঘণ্টার একটি অডিও ইন্টারনেটের ডার্ক ওয়েবে নিলামে উঠেছে। বাংলাদেশি মুদ্রায় যার দাম চাওয়া হয়েছে সাড়ে তিন কোটি টাকার বেশি। এমনই দাবি করেছেন পাকিস্তানের ক্ষমতাচ্যুত প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের দল পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফের (পিটিআই) নেতা ফাওয়াদ চৌধুরী। খবর এনডিটিভির।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, প্রধানমন্ত্রীর বাড়িতে প্রায় ১১৫ ঘণ্টা ধরে রেকর্ড করা ওই অডিও ক্লিপ নিয়ে ইতোমধ্যেই পাকিস্তানের রাজনীতিতে শুরু হয়েছে বিতর্ক। মিডিয়ার সঙ্গে কথার বলার সময় ফাওয়াদ চৌধুরী বলেন, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় নিরাপদ নয়, এখন ফাঁস অডিও ডার্ক ওয়েবে নিলামে তোলা হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, ফাঁস অডিও নিশ্চিত করেছে লন্ডন থেকে সিদ্ধান্ত সব নেওয়া হচ্ছে এবং প্রধানমন্ত্রীর অডিও ফাঁস নিরাপত্তা বাহিনীর ব্যর্থতা।

রিপোর্ট, দাবি করা হচ্ছে ফাঁস অডিওতে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী শেহবাজসহ শাসক দল পাকিস্তান মুসলিম লিগ (এন)-এর ভাইস প্রেসিডেন্ট মরিয়ম, প্রতিরক্ষামন্ত্রী খেয়াজা আসিফ, আইনমন্ত্রী আজম তরার, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রানা সানাউল্লা এবং পাকিস্তানের সাবেক স্পিকার আয়াজ সাদিকের কন্ঠ শোনা গেছে।

ফাঁস হওয়া প্রথম অডিওতে প্রধানমন্ত্রী শেহবাজ শরিফ এবং মরিয়মের কথোপকথন বলে দাবি করা হচ্ছে। দু’জনকে দেশের অর্থমন্ত্রী মিফতা ইসমাইলের নামে নিন্দা করতে শোনা গিয়েছে।

ফাঁস অডিও নিয়ে পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী রানা সানাউল্লা বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেহবাজ শরিফ অডিও ফাঁসের বিষয়টি নোটিশ করেছেন এবং ইতোমধ্যে তদন্ত শুরু হয়েছে।