ঢাকা ০৫:০২ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ০৭ ডিসেম্বর ২০২২, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

ক্রিকেটারদের আগ্রহে টি-টেন, শঙ্কা বিসিএল নিয়ে

সাকিব আল হাসানের নাম আগেই নিবন্ধন হয়ে গেছে। ফ্র্যাঞ্চাইজি ক্রিকেট লিগ টি-টেনের দল বাংলা টাইগার্সের আইকন ক্রিকেটার হয়েছেন বাংলাদেশি অলরাউন্ডার। সাকিবের পাশাপাশি টি-টেন খেলার আগ্রহ প্রকাশ করেছেন তামিম ইকবাল, মোস্তাফিজুর রহমান ও আফিফ হোসেন। টি-টেনের অফিসিয়াল টুইটার অ্যাকাউন্ট থেকে জানানো হয়েছে ড্রাফটে থাকা এই তিন বাংলাদেশির নাম।

সাকিব সরাসরি সাইনিং। এর বাইরে শুধু তামিম, মোস্তাফিজ ও আফিফই নন, জানা গেছে টি-টেনের ষষ্ঠ সংস্করণে খেলার আগ্রহ প্রকাশ করে ড্রাফটে নাম দিয়েছেন বাংলাদেশ থেকে ২০-এর অধিক ক্রিকেটার। তাদের মধ্যে নাম আছে সাব্বির রহমান, এনামুল হক বিজয়, নুরুল হাসান সোহান, শামিম হোসেন পাটোয়ারী, আল-আমিন হোসেনদের।

১৩ নভেম্বর শেষ হবে অস্ট্রেলিয়া বিশ্বকাপ। তার ঠিক ১০ দিন পর ২৩ নভেম্বর শুরু হবে টি-টেন, চলবে ৪ ডিসেম্বর পর্যন্ত। টুর্নামেন্টের ড্রাফট আগামী সোমবার, ২৬ সেপ্টেম্বর। ৮ দলের টুর্নামেন্টে বাংলাদেশি মালিকানাধীন একমাত্র ফ্র্যাঞ্চাইজি বাংলা টাইগার্স। সাকিবকে নিয়ে রেখেছে তারা, দলে বাংলাদেশি তারকা আরও চাইছে তারা।

ফ্র্যাঞ্চাইজিটির আগ্রহে তামিম বা মোস্তাফিজ থাকলেও নেই আফিফ। এর পেছনে অবশ্য তিন ক্রিকেটারের বেছে নেয়া ক্যাটাগরি ও টুর্নামেন্টের নিয়মই মূল ভূমিকা রাখছে। বাংলা টাইগার্সের টিম ম্যানেজমেন্টের এক সদস্য জানিয়েছেন, সুযোগ থাকলে তামিম-মোস্তাফিজ দুজনকেই দলে নিতেন তারা। আফিফ, তামিম, মোস্তাফিজ তিনজনই ‘এ’ ক্যাটাগরির ক্রিকেটার। বেঁধে দেয়া নিয়মে ‘এ’ ক্যাটাগরি থেকে তিনজনের বেশি দলে নেয়ার সুযোগ নেই।

দলটি সরাসরি দুই সাইনিং শেষ করে ‘এ’ ক্যাটাগরি থেকে নিয়েছে দুই ওপেনার কলিং মানরো ও এভিন লুইসকে। দুজনই ওপেনার, দুজনই বাঁহাতি। তবুও ড্রাফটে সুযোগ পেলে ‘ঘরের ছেলে’ তামিমকে নিতে চায় চট্টগ্রামভিত্তিক বাংলা টাইগার্স। তামিমকে না পেলে মোস্তাফিজের দিকে চোখ তাদের। তবে সবকিছু নির্ভর করছে ড্রাফটের ভাগ্যের ওপর।

বাংলা টাইগার্সের টিম ম্যানেজেন্টের দায়িত্বে থাকা সেই সদস্য বলছিলেন, ‘ব্যাপারটা হচ্ছে ড্রাফটে আমাদের ডাক কখন আসবে। এখন আমাদের আগেই যদি দুটি দল তাদের দুজনকে নিয়ে নেয় তাহলে তো আমাদের সুযোগ থাকবে না। সুযোগ হলে আমরা তামিমকে নিতে চাই। আমাদের একজন পেসারও প্রয়োজন। সে ক্ষেত্রে তামিমকে না পেলে আমরা মোস্তাফিজের কথা ভেবে রেখেছি। কিন্তু আমাদের ডাক যদি পরে আসে, কেউ তাদের আগেই ডেকে নেয়, তবে তো আমরা পাব না।’

তামিম-মোস্তাফিজকে পাওয়া না-পাওয়া ভাগ্যের ওপর ছেড়ে দিয়েছে বাংলা টাইগার্স। কিন্তু সাকিবের সঙ্গে এবার আরও কয়েকজন বাংলাদেশি ক্রিকেটার দলে নিতে চায় তারা। সেই তালিকায় আছে ড্রাফটের ‘বি’ ক্যাটাগরিতে থাকা সোহান ও ‘সি’ ক্যাটাগরিতে থাকা অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপজয়ী ক্রিকেটার শামিম। এই দুই ক্রিকেটের সঙ্গেও আলোচনা সেরে রেখেছে বাংলা টাইগার্স।

তবে বাংলাদেশ জাতীয় দলের ক্রিকেটারদের দলে নেয়ার অনেক ভাবনা-চিন্তা করতে হচ্ছে টি-টেনের ফ্র্যাঞ্চাইজিকে। বিসিবি থেকে টি-টেন খেলার জন্য ক্রিকেটারদের অনাপত্তিপত্র দেয়া নিয়ে অনীহা আছে। কিন্তু এবার যেহেতু সাকিব নিবন্ধন করেছেন, তামিম-মোস্তাফিজরা ড্রাফটে নাম দিয়েছেন, অন্যদের ব্যাপারে বিসিবি নমনীয় হতে পারে বলে আশাবাদী তারা।

এদিকে ডিসেম্বরের প্রথম সপ্তাহে ভারতের বিপক্ষে দ্বিপক্ষীয় সিরিজ। ৩০ নভেম্বরের পর তাই সাকিব বাংলাদেশের অন্য ক্রিকেটারদের পাবেন না টি-টেনে।

এদিকে বাংলাদেশ ক্রিকেট লিগ (বিসিএল) এবার শুরু হবে ২৬ নভেম্বর। চার দলের এই টুর্নামেন্টের সূচি চূড়ান্ত না হলেও ৫০ ওভারের ফরম্যাট আগে হবে বলে জানা গেছে। বোর্ডের ভাবনা ছিল, ভারত সিরিজের জন্য জাতীয় দলের ক্রিকেটাররা বিসিএল দিয়ে ওয়ানডে সিরিজের প্রস্তুতি সারবেন। কিন্তু তারা টি-টেন খেলতে গেলে প্রস্তুতিতে যেমন ঘাটতি পড়বে, তেমনি রং হারাবে তারকাবিহীন বিসিএল।

Tag :
জনপ্রিয়

রসিক নির্বাচন ; আ’লীগের মেয়র প্রার্থী ডালিয়ার গণসংযোগ অনুষ্ঠিত

ক্রিকেটারদের আগ্রহে টি-টেন, শঙ্কা বিসিএল নিয়ে

প্রকাশের সময় : ০৯:২৫:২২ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২

সাকিব আল হাসানের নাম আগেই নিবন্ধন হয়ে গেছে। ফ্র্যাঞ্চাইজি ক্রিকেট লিগ টি-টেনের দল বাংলা টাইগার্সের আইকন ক্রিকেটার হয়েছেন বাংলাদেশি অলরাউন্ডার। সাকিবের পাশাপাশি টি-টেন খেলার আগ্রহ প্রকাশ করেছেন তামিম ইকবাল, মোস্তাফিজুর রহমান ও আফিফ হোসেন। টি-টেনের অফিসিয়াল টুইটার অ্যাকাউন্ট থেকে জানানো হয়েছে ড্রাফটে থাকা এই তিন বাংলাদেশির নাম।

সাকিব সরাসরি সাইনিং। এর বাইরে শুধু তামিম, মোস্তাফিজ ও আফিফই নন, জানা গেছে টি-টেনের ষষ্ঠ সংস্করণে খেলার আগ্রহ প্রকাশ করে ড্রাফটে নাম দিয়েছেন বাংলাদেশ থেকে ২০-এর অধিক ক্রিকেটার। তাদের মধ্যে নাম আছে সাব্বির রহমান, এনামুল হক বিজয়, নুরুল হাসান সোহান, শামিম হোসেন পাটোয়ারী, আল-আমিন হোসেনদের।

১৩ নভেম্বর শেষ হবে অস্ট্রেলিয়া বিশ্বকাপ। তার ঠিক ১০ দিন পর ২৩ নভেম্বর শুরু হবে টি-টেন, চলবে ৪ ডিসেম্বর পর্যন্ত। টুর্নামেন্টের ড্রাফট আগামী সোমবার, ২৬ সেপ্টেম্বর। ৮ দলের টুর্নামেন্টে বাংলাদেশি মালিকানাধীন একমাত্র ফ্র্যাঞ্চাইজি বাংলা টাইগার্স। সাকিবকে নিয়ে রেখেছে তারা, দলে বাংলাদেশি তারকা আরও চাইছে তারা।

ফ্র্যাঞ্চাইজিটির আগ্রহে তামিম বা মোস্তাফিজ থাকলেও নেই আফিফ। এর পেছনে অবশ্য তিন ক্রিকেটারের বেছে নেয়া ক্যাটাগরি ও টুর্নামেন্টের নিয়মই মূল ভূমিকা রাখছে। বাংলা টাইগার্সের টিম ম্যানেজমেন্টের এক সদস্য জানিয়েছেন, সুযোগ থাকলে তামিম-মোস্তাফিজ দুজনকেই দলে নিতেন তারা। আফিফ, তামিম, মোস্তাফিজ তিনজনই ‘এ’ ক্যাটাগরির ক্রিকেটার। বেঁধে দেয়া নিয়মে ‘এ’ ক্যাটাগরি থেকে তিনজনের বেশি দলে নেয়ার সুযোগ নেই।

দলটি সরাসরি দুই সাইনিং শেষ করে ‘এ’ ক্যাটাগরি থেকে নিয়েছে দুই ওপেনার কলিং মানরো ও এভিন লুইসকে। দুজনই ওপেনার, দুজনই বাঁহাতি। তবুও ড্রাফটে সুযোগ পেলে ‘ঘরের ছেলে’ তামিমকে নিতে চায় চট্টগ্রামভিত্তিক বাংলা টাইগার্স। তামিমকে না পেলে মোস্তাফিজের দিকে চোখ তাদের। তবে সবকিছু নির্ভর করছে ড্রাফটের ভাগ্যের ওপর।

বাংলা টাইগার্সের টিম ম্যানেজেন্টের দায়িত্বে থাকা সেই সদস্য বলছিলেন, ‘ব্যাপারটা হচ্ছে ড্রাফটে আমাদের ডাক কখন আসবে। এখন আমাদের আগেই যদি দুটি দল তাদের দুজনকে নিয়ে নেয় তাহলে তো আমাদের সুযোগ থাকবে না। সুযোগ হলে আমরা তামিমকে নিতে চাই। আমাদের একজন পেসারও প্রয়োজন। সে ক্ষেত্রে তামিমকে না পেলে আমরা মোস্তাফিজের কথা ভেবে রেখেছি। কিন্তু আমাদের ডাক যদি পরে আসে, কেউ তাদের আগেই ডেকে নেয়, তবে তো আমরা পাব না।’

তামিম-মোস্তাফিজকে পাওয়া না-পাওয়া ভাগ্যের ওপর ছেড়ে দিয়েছে বাংলা টাইগার্স। কিন্তু সাকিবের সঙ্গে এবার আরও কয়েকজন বাংলাদেশি ক্রিকেটার দলে নিতে চায় তারা। সেই তালিকায় আছে ড্রাফটের ‘বি’ ক্যাটাগরিতে থাকা সোহান ও ‘সি’ ক্যাটাগরিতে থাকা অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপজয়ী ক্রিকেটার শামিম। এই দুই ক্রিকেটের সঙ্গেও আলোচনা সেরে রেখেছে বাংলা টাইগার্স।

তবে বাংলাদেশ জাতীয় দলের ক্রিকেটারদের দলে নেয়ার অনেক ভাবনা-চিন্তা করতে হচ্ছে টি-টেনের ফ্র্যাঞ্চাইজিকে। বিসিবি থেকে টি-টেন খেলার জন্য ক্রিকেটারদের অনাপত্তিপত্র দেয়া নিয়ে অনীহা আছে। কিন্তু এবার যেহেতু সাকিব নিবন্ধন করেছেন, তামিম-মোস্তাফিজরা ড্রাফটে নাম দিয়েছেন, অন্যদের ব্যাপারে বিসিবি নমনীয় হতে পারে বলে আশাবাদী তারা।

এদিকে ডিসেম্বরের প্রথম সপ্তাহে ভারতের বিপক্ষে দ্বিপক্ষীয় সিরিজ। ৩০ নভেম্বরের পর তাই সাকিব বাংলাদেশের অন্য ক্রিকেটারদের পাবেন না টি-টেনে।

এদিকে বাংলাদেশ ক্রিকেট লিগ (বিসিএল) এবার শুরু হবে ২৬ নভেম্বর। চার দলের এই টুর্নামেন্টের সূচি চূড়ান্ত না হলেও ৫০ ওভারের ফরম্যাট আগে হবে বলে জানা গেছে। বোর্ডের ভাবনা ছিল, ভারত সিরিজের জন্য জাতীয় দলের ক্রিকেটাররা বিসিএল দিয়ে ওয়ানডে সিরিজের প্রস্তুতি সারবেন। কিন্তু তারা টি-টেন খেলতে গেলে প্রস্তুতিতে যেমন ঘাটতি পড়বে, তেমনি রং হারাবে তারকাবিহীন বিসিএল।