ঢাকা ০৯:০৮ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৯ নভেম্বর ২০২২, ১৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

সুনামগঞ্জে নৌকাডুবি: দুজনের মরদেহ উদ্ধার, নিখোঁজ ১

সুনামগঞ্জের জামালগঞ্জ উপজেলায় সুরমা নদীতে বাল্কহেডের ধাক্বায় বালুভর্তি নৌকাডুবি ঘটনায় নিখোঁজ তিনজনের মধ্যে দুজনের মরদেহ উদ্ধার করেছে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা। এ ঘটনায় আরও এক শ্রমিক এখনও নিখোঁজ রয়েছেন।

শুক্রবার (২৩ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় নদীর সংবাদপুর গ্রামের অংশ থেকে তাদের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। নিহতরা হলেন- কবির হোসেন ও জুম্মন আহমেদ। তাদের একজন দিরাই থানার মুরাদপুর গ্রামের ও অন্যজন জামালগঞ্জের।

জানা যায়, গত বৃহস্পতিবার (২২ সেপ্টেম্বর) রাতে বাল্কহেডের ধাক্কায় বালুভর্তি একটি নৌকার ডুবে যায়। এ সময় তিনজন নৌকায় উঠতে পারলেও বাকি তিনজন নিখোঁজ হন। সকালে তাদের উদ্ধারে ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা কাজ শুরু করেন। পরে সন্ধ্যায় দুজনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় বাল্কহেডচালক পিরোজপুরের মঠবাড়িয়া থানার তুপখানা গ্রামের মোহাম্মদ আলীর ছেলে নান্না মিয়া (৬০), একই জেলার ভান্ডারিয়া থানার হরিনপাশা গ্রামের মমিন উদ্দিনের ছেলে কবির হোসেন (৩৫) ও তার ছেলে তাওহিদ মিয়া (১৫) এবং মঠবাড়িয়া থানার উদয়তারা বুরুঞ্চা গ্রামের নেছার তালুকদারের ছেলে আয়ুব আলীকে (৪৮) আটক করা হয়।

এ বিষয়টি নিশ্চিত করে সুনামগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন কর্মকর্তা নিউটন দাশ বলেন, নিখোঁজ তিনজনের মধ্যে দুইজনের মরদেহ উদ্ধার করতে সক্ষম হয়েছি। আরেকজন নিখোঁজ আছেন। আমাদের চেষ্টা অব্যাহত আছে।

Tag :
জনপ্রিয়

বীরমুক্তিযোদ্ধা ভূপেশ কুমার দাস রায় আর নেই : বিভিন্ন মহলে শোক

সুনামগঞ্জে নৌকাডুবি: দুজনের মরদেহ উদ্ধার, নিখোঁজ ১

প্রকাশের সময় : ০৯:২০:৫৭ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২২

সুনামগঞ্জের জামালগঞ্জ উপজেলায় সুরমা নদীতে বাল্কহেডের ধাক্বায় বালুভর্তি নৌকাডুবি ঘটনায় নিখোঁজ তিনজনের মধ্যে দুজনের মরদেহ উদ্ধার করেছে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা। এ ঘটনায় আরও এক শ্রমিক এখনও নিখোঁজ রয়েছেন।

শুক্রবার (২৩ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় নদীর সংবাদপুর গ্রামের অংশ থেকে তাদের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। নিহতরা হলেন- কবির হোসেন ও জুম্মন আহমেদ। তাদের একজন দিরাই থানার মুরাদপুর গ্রামের ও অন্যজন জামালগঞ্জের।

জানা যায়, গত বৃহস্পতিবার (২২ সেপ্টেম্বর) রাতে বাল্কহেডের ধাক্কায় বালুভর্তি একটি নৌকার ডুবে যায়। এ সময় তিনজন নৌকায় উঠতে পারলেও বাকি তিনজন নিখোঁজ হন। সকালে তাদের উদ্ধারে ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা কাজ শুরু করেন। পরে সন্ধ্যায় দুজনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় বাল্কহেডচালক পিরোজপুরের মঠবাড়িয়া থানার তুপখানা গ্রামের মোহাম্মদ আলীর ছেলে নান্না মিয়া (৬০), একই জেলার ভান্ডারিয়া থানার হরিনপাশা গ্রামের মমিন উদ্দিনের ছেলে কবির হোসেন (৩৫) ও তার ছেলে তাওহিদ মিয়া (১৫) এবং মঠবাড়িয়া থানার উদয়তারা বুরুঞ্চা গ্রামের নেছার তালুকদারের ছেলে আয়ুব আলীকে (৪৮) আটক করা হয়।

এ বিষয়টি নিশ্চিত করে সুনামগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন কর্মকর্তা নিউটন দাশ বলেন, নিখোঁজ তিনজনের মধ্যে দুইজনের মরদেহ উদ্ধার করতে সক্ষম হয়েছি। আরেকজন নিখোঁজ আছেন। আমাদের চেষ্টা অব্যাহত আছে।