ঢাকা ০৮:১৮ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৯ নভেম্বর ২০২২, ১৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

তাইওয়ানকে বিপজ্জনক সংকেত পাঠাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র: চীন

নতুন অভিযোগে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রকে অভিযুক্ত করলো চীন। দেশটি অভিযোগ করেছে, যুক্তরাষ্ট্র তাইওয়ানকে অত্যন্ত ভুল ও বিপজ্জনক সংকেত পাঠাচ্ছে। আজ শনিবার কাতারভিত্তিক সংবাদ মাধ্যম আল-জাজিরার প্রতিবেদনে এই তথ্য জানানো হয়েছে।

দেশটি যুক্তরাষ্ট্রকে আরও বলেছে, তাইওয়ান ইস্যু সমাধানে বেইজিং যেকোনো পদ্ধতিই ব্যবহার করুক না কেন এতে ওয়াশিংটনের মাথা ঘামানোর কোনো অধিকার নেই।

শুক্রবার নিউইয়র্কে জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের ৭৭তম অধিবেশনের ফাঁকে চীনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ওয়াং ই এবং মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিংকেনের ৯০ মিনিটের আলোচনা হয়েছে। মার্কিন এক কর্মকর্তা রিপোর্টারদের এই কথা বলেছেন।

মার্কিন প্রশাসনের সিনিয়র ওই কর্মকর্তা বলেন, মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী একদম স্পষ্ট করে দিয়েছেন আমাদের দীর্ঘদিনের এক চীন নীতি অবিচল আছে এবং এর পরিবর্তন হয়নি। তাইওয়ান প্রণালীজুড়ে শান্তি ও স্থিতিশীলতা বজায় রাখা খুবই গুরুত্বপূর্ণ।

আলোচনায় চীনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এক বিবৃতিতে বলেছেন, তাইওয়ান নিয়ে ওয়াশিংটন খুবই ভুল এবং বিপজ্জনক সংকেত পাঠাচ্ছে । তিনি সতর্ক করে বলেন, তাইওয়ানে স্বাধীনতার কার্যকলাপ যত বেশি হবে, শান্তিপূর্ণ মীমাংসা হওয়ার সম্ভাবনা তত কম।

চীনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আরও বলেছেন, তাইওয়ান ইস্যু চীনের অভ্যন্তরীণ ইস্যু। এতে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নাক গলানোর কোনো অধিকার নেই।

Tag :
জনপ্রিয়

সংবাদ প্রকাশের জেরে তিন সাংবাদিকসহ ৫জনের নামে চোরাকারবারির মামলা

তাইওয়ানকে বিপজ্জনক সংকেত পাঠাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র: চীন

প্রকাশের সময় : ০৮:২০:২৫ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২২

নতুন অভিযোগে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রকে অভিযুক্ত করলো চীন। দেশটি অভিযোগ করেছে, যুক্তরাষ্ট্র তাইওয়ানকে অত্যন্ত ভুল ও বিপজ্জনক সংকেত পাঠাচ্ছে। আজ শনিবার কাতারভিত্তিক সংবাদ মাধ্যম আল-জাজিরার প্রতিবেদনে এই তথ্য জানানো হয়েছে।

দেশটি যুক্তরাষ্ট্রকে আরও বলেছে, তাইওয়ান ইস্যু সমাধানে বেইজিং যেকোনো পদ্ধতিই ব্যবহার করুক না কেন এতে ওয়াশিংটনের মাথা ঘামানোর কোনো অধিকার নেই।

শুক্রবার নিউইয়র্কে জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের ৭৭তম অধিবেশনের ফাঁকে চীনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ওয়াং ই এবং মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিংকেনের ৯০ মিনিটের আলোচনা হয়েছে। মার্কিন এক কর্মকর্তা রিপোর্টারদের এই কথা বলেছেন।

মার্কিন প্রশাসনের সিনিয়র ওই কর্মকর্তা বলেন, মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী একদম স্পষ্ট করে দিয়েছেন আমাদের দীর্ঘদিনের এক চীন নীতি অবিচল আছে এবং এর পরিবর্তন হয়নি। তাইওয়ান প্রণালীজুড়ে শান্তি ও স্থিতিশীলতা বজায় রাখা খুবই গুরুত্বপূর্ণ।

আলোচনায় চীনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এক বিবৃতিতে বলেছেন, তাইওয়ান নিয়ে ওয়াশিংটন খুবই ভুল এবং বিপজ্জনক সংকেত পাঠাচ্ছে । তিনি সতর্ক করে বলেন, তাইওয়ানে স্বাধীনতার কার্যকলাপ যত বেশি হবে, শান্তিপূর্ণ মীমাংসা হওয়ার সম্ভাবনা তত কম।

চীনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আরও বলেছেন, তাইওয়ান ইস্যু চীনের অভ্যন্তরীণ ইস্যু। এতে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নাক গলানোর কোনো অধিকার নেই।