ঢাকা ০৯:২১ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২২, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

পরিচয়ের রজতজয়ন্তীতে পরস্পরের প্রতি ভালোলাগা প্রকাশ

বাংলাদেশের সংগীতাঙ্গনের গর্ব কুমার বিশ্বজিৎ ও বাংলাদেশের সংগীতাঙ্গনের আরেক অনন্য প্রতিভাধর সংগীতশিল্পী নন্দিত রবি চৌধুরী একই এলাকার। অর্থাৎ দুজনেরই গ্রামের বাড়ি চট্টগ্রামে।

তবে একই এলাকার বলেই যে দুজনের প্রতি দুজনের আলাদা মনের টান রয়েছে— এমনটি নয়। দুজনই দুজনের শিল্পী প্রতিভাকে যথার্থ মূল্যায়ন করার চেষ্টা করেন সব সময়। রবি চৌধুরীর ভাষ্যমতে, তার সঙ্গে কুমার বিশ্বজিতের পরিচয় আজ থেকে ঠিক ২৫ বছর আগে।

সেই থেকে এখন পর্যন্ত কুমার বিশ্বজিতের সঙ্গে রবি চৌধুরীর চমৎকার সম্পর্ক বিদ্যমান। দেশের বাইরে, দেশের মধ্যে নানান অনুষ্ঠানে তাদের দেখা হয়েছে বহুবার। এই হিসাব আসলে সংখ্যায় বর্ণনার নয়। কারণ জার্নিটা ২৫ বছরের।

রবি চৌধুরী প্রসঙ্গে কুমার বিশ্বজিৎ বলেন, ‘রবির কণ্ঠটা অসাধারণ, এটা ভীষণ সত্যি। মানুষ হিসেব খুব খুব ভালো মনের একজন মানুষ। অতীব সহজ-সরল একটা ছেলে। তার জন্য আমার সব সময়ই শুভকামনা। তাকে আমি অনেক স্নেহ করি, ভালোবাসি।’

রবি চৌধুরী কুমার বিশ্বজিৎ প্রসঙ্গে বলেন, ‘দীর্ঘ ২৫ বছর আমার দেখা বিশ্ব দা’ সব বিষয়েই খুবই সচেতন একজন মানুষ। একজন শিল্পী হিসেবে যেন আরও বেশি। বিশেষ করে গানের কথা ও সুরের ব্যাপারে ভীষণ সচেতন। গানের কথা নিয়ে, সুর নিয়ে এত গবেষণা করতে আমি বাংলাদেশের আর কোনো শিল্পীকে দেখিনি। এটা বিশেষ করে অডিও গানের ক্ষেত্রে আমি দেখেছি।

আর এমনিতে বিশ্ব দা’ আমার প্রাণের মানুষ। আমি সবসময়ই দোয়া করি তিনি যেন ভালো থাকেন, সুস্থ থাকেন। তার মতো একজন মহান শিল্পী’র ই্লাষ্ট্রিতে আরো দীর্ঘ সময় থাকার প্রয়োজন আছে।’

এদিকে কুমার বিশ্বজিৎ গেলো বৃহস্পতিবার রাজধানীর বনানী ক্লাবের একটি শো’তে সঙ্গীত পরিবেশন করেছেন। আগামী ২৯ সেপ্টেম্বর ঢাকাতেই আরো একটি শো’তে সঙ্গীত পরিবেশন করবেন তিনি। এদিকে রবি চৌধুরী এক সপ্তাহের জন্য চট্টগ্রামে যাচ্ছেন। ফেরার পর আবারো তিনি গানের কাজে ব্যস্ত হয়ে উঠবেন। ১৯৯১ সালে ‘প্রেম দাও’ অ্যালবাম প্রকাশের মধ্যদিয়ে সঙ্গীতশিল্পী হিসেবে আকাশচুম্বী জনপ্রিয়তা পান রবি চৌধুরী। এখন পর্যন্ত তার ৬৫’টি একক অ্যালবাম প্রকাশিত হয়েছে।

১৯৯৫ সালে নাদিম মাহমুদ পরিচালিত ‘আন্দোলন’ সিনেমায় রবি চৌধুরী প্রথম প্লে-ব্যাক করেন। নারগিস আক্তারের ‘পুত্র এখন পয়সাওয়ালা’ সিনেমার সঙ্গীত পরিচালক হিসেবেও কাজ করেন তিনি।

এদিকে আগামী নভেম্বরে সঙ্গীত জীবনের চল্লিশ বছর উপলক্ষ্যে নতুন সঙ্গীতায়োজনে দশটি গান নিয়ে আসছেন কুমার বিশ্বজিৎ। চল্লিশ বছর পুর্তি অনুষ্ঠানে গানগুলো প্রদর্শিত হবে। আরো থাকবে বিশাল আয়োজন।

Tag :
জনপ্রিয়

রাজপথে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি ও কোনো ধরনের নাশকতা মেনে নেওয়া হবে না: আমির হোসেন আমু।

পরিচয়ের রজতজয়ন্তীতে পরস্পরের প্রতি ভালোলাগা প্রকাশ

প্রকাশের সময় : ০৮:১১:৩৩ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২২

বাংলাদেশের সংগীতাঙ্গনের গর্ব কুমার বিশ্বজিৎ ও বাংলাদেশের সংগীতাঙ্গনের আরেক অনন্য প্রতিভাধর সংগীতশিল্পী নন্দিত রবি চৌধুরী একই এলাকার। অর্থাৎ দুজনেরই গ্রামের বাড়ি চট্টগ্রামে।

তবে একই এলাকার বলেই যে দুজনের প্রতি দুজনের আলাদা মনের টান রয়েছে— এমনটি নয়। দুজনই দুজনের শিল্পী প্রতিভাকে যথার্থ মূল্যায়ন করার চেষ্টা করেন সব সময়। রবি চৌধুরীর ভাষ্যমতে, তার সঙ্গে কুমার বিশ্বজিতের পরিচয় আজ থেকে ঠিক ২৫ বছর আগে।

সেই থেকে এখন পর্যন্ত কুমার বিশ্বজিতের সঙ্গে রবি চৌধুরীর চমৎকার সম্পর্ক বিদ্যমান। দেশের বাইরে, দেশের মধ্যে নানান অনুষ্ঠানে তাদের দেখা হয়েছে বহুবার। এই হিসাব আসলে সংখ্যায় বর্ণনার নয়। কারণ জার্নিটা ২৫ বছরের।

রবি চৌধুরী প্রসঙ্গে কুমার বিশ্বজিৎ বলেন, ‘রবির কণ্ঠটা অসাধারণ, এটা ভীষণ সত্যি। মানুষ হিসেব খুব খুব ভালো মনের একজন মানুষ। অতীব সহজ-সরল একটা ছেলে। তার জন্য আমার সব সময়ই শুভকামনা। তাকে আমি অনেক স্নেহ করি, ভালোবাসি।’

রবি চৌধুরী কুমার বিশ্বজিৎ প্রসঙ্গে বলেন, ‘দীর্ঘ ২৫ বছর আমার দেখা বিশ্ব দা’ সব বিষয়েই খুবই সচেতন একজন মানুষ। একজন শিল্পী হিসেবে যেন আরও বেশি। বিশেষ করে গানের কথা ও সুরের ব্যাপারে ভীষণ সচেতন। গানের কথা নিয়ে, সুর নিয়ে এত গবেষণা করতে আমি বাংলাদেশের আর কোনো শিল্পীকে দেখিনি। এটা বিশেষ করে অডিও গানের ক্ষেত্রে আমি দেখেছি।

আর এমনিতে বিশ্ব দা’ আমার প্রাণের মানুষ। আমি সবসময়ই দোয়া করি তিনি যেন ভালো থাকেন, সুস্থ থাকেন। তার মতো একজন মহান শিল্পী’র ই্লাষ্ট্রিতে আরো দীর্ঘ সময় থাকার প্রয়োজন আছে।’

এদিকে কুমার বিশ্বজিৎ গেলো বৃহস্পতিবার রাজধানীর বনানী ক্লাবের একটি শো’তে সঙ্গীত পরিবেশন করেছেন। আগামী ২৯ সেপ্টেম্বর ঢাকাতেই আরো একটি শো’তে সঙ্গীত পরিবেশন করবেন তিনি। এদিকে রবি চৌধুরী এক সপ্তাহের জন্য চট্টগ্রামে যাচ্ছেন। ফেরার পর আবারো তিনি গানের কাজে ব্যস্ত হয়ে উঠবেন। ১৯৯১ সালে ‘প্রেম দাও’ অ্যালবাম প্রকাশের মধ্যদিয়ে সঙ্গীতশিল্পী হিসেবে আকাশচুম্বী জনপ্রিয়তা পান রবি চৌধুরী। এখন পর্যন্ত তার ৬৫’টি একক অ্যালবাম প্রকাশিত হয়েছে।

১৯৯৫ সালে নাদিম মাহমুদ পরিচালিত ‘আন্দোলন’ সিনেমায় রবি চৌধুরী প্রথম প্লে-ব্যাক করেন। নারগিস আক্তারের ‘পুত্র এখন পয়সাওয়ালা’ সিনেমার সঙ্গীত পরিচালক হিসেবেও কাজ করেন তিনি।

এদিকে আগামী নভেম্বরে সঙ্গীত জীবনের চল্লিশ বছর উপলক্ষ্যে নতুন সঙ্গীতায়োজনে দশটি গান নিয়ে আসছেন কুমার বিশ্বজিৎ। চল্লিশ বছর পুর্তি অনুষ্ঠানে গানগুলো প্রদর্শিত হবে। আরো থাকবে বিশাল আয়োজন।