ঢাকা ১০:২৪ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২২, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

৮ ওভারের ম্যাচ জিতে ভারতের সমতা

টি-টোয়েন্টি ম্যাচ। অথচ মাঠ ভেজা থাকায় খেলা শুরু হতে দেরি হলে কুড়ি ওভারের ম্যাচ পরিণত হয় ৮ ওভারে! তার পরেও অস্ট্রেলিয়া-ভারতের সংক্ষিপ্ত দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টি উত্তাপ ছড়ালো। অজিদের ৬ উইকেটে হারিয়ে ভারত সিরিজে সমতা ফিরিয়েছে ১-১ ব্যবধানে।

নাগপুরে টস জিতে অস্ট্রেলিয়াকে ব্যাট করতে পাঠায় ভারত। শুরুতে বিস্ফোরক ব্যাটিংয়ে অজিদের স্কোরবোর্ড সমৃদ্ধ করেছেন অ্যারন ফিঞ্চ আর শেষ দিকে ম্যাথিউ ওয়েড। ম্যাচের মূল আকর্ষণও ছিল দুজনের ইনিংস। শুরুতে ফিঞ্চ ১৫ বলে ৪ চার ও ১ ছক্কায় ৩১ রান করেছেন। তার ঝড় থামিয়েছেন দুই মাসেরও বেশি সময় পর খেলতে নামা পেসার জসপ্রিত বুমরাহ। এর মাঝে দ্রুত অস্ট্রেলিয়ার উইকেট তুলে নিতে পারলেও ভারত শেষ দিকে ওয়েড ঝড় থামাতেই পারেনি। তাতে চ্যালেঞ্জিং টোটাল পেয়ে যায় সফরকারীরা। ওয়েড ২০ বলে ৪ চার ও ৩ ছক্কায় ৪৩ রানের অপরাজিত ইনিংস খেলেছেন। তাতে ৫ উইকেটে ৮ ওভারে অস্ট্রেলিয়ার সংগ্রহ দাঁড়ায় ৯০ রান। ভারতের হয়ে ১৩ রানে দুটি উইকেট নেন অক্ষর প্যাটেল। ২৩ রানে একটি নিয়েছেন বুমরাহ।

জবাবে ভারত ৪ উইকেট হারিয়ে ম্যাচটা নিজেদের করে নিয়েছে। স্বাগতিকদের শুরুটাও ছিল প্রত্যাশা মতো। ওপেনিং জুটিতে ৩ ওভারে উঠে ৩৯ রান। লোকেশ রাহুলকে (১০) জাম্পা বিদায় দিলে ভাঙে ওপেনিং জুটি। দ্রুত সময়ের মাঝে কোহলি (১১), সূর্যকুমার যাদবের (০) উইকেট তুলে মোমেন্টাম বদলের ইঙ্গিত দেন অজি লেগস্পিনার। কিন্তু তার ঘূর্ণির বিপরীতে আগ্রাসন ধরে দলকে জয়ের পথে রাখেন অধিনায়ক রোহিত শর্মা। হিটম্যানসুলভ ইনিংসে অপরাজিত থাকেন ২০ বলে ৪৬ রানে। তাতে ছিল ৪ চার ও ৪ ছয়। ম্যাচসেরাও তিনি। অবশ্য শেষ দিকে হার্দিক পান্ডিয়াকে (৯) বিদায় দিয়ে কামিন্স চাপ সৃষ্টি করতে চাইলেও ফিনিশার দিনেশ কার্তিক ৭.২ ওভারেই ১ চার ও ১ ছয়ে জয় নিশ্চিত করেছেন। তিনি অপরাজিত ছিলেন ১০ রানে।

Tag :
জনপ্রিয়

রামপালে বিএনপির ২০ নেতাকর্মীর নামে মামলা আটক-৬

৮ ওভারের ম্যাচ জিতে ভারতের সমতা

প্রকাশের সময় : ০৬:৩১:৫১ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২২

টি-টোয়েন্টি ম্যাচ। অথচ মাঠ ভেজা থাকায় খেলা শুরু হতে দেরি হলে কুড়ি ওভারের ম্যাচ পরিণত হয় ৮ ওভারে! তার পরেও অস্ট্রেলিয়া-ভারতের সংক্ষিপ্ত দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টি উত্তাপ ছড়ালো। অজিদের ৬ উইকেটে হারিয়ে ভারত সিরিজে সমতা ফিরিয়েছে ১-১ ব্যবধানে।

নাগপুরে টস জিতে অস্ট্রেলিয়াকে ব্যাট করতে পাঠায় ভারত। শুরুতে বিস্ফোরক ব্যাটিংয়ে অজিদের স্কোরবোর্ড সমৃদ্ধ করেছেন অ্যারন ফিঞ্চ আর শেষ দিকে ম্যাথিউ ওয়েড। ম্যাচের মূল আকর্ষণও ছিল দুজনের ইনিংস। শুরুতে ফিঞ্চ ১৫ বলে ৪ চার ও ১ ছক্কায় ৩১ রান করেছেন। তার ঝড় থামিয়েছেন দুই মাসেরও বেশি সময় পর খেলতে নামা পেসার জসপ্রিত বুমরাহ। এর মাঝে দ্রুত অস্ট্রেলিয়ার উইকেট তুলে নিতে পারলেও ভারত শেষ দিকে ওয়েড ঝড় থামাতেই পারেনি। তাতে চ্যালেঞ্জিং টোটাল পেয়ে যায় সফরকারীরা। ওয়েড ২০ বলে ৪ চার ও ৩ ছক্কায় ৪৩ রানের অপরাজিত ইনিংস খেলেছেন। তাতে ৫ উইকেটে ৮ ওভারে অস্ট্রেলিয়ার সংগ্রহ দাঁড়ায় ৯০ রান। ভারতের হয়ে ১৩ রানে দুটি উইকেট নেন অক্ষর প্যাটেল। ২৩ রানে একটি নিয়েছেন বুমরাহ।

জবাবে ভারত ৪ উইকেট হারিয়ে ম্যাচটা নিজেদের করে নিয়েছে। স্বাগতিকদের শুরুটাও ছিল প্রত্যাশা মতো। ওপেনিং জুটিতে ৩ ওভারে উঠে ৩৯ রান। লোকেশ রাহুলকে (১০) জাম্পা বিদায় দিলে ভাঙে ওপেনিং জুটি। দ্রুত সময়ের মাঝে কোহলি (১১), সূর্যকুমার যাদবের (০) উইকেট তুলে মোমেন্টাম বদলের ইঙ্গিত দেন অজি লেগস্পিনার। কিন্তু তার ঘূর্ণির বিপরীতে আগ্রাসন ধরে দলকে জয়ের পথে রাখেন অধিনায়ক রোহিত শর্মা। হিটম্যানসুলভ ইনিংসে অপরাজিত থাকেন ২০ বলে ৪৬ রানে। তাতে ছিল ৪ চার ও ৪ ছয়। ম্যাচসেরাও তিনি। অবশ্য শেষ দিকে হার্দিক পান্ডিয়াকে (৯) বিদায় দিয়ে কামিন্স চাপ সৃষ্টি করতে চাইলেও ফিনিশার দিনেশ কার্তিক ৭.২ ওভারেই ১ চার ও ১ ছয়ে জয় নিশ্চিত করেছেন। তিনি অপরাজিত ছিলেন ১০ রানে।