ঢাকা ১০:৩৪ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৭ নভেম্বর ২০২২, ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

জন্মদিনে সৃজিতকে কাছে পেলেন না মিথিলা

গতকাল (২৩ সেপ্টেম্বর) ছিলো ভারতের নন্দিত নির্মাতা সৃজিত মুখার্জির জন্মদিন। প্রতি জন্মদিনেই সৃজিতকে বিশেষ ভালোবাসায় ভরিয়ে রাখেন তার স্ত্রী, বাংলাদেশের জনপ্রিয় অভিনেত্রী মিথিলা। কিন্তু এ বছর জন্মদিনে স্বামীকে একদমই কাছে পেলেন না মিথিলা। ফলে তার জন্য বিশেষ কোনো আয়োজনও করতে পারেননি কলকাতার বাসায়।

প্রায় দুই মাস ধরে শহরের বাইরে সৃজিত। শুটিং নিয়ে চূড়ান্ত ব্যস্ত নির্মাতা। তাই এ জন্মদিনে কোনও পরিকল্পনাই করে উঠতে পারেননি স্ত্রী মিথিলা।

বিশেষ এই দিনে স্বামীকে কাছ না পাওয়া প্রসঙ্গে অভিনেত্রী বলেন, ‘সৃজিত মুম্বাইয়ে থাকলে তা-ও কিছু পরিকল্পনা করতে পারতাম। কিন্তু শিলংয়ে কোথায় ঘুরে ঘুরে শুটিং করছে কিচ্ছু জানি না। তাই উপহারও পাঠাতে পারিনি। আয়রা ওর আব্বুর জন্য একটা কার্ড তৈরি করেছে, আমি গিটার বাজিয়ে রাত ১২টায় মেসেজ পাঠিয়েছি এটুকুই। তবে বাড়িতে কিন্তু মাংস হচ্ছে, ও দূরে থাকলেও আমরাই খাওয়াদাওয়া করব। আয়রাও বন্ধুদের সঙ্গে মজা করবে।”

একদিকে দুই বাংলার সিনেমা নিয়ে ব্যস্ত সময় পার করছেন মিথিলা। সঙ্গে আবার অফিসের কাজের বারবার আফ্রিকা সফর। সব মিলিয়ে মিথিলাও তুমুল ব্যস্ত। এরই মধ্যে মেয়ের স্কুলও চলছে।

উল্লেখ্য, সৃজিতের নামটি আগের চেয়ে এখন অনেক বেশি চর্চিত হয় বাংলাদেশে। কারণ ২০১৯ সালের ৬ ডিসেম্বর তিনি বিয়ে করেন বাংলাদেশের জনপ্রিয় অভিনেত্রী ও সমাজকর্মী রাফিয়াত রশিদ মিথিলাকে।

Tag :
জনপ্রিয়

দেশে অ্যান্টিবায়োটিক রেজিস্ট্যান্স ভয়াবহ আকার ধারণ করতে চলেছে: স্বাস্থ্য মহাপরিচালক।

জন্মদিনে সৃজিতকে কাছে পেলেন না মিথিলা

প্রকাশের সময় : ০৫:৫৬:৫৮ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২২

গতকাল (২৩ সেপ্টেম্বর) ছিলো ভারতের নন্দিত নির্মাতা সৃজিত মুখার্জির জন্মদিন। প্রতি জন্মদিনেই সৃজিতকে বিশেষ ভালোবাসায় ভরিয়ে রাখেন তার স্ত্রী, বাংলাদেশের জনপ্রিয় অভিনেত্রী মিথিলা। কিন্তু এ বছর জন্মদিনে স্বামীকে একদমই কাছে পেলেন না মিথিলা। ফলে তার জন্য বিশেষ কোনো আয়োজনও করতে পারেননি কলকাতার বাসায়।

প্রায় দুই মাস ধরে শহরের বাইরে সৃজিত। শুটিং নিয়ে চূড়ান্ত ব্যস্ত নির্মাতা। তাই এ জন্মদিনে কোনও পরিকল্পনাই করে উঠতে পারেননি স্ত্রী মিথিলা।

বিশেষ এই দিনে স্বামীকে কাছ না পাওয়া প্রসঙ্গে অভিনেত্রী বলেন, ‘সৃজিত মুম্বাইয়ে থাকলে তা-ও কিছু পরিকল্পনা করতে পারতাম। কিন্তু শিলংয়ে কোথায় ঘুরে ঘুরে শুটিং করছে কিচ্ছু জানি না। তাই উপহারও পাঠাতে পারিনি। আয়রা ওর আব্বুর জন্য একটা কার্ড তৈরি করেছে, আমি গিটার বাজিয়ে রাত ১২টায় মেসেজ পাঠিয়েছি এটুকুই। তবে বাড়িতে কিন্তু মাংস হচ্ছে, ও দূরে থাকলেও আমরাই খাওয়াদাওয়া করব। আয়রাও বন্ধুদের সঙ্গে মজা করবে।”

একদিকে দুই বাংলার সিনেমা নিয়ে ব্যস্ত সময় পার করছেন মিথিলা। সঙ্গে আবার অফিসের কাজের বারবার আফ্রিকা সফর। সব মিলিয়ে মিথিলাও তুমুল ব্যস্ত। এরই মধ্যে মেয়ের স্কুলও চলছে।

উল্লেখ্য, সৃজিতের নামটি আগের চেয়ে এখন অনেক বেশি চর্চিত হয় বাংলাদেশে। কারণ ২০১৯ সালের ৬ ডিসেম্বর তিনি বিয়ে করেন বাংলাদেশের জনপ্রিয় অভিনেত্রী ও সমাজকর্মী রাফিয়াত রশিদ মিথিলাকে।