ঢাকা ১২:০১ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২২, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

নেশনস লিগে ফ্রান্সের প্রথম জয়

নেশনস লিগের প্রথম স্তরে থাকার আশা বাঁচিয়ে রাখলো ফ্রান্স। বৃহস্পতিবার কিলিয়ান এমবাপ্পে ও অলিভিয়ের জিরুদের গোলে ২-০ তে অস্ট্রিয়াকে হারিয়েছে তারা।

নেশনস লিগের পাঁচ ম্যাচে এটি ফ্রান্সের প্রথম জয়। দুটি করে হার ও ড্রয়ের পর এই জয় বিশ্ব চ্যাম্পিয়নদের স্বস্তি এনে দিলো। গ্রুপ ১-এ ৫ পয়েন্ট নিয়ে তৃতীয় স্থানে থেকে রোববার ডেনমার্কের মাঠে খেলবে ফরাসিরা।

স্তাদে দে ফ্রান্সে দ্বিতীয় মিনিটে এমবাপ্পে জাল কাঁপান উঁচু কোনাকুনি শটে, কিন্তু অফসাইডে তা বাতিল হয়। বক্সের বাইরে থেকে অরেলিয়েন টিচোমেনির পাস ধরে আন্তোয়ান গ্রিয়েজম্যান ও এমবাপ্পের সমন্বিত প্রচেষ্টা ব্যর্থ করেন দেন অস্ট্রিয়া গোলকিপার প্যাট্রিক পেন্টজ।

প্রথমার্ধ শেষ হওয়ার আগে ইনজুরিতে পড়েন স্বাগতিকদের ডিফেন্ডার জুলেস কোন্দে, পেশীর চোটে খুঁড়িয়ে খুঁড়িয়ে মাঠ ছাড়েন তিনি। বিরতির পর কাফ সমস্যায় নামেননি গোলকিপার মাইক মাইগনান। তার স্থলাভিষিক্ত হন আলফোন্সে আরিওলা।

দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে জিরুদের সঙ্গে ওয়ান-টু পাসে বক্সে ঢুকে পড়েন এমবাপ্পে। জায়গা তৈরি করে পাস দেন সতীর্থ জোনাথন ক্লাউসকে, কিন্তু একটুর জন্য গোল করতে পারেননি।

এমবাপ্পে গোলমুখ খোলেন ৫৬ মিনিটে। জিরুদের পাস ধরে পাঁচ ডিফেন্ডারকে কাটিয়ে বক্সে ঢুকে ডানপাশ থেকে লক্ষ্যভেদ করেন তিনি। ৬৫তম মিনিটে গ্রিয়েজম্যানের পিনপয়েন্ট ক্রসে চমৎকার হেডে নিজের ৪৯তম আন্তর্জাতিক গোল করেন জিরুদ। ইনজুরি আক্রান্ত করিম বেনজেমার বদলে জায়গা পেয়ে বাজিমাত করলেন তিনি। জাতীয় রেকর্ডধারী থিয়েরি অঁরির চেয়ে দুই গোলের পেছনে জিরুদ।

Tag :
জনপ্রিয়

ছেলের হত্যাকারীর মৃত্যুদণ্ড নিজ হাতে কার্যকর করলেন বাবা

নেশনস লিগে ফ্রান্সের প্রথম জয়

প্রকাশের সময় : ১১:০০:৫১ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২২

নেশনস লিগের প্রথম স্তরে থাকার আশা বাঁচিয়ে রাখলো ফ্রান্স। বৃহস্পতিবার কিলিয়ান এমবাপ্পে ও অলিভিয়ের জিরুদের গোলে ২-০ তে অস্ট্রিয়াকে হারিয়েছে তারা।

নেশনস লিগের পাঁচ ম্যাচে এটি ফ্রান্সের প্রথম জয়। দুটি করে হার ও ড্রয়ের পর এই জয় বিশ্ব চ্যাম্পিয়নদের স্বস্তি এনে দিলো। গ্রুপ ১-এ ৫ পয়েন্ট নিয়ে তৃতীয় স্থানে থেকে রোববার ডেনমার্কের মাঠে খেলবে ফরাসিরা।

স্তাদে দে ফ্রান্সে দ্বিতীয় মিনিটে এমবাপ্পে জাল কাঁপান উঁচু কোনাকুনি শটে, কিন্তু অফসাইডে তা বাতিল হয়। বক্সের বাইরে থেকে অরেলিয়েন টিচোমেনির পাস ধরে আন্তোয়ান গ্রিয়েজম্যান ও এমবাপ্পের সমন্বিত প্রচেষ্টা ব্যর্থ করেন দেন অস্ট্রিয়া গোলকিপার প্যাট্রিক পেন্টজ।

প্রথমার্ধ শেষ হওয়ার আগে ইনজুরিতে পড়েন স্বাগতিকদের ডিফেন্ডার জুলেস কোন্দে, পেশীর চোটে খুঁড়িয়ে খুঁড়িয়ে মাঠ ছাড়েন তিনি। বিরতির পর কাফ সমস্যায় নামেননি গোলকিপার মাইক মাইগনান। তার স্থলাভিষিক্ত হন আলফোন্সে আরিওলা।

দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে জিরুদের সঙ্গে ওয়ান-টু পাসে বক্সে ঢুকে পড়েন এমবাপ্পে। জায়গা তৈরি করে পাস দেন সতীর্থ জোনাথন ক্লাউসকে, কিন্তু একটুর জন্য গোল করতে পারেননি।

এমবাপ্পে গোলমুখ খোলেন ৫৬ মিনিটে। জিরুদের পাস ধরে পাঁচ ডিফেন্ডারকে কাটিয়ে বক্সে ঢুকে ডানপাশ থেকে লক্ষ্যভেদ করেন তিনি। ৬৫তম মিনিটে গ্রিয়েজম্যানের পিনপয়েন্ট ক্রসে চমৎকার হেডে নিজের ৪৯তম আন্তর্জাতিক গোল করেন জিরুদ। ইনজুরি আক্রান্ত করিম বেনজেমার বদলে জায়গা পেয়ে বাজিমাত করলেন তিনি। জাতীয় রেকর্ডধারী থিয়েরি অঁরির চেয়ে দুই গোলের পেছনে জিরুদ।