ঢাকা ১১:৫৬ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১২ আশ্বিন ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

বাবর-রিজওয়ানের ২০০ রানের জুটিতে রেকর্ড বইয়ে তোলপাড়

২০০ রানের জুটি ওয়ানডেতেই দেখা যায় কালেভদ্রে, সেখানে টি-টোয়েন্টিতে ২০০ রানের জুটি গড়ে বসেছেন পাকিস্তান ওপেনার বাবর আজম আর মোহাম্মদ রিজওয়ান। এমন এক জুটির ফলে রেকর্ড বইয়ে তোলপাড়ই ফেলে দিয়েছেন পাক দুই ব্যাটার।

২০০ – পাকিস্তান ইংল্যান্ডের বিপক্ষে দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে এই রান সফলভাবে তাড়া করেছে। টি-টোয়েন্টির ইতিহাসে বিনা উইকেটে সবচেয়ে বড় রান তাড়া করার রেকর্ড এটাই। এর আগের রেকর্ড ছিল ঘরোয়া ক্রিকেটে, ২০১৭ সালে গুজরাট লায়ন্সের বিপক্ষে ১৮৪ রান তাড়া করে বিনা উইকেটে জিতে গিয়েছিল কলকাতা। আর আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে এই রেকর্ডটা ছিল নিউজিল্যান্ডের দখলে, ভুক্তভোগী ছিল পাকিস্তানই। ২০১৬ সালে পাকিস্তানের ১৬৯ রানের লক্ষ্য কোনো উইকেট না হারিয়েই তাড়া করে ফেলে দলটি।

২০৩- বাবর আর রিজওয়ানের জুটি। টি-টোয়েন্টিতে রান তাড়া করতে নেমে এটাই সবচেয়ে বড় জুটি। দু’জন মিলে নিজেদের রেকর্ডই ভেঙেছেন এবার। গেল বছর সেঞ্চুরিয়নে দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে রান তাড়া করতে নেমে ১৯৭ রানের জুটি গড়েছিলেন দুই পাক ওপেনার।

১- ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ২০০ রান তাড়া করে জেতা একমাত্র দল এখন পাকিস্তান। এর আগে ২০১৮ সালে ব্রিস্টলে দলটির বিপক্ষে ১৯৯ রান তাড়া করে জেতার রেকর্ড ছিল ভারতের।

১- ইতিহাসে প্রথমবারের মতো টি-টোয়েন্টিতে দশ উইকেটে হারল ইংল্যান্ড। পাকিস্তান জিতল ইতিহাসে দ্বিতীয় বারের মতো, গেল বছর টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ভারতকে এই ব্যবধানে প্রথম বারের মতো হারায় পাকিস্তান।

১- বাবর আর রিজওয়ান প্রথম জুটি হিসেবে পাকিস্তানের হয়ে ২০০ রানের পার্টনারশিপের কীর্তি গড়লেন। এর আগে এই জুটির খাতায় ছিল ৫টি ১৫০ রানের পার্টনারশিপ, যেখানে পাকিস্তানের অন্য কোনো জুটির একটিও ১৫০ রানের পার্টনারশিপ নেই। বাবর-রিজওয়ানের এই কীর্তি আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতেই অনন্য।

৩- ২০০ রান তাড়া করে জেতার কীর্তি পাকিস্তানের। তিনটি কীর্তিতেও কমপক্ষে ১৫০ রানের জুটি গড়েছেন বাবর আর রিজওয়ান।

২- টি-টোয়েন্টিতে বাবরের সেঞ্চুরি। ইতিহাসে প্রথম পাকিস্তানী খেলোয়াড় হিসেবে সব ফরম্যাটে একাধিক সেঞ্চুরির কীর্তি গড়লেন তিনি। সব মিলিয়ে ২০ ওভারের ক্রিকেটে তার সেঞ্চুরি দাঁড়াল ৭টি, এশিয়ায় তার চেয়ে বেশি টি-টোয়েন্টি সেঞ্চুরি নেই আর কারো।

১৯২৯- টি-টোয়েন্টিতে বাবর-রিজওয়ানের জুটির রান। টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট ইতিহাসে এক জুটিতে সবচেয়ে বেশি রানের রেকর্ড এখন এটিই। তারা টপকে গেছেন শিখর ধাওয়ান আর রোহিত শর্মার ১৭৪৩ রানের রেকর্ড। বাবরদের আছে ৭ টি তিন অঙ্কের জুটি, এটিও ২০ ওভারের ক্রিকেটে রেকর্ড।

৩- এক ভেন্যুতে তিন ফরম্যাটে সেঞ্চুরির রেকর্ড আছে তিন জনের। করাচিতে সেঞ্চুরি করে এই তালিকায় সবার শেষে যোগ দিয়েছেন বাবর। এর আগে জোহানেসবার্গের ওয়ান্ডারার্স স্টেডিয়ামে এই রেকর্ড ছিল ফ্যাফ ডু প্লেসির, আর অ্যাডিলেড ওভালে এই রেকর্ড ছিল ডেভিড ওয়ার্নারের।

Tag :

দল পাননি তামিম-রিয়াদ

বাবর-রিজওয়ানের ২০০ রানের জুটিতে রেকর্ড বইয়ে তোলপাড়

প্রকাশের সময় : ১০:১১:১১ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২২

২০০ রানের জুটি ওয়ানডেতেই দেখা যায় কালেভদ্রে, সেখানে টি-টোয়েন্টিতে ২০০ রানের জুটি গড়ে বসেছেন পাকিস্তান ওপেনার বাবর আজম আর মোহাম্মদ রিজওয়ান। এমন এক জুটির ফলে রেকর্ড বইয়ে তোলপাড়ই ফেলে দিয়েছেন পাক দুই ব্যাটার।

২০০ – পাকিস্তান ইংল্যান্ডের বিপক্ষে দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে এই রান সফলভাবে তাড়া করেছে। টি-টোয়েন্টির ইতিহাসে বিনা উইকেটে সবচেয়ে বড় রান তাড়া করার রেকর্ড এটাই। এর আগের রেকর্ড ছিল ঘরোয়া ক্রিকেটে, ২০১৭ সালে গুজরাট লায়ন্সের বিপক্ষে ১৮৪ রান তাড়া করে বিনা উইকেটে জিতে গিয়েছিল কলকাতা। আর আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে এই রেকর্ডটা ছিল নিউজিল্যান্ডের দখলে, ভুক্তভোগী ছিল পাকিস্তানই। ২০১৬ সালে পাকিস্তানের ১৬৯ রানের লক্ষ্য কোনো উইকেট না হারিয়েই তাড়া করে ফেলে দলটি।

২০৩- বাবর আর রিজওয়ানের জুটি। টি-টোয়েন্টিতে রান তাড়া করতে নেমে এটাই সবচেয়ে বড় জুটি। দু’জন মিলে নিজেদের রেকর্ডই ভেঙেছেন এবার। গেল বছর সেঞ্চুরিয়নে দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে রান তাড়া করতে নেমে ১৯৭ রানের জুটি গড়েছিলেন দুই পাক ওপেনার।

১- ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ২০০ রান তাড়া করে জেতা একমাত্র দল এখন পাকিস্তান। এর আগে ২০১৮ সালে ব্রিস্টলে দলটির বিপক্ষে ১৯৯ রান তাড়া করে জেতার রেকর্ড ছিল ভারতের।

১- ইতিহাসে প্রথমবারের মতো টি-টোয়েন্টিতে দশ উইকেটে হারল ইংল্যান্ড। পাকিস্তান জিতল ইতিহাসে দ্বিতীয় বারের মতো, গেল বছর টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ভারতকে এই ব্যবধানে প্রথম বারের মতো হারায় পাকিস্তান।

১- বাবর আর রিজওয়ান প্রথম জুটি হিসেবে পাকিস্তানের হয়ে ২০০ রানের পার্টনারশিপের কীর্তি গড়লেন। এর আগে এই জুটির খাতায় ছিল ৫টি ১৫০ রানের পার্টনারশিপ, যেখানে পাকিস্তানের অন্য কোনো জুটির একটিও ১৫০ রানের পার্টনারশিপ নেই। বাবর-রিজওয়ানের এই কীর্তি আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতেই অনন্য।

৩- ২০০ রান তাড়া করে জেতার কীর্তি পাকিস্তানের। তিনটি কীর্তিতেও কমপক্ষে ১৫০ রানের জুটি গড়েছেন বাবর আর রিজওয়ান।

২- টি-টোয়েন্টিতে বাবরের সেঞ্চুরি। ইতিহাসে প্রথম পাকিস্তানী খেলোয়াড় হিসেবে সব ফরম্যাটে একাধিক সেঞ্চুরির কীর্তি গড়লেন তিনি। সব মিলিয়ে ২০ ওভারের ক্রিকেটে তার সেঞ্চুরি দাঁড়াল ৭টি, এশিয়ায় তার চেয়ে বেশি টি-টোয়েন্টি সেঞ্চুরি নেই আর কারো।

১৯২৯- টি-টোয়েন্টিতে বাবর-রিজওয়ানের জুটির রান। টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট ইতিহাসে এক জুটিতে সবচেয়ে বেশি রানের রেকর্ড এখন এটিই। তারা টপকে গেছেন শিখর ধাওয়ান আর রোহিত শর্মার ১৭৪৩ রানের রেকর্ড। বাবরদের আছে ৭ টি তিন অঙ্কের জুটি, এটিও ২০ ওভারের ক্রিকেটে রেকর্ড।

৩- এক ভেন্যুতে তিন ফরম্যাটে সেঞ্চুরির রেকর্ড আছে তিন জনের। করাচিতে সেঞ্চুরি করে এই তালিকায় সবার শেষে যোগ দিয়েছেন বাবর। এর আগে জোহানেসবার্গের ওয়ান্ডারার্স স্টেডিয়ামে এই রেকর্ড ছিল ফ্যাফ ডু প্লেসির, আর অ্যাডিলেড ওভালে এই রেকর্ড ছিল ডেভিড ওয়ার্নারের।