ঢাকা ০১:০৬ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২২, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

বিনা উইকেটে ২০০ তাড়া করে বিশ্বরেকর্ডগড়া জয় পাকিস্তানের

বাবর আজম আর মোহাম্মদ রিজওয়ান একসঙ্গে ওপেনিং জুটিতে জ্বলে উঠলে কতটা ভয়ংকর হতে পারেন, এর আগেও দেখা গেছে। তবে এবার শুধু ভয়ংকরই হলেন না, বিশ্বরেকর্ডও গড়লেন এই যুগল।

ইংল্যান্ড পাকিস্তানের সামনে দিয়েছিল ২০০ রানের বিশাল লক্ষ্য। বাবর আজম আর রিজওয়ান মিলেই এই লক্ষ্য তাড়া করে ফেলেছেন সহজে।

করাচিতে সিরিজের দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে ১০ উইকেট আর ৩ বল হাতে রেখে জিতেছে পাকিস্তান। এই জয়ে সাত ম্যাচের সিরিজে ১-১ সমতা ফিরিয়েছে স্বাগতিকরা।

টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটের ইতিহাসে এর আগে দুই ওপেনার মিলে ২০০ রান তাড়া করে জিততে পারেননি। বাবর আর রিজওয়ান বিশ্বরেকর্ড গড়েছেন।

১০ উইকেটে এর আগে সবচেয়ে বড় জয়টি ছিল পাকিস্তানের বিপক্ষে নিউজিল্যান্ডের। ২০১৬ সালে হ্যামিল্টনে পাকিস্তানের ১৬৯ তাড়া করে নিউজিল্যান্ডকে জিতিয়েছিল মার্টিন গাপটিল আর কেন উইলিয়ামসন।

১০ উইকেট হাতে রেখে সবচেয়ে বেশি রান তাড়ার তৃতীয় রেকর্ডটি আবার পাকিস্তানের। ২০২১ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ভারতের বিপক্ষে ১৫২ রান তাড়া করে দলকে বিনা ‍উইকেটে জিতিয়েছিলেন বাবর-রিজওয়ান জুটিই।

বৃহস্পতিবার রাতে করাচিতে টস জিতে ব্যাট করতে নেমে ৫ উইকেটে ১৯৯ রান তুলেছিল ইংল্যান্ড। ২৩ বলে ৪টি করে চার-ছক্কায় অধিনায়ক মঈন আলি খেলেন ৫৫ রানের হার না মানা ইনিংস। বেন ডাকেট করেন ২২ বলে ৪৩।

জবাবে বাবর-রিজওয়ান জুটির কাছে পাত্তাই পায়নি ইংল্যান্ড। বাবর ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় সেঞ্চুরি তুলে ১১০ রানে অপরাজিত থাকেন। যে ইনিংসে তিনি ১১টি বাউন্ডারির সঙ্গে হাঁকান ৫টি ছক্কা। ৫১ বলে ৫ চার আর ৪ ছক্কায় ৮৮ রানে অপরাজিত থাকেন রিজওয়ান।

Tag :
জনপ্রিয়

আজ সারাদেশে বিএনপির বিক্ষোভ কর্মসূচি।

বিনা উইকেটে ২০০ তাড়া করে বিশ্বরেকর্ডগড়া জয় পাকিস্তানের

প্রকাশের সময় : ০৬:৩১:৪৮ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২২

বাবর আজম আর মোহাম্মদ রিজওয়ান একসঙ্গে ওপেনিং জুটিতে জ্বলে উঠলে কতটা ভয়ংকর হতে পারেন, এর আগেও দেখা গেছে। তবে এবার শুধু ভয়ংকরই হলেন না, বিশ্বরেকর্ডও গড়লেন এই যুগল।

ইংল্যান্ড পাকিস্তানের সামনে দিয়েছিল ২০০ রানের বিশাল লক্ষ্য। বাবর আজম আর রিজওয়ান মিলেই এই লক্ষ্য তাড়া করে ফেলেছেন সহজে।

করাচিতে সিরিজের দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে ১০ উইকেট আর ৩ বল হাতে রেখে জিতেছে পাকিস্তান। এই জয়ে সাত ম্যাচের সিরিজে ১-১ সমতা ফিরিয়েছে স্বাগতিকরা।

টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটের ইতিহাসে এর আগে দুই ওপেনার মিলে ২০০ রান তাড়া করে জিততে পারেননি। বাবর আর রিজওয়ান বিশ্বরেকর্ড গড়েছেন।

১০ উইকেটে এর আগে সবচেয়ে বড় জয়টি ছিল পাকিস্তানের বিপক্ষে নিউজিল্যান্ডের। ২০১৬ সালে হ্যামিল্টনে পাকিস্তানের ১৬৯ তাড়া করে নিউজিল্যান্ডকে জিতিয়েছিল মার্টিন গাপটিল আর কেন উইলিয়ামসন।

১০ উইকেট হাতে রেখে সবচেয়ে বেশি রান তাড়ার তৃতীয় রেকর্ডটি আবার পাকিস্তানের। ২০২১ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ভারতের বিপক্ষে ১৫২ রান তাড়া করে দলকে বিনা ‍উইকেটে জিতিয়েছিলেন বাবর-রিজওয়ান জুটিই।

বৃহস্পতিবার রাতে করাচিতে টস জিতে ব্যাট করতে নেমে ৫ উইকেটে ১৯৯ রান তুলেছিল ইংল্যান্ড। ২৩ বলে ৪টি করে চার-ছক্কায় অধিনায়ক মঈন আলি খেলেন ৫৫ রানের হার না মানা ইনিংস। বেন ডাকেট করেন ২২ বলে ৪৩।

জবাবে বাবর-রিজওয়ান জুটির কাছে পাত্তাই পায়নি ইংল্যান্ড। বাবর ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় সেঞ্চুরি তুলে ১১০ রানে অপরাজিত থাকেন। যে ইনিংসে তিনি ১১টি বাউন্ডারির সঙ্গে হাঁকান ৫টি ছক্কা। ৫১ বলে ৫ চার আর ৪ ছক্কায় ৮৮ রানে অপরাজিত থাকেন রিজওয়ান।