ঢাকা ০৪:১৪ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ০১ অক্টোবর ২০২২, ১৫ আশ্বিন ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

৭ বছর পর প্রেক্ষাগৃহে কেয়া

২০১৫ সালে মুক্তি পেয়েছিল সাবরিনা সুলতানা কেয়া অভিনীত সর্বশেষ সিনেমা ‘ব্ল্যাকমানি’। তারপর বেশ কিছু সিনেমায় কাজ করলেও করোনাসহ বিভিন্ন কারণে মুক্তি পায়নি এতদিন। এবার ৭ বছর পর ‘ইয়েস ম্যাডাম’ ছবি দিয়ে প্রেক্ষাগৃহে আসছেন কেয়া। আগামী ১১ই নভেম্বর মুক্তি পেতে যাচ্ছে ছবিটি। রকিবুল আলম রকিব পরিচালিত এ ছবিতে কেয়ার বিপরীতে রয়েছেন শিপন মিত্র। আরও রয়েছেন রেসী, আমান রেজা, তানহা মৌমাছি প্রমুখ। এ ছবির মাধ্যমে প্রথমবারের মতো লেডি অ্যাকশন সিনেমায় অভিনয় করেছেন কেয়া। এখানে তাকে দেখা যাবে পুলিশের এসপি চরিত্রে। ছবিতে অভিনয়ের অভিজ্ঞতা বলতে গিয়ে কেয়া বলেন, অনেক কষ্ট করেছি ছবিটি করতে গিয়ে। সকালে করতাম গানের শুটিং, আর রাত পর্যন্ত অ্যাকশন দৃশ্য।

যেহেতু ছবিটি মূলত আমাকে নিয়েই তাই সেভাবেই কাজ করতে হয়েছে। এমন অ্যাকশন দৃশ্যে আগে কাজ করা হয়নি। ছবিটির গল্প দারুণ। সব মিলিয়ে এখানে কাজের অভিজ্ঞতা অসাধারণ। ছবিটি নিয়ে নিজের প্রত্যাশার কথা জানিয়ে কেয়া মানবজমিনকে বলেন, এখন সিনেমা বেশ ভালো চলছে। ভালো ছবি হলে দর্শক দেখছে। সে কারণেই আমি আশাবাদী ‘ইয়েস ম্যাডাম’ নিয়ে। কারণ শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত উপভোগ করার মতো একটি সিনেমা এটি। এদিকে কেয়া অভিনীত আরও প্রায় হাফ ডজন ছবি মুক্তির অপেক্ষায় রয়েছে। এর মধ্যে ‘বনলতা’ ও ‘কথা দিলাম’ নামের দু’টি ছবি সেন্সর ছাড়পত্র পেয়েছে। খুব শিগগিরই এ ছবি দু’টি মুক্তির তারিখ চূড়ান্ত হবে।

Tag :
জনপ্রিয়

হোসেনপুর বাজার সনাতন ধর্মাবলম্বী ব্যাবসায়িকদের উদ্যোগে বস্ত্র বিতরণ

৭ বছর পর প্রেক্ষাগৃহে কেয়া

প্রকাশের সময় : ০৯:১৯:৩৯ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২২

২০১৫ সালে মুক্তি পেয়েছিল সাবরিনা সুলতানা কেয়া অভিনীত সর্বশেষ সিনেমা ‘ব্ল্যাকমানি’। তারপর বেশ কিছু সিনেমায় কাজ করলেও করোনাসহ বিভিন্ন কারণে মুক্তি পায়নি এতদিন। এবার ৭ বছর পর ‘ইয়েস ম্যাডাম’ ছবি দিয়ে প্রেক্ষাগৃহে আসছেন কেয়া। আগামী ১১ই নভেম্বর মুক্তি পেতে যাচ্ছে ছবিটি। রকিবুল আলম রকিব পরিচালিত এ ছবিতে কেয়ার বিপরীতে রয়েছেন শিপন মিত্র। আরও রয়েছেন রেসী, আমান রেজা, তানহা মৌমাছি প্রমুখ। এ ছবির মাধ্যমে প্রথমবারের মতো লেডি অ্যাকশন সিনেমায় অভিনয় করেছেন কেয়া। এখানে তাকে দেখা যাবে পুলিশের এসপি চরিত্রে। ছবিতে অভিনয়ের অভিজ্ঞতা বলতে গিয়ে কেয়া বলেন, অনেক কষ্ট করেছি ছবিটি করতে গিয়ে। সকালে করতাম গানের শুটিং, আর রাত পর্যন্ত অ্যাকশন দৃশ্য।

যেহেতু ছবিটি মূলত আমাকে নিয়েই তাই সেভাবেই কাজ করতে হয়েছে। এমন অ্যাকশন দৃশ্যে আগে কাজ করা হয়নি। ছবিটির গল্প দারুণ। সব মিলিয়ে এখানে কাজের অভিজ্ঞতা অসাধারণ। ছবিটি নিয়ে নিজের প্রত্যাশার কথা জানিয়ে কেয়া মানবজমিনকে বলেন, এখন সিনেমা বেশ ভালো চলছে। ভালো ছবি হলে দর্শক দেখছে। সে কারণেই আমি আশাবাদী ‘ইয়েস ম্যাডাম’ নিয়ে। কারণ শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত উপভোগ করার মতো একটি সিনেমা এটি। এদিকে কেয়া অভিনীত আরও প্রায় হাফ ডজন ছবি মুক্তির অপেক্ষায় রয়েছে। এর মধ্যে ‘বনলতা’ ও ‘কথা দিলাম’ নামের দু’টি ছবি সেন্সর ছাড়পত্র পেয়েছে। খুব শিগগিরই এ ছবি দু’টি মুক্তির তারিখ চূড়ান্ত হবে।