ঢাকা ০৯:০৩ অপরাহ্ন, বুধবার, ০৫ অক্টোবর ২০২২, ২০ আশ্বিন ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

পুলিশ বাড়ি-বাড়ি গিয়ে বিএনপির নেতাকর্মী ও পরিবারের তথ্য সংগ্রহ করছে: ফখরুল।

পুলিশ বাড়ি-বাড়ি গিয়ে বিএনপির নেতাকর্মী ও পরিবারের তথ্য সংগ্রহ করছে বলে দাবি করেছেন দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

তিনি বলেন, সারা দেশে বাড়ি বাড়ি গিয়ে বিএনপির নেতাকর্মীদের পেশা, সন্তান, সম্পত্তির বিবরণসহ নানা তথ্য সংগ্রহ করছে পুলিশ।

বুধবার (২১ সেপ্টেম্বর) রাজধানীর গুলশানে দলের চেয়ারপার্সনের রাজনৈতিক কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

মির্জা ফখরুল বলেন, প্রত্যন্ত অঞ্চলে পর্যন্ত পুলিশ বিএনপিসহ বিরোধীদলীয় নেতাকর্মীদের ব্যক্তিগত তথ্য সংগ্রহ করার নামে হয়রানি করছে। দেশে বিরাজমান ভয়ের পরিস্থিতিকে তারা আরও আতঙ্কগ্রস্ত করে তুলছে।

তিনি বলেন, বিভিন্ন এলাকায় পুলিশ রাজনৈতিক কর্মীদের একজনের কাছ থেকে অন্যজনের তথ্য সংগ্রহে লিপ্ত রয়েছে। বিএনপি ও অঙ্গ-সংগঠনের কমিটির তালিকা সংগ্রহ করছে।

পুলিশের এ ধরনের কর্মকাণ্ড বাংলাদেশের সংবিধান, ফৌজদারি কার্যবিধি, পুলিশ আইন বা পুলিশ বিধি কিংবা অন্য কোনো আইনে সমর্থনযোগ্য নয় বলে উল্লেখ করে বিএনপি মহাসচিব। তিনি বলেন, পুলিশের এই প্রক্রিয়াটি সংবিধানের ৩১, ৩২ ও ৪৩ অনুচ্ছেদের সুস্পষ্ট লঙ্ঘন।

সাবেক এই প্রতিমন্ত্রী বলেন, বিএনপি এই অবস্থার অবসান চায়। আমরা পুলিশ কর্তৃপক্ষকে আহ্বান জানাচ্ছি, এভাবে সাধারণ নাগরিক, রাজনৈতিক কর্মীদের হয়রানি বন্ধ করে দেশে গণতান্ত্রিক পরিবেশ সৃষ্টির জন্য তারা তাদের সাংবিধানিক দায়িত্ব পালন করবে।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান।

Tag :

কালীগঞ্জে মায়ের শাড়ি গলায় পেঁচিয়ে ছেলের আত্মহত্যা

পুলিশ বাড়ি-বাড়ি গিয়ে বিএনপির নেতাকর্মী ও পরিবারের তথ্য সংগ্রহ করছে: ফখরুল।

প্রকাশের সময় : ০৯:১৩:৩৯ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২২

পুলিশ বাড়ি-বাড়ি গিয়ে বিএনপির নেতাকর্মী ও পরিবারের তথ্য সংগ্রহ করছে বলে দাবি করেছেন দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

তিনি বলেন, সারা দেশে বাড়ি বাড়ি গিয়ে বিএনপির নেতাকর্মীদের পেশা, সন্তান, সম্পত্তির বিবরণসহ নানা তথ্য সংগ্রহ করছে পুলিশ।

বুধবার (২১ সেপ্টেম্বর) রাজধানীর গুলশানে দলের চেয়ারপার্সনের রাজনৈতিক কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

মির্জা ফখরুল বলেন, প্রত্যন্ত অঞ্চলে পর্যন্ত পুলিশ বিএনপিসহ বিরোধীদলীয় নেতাকর্মীদের ব্যক্তিগত তথ্য সংগ্রহ করার নামে হয়রানি করছে। দেশে বিরাজমান ভয়ের পরিস্থিতিকে তারা আরও আতঙ্কগ্রস্ত করে তুলছে।

তিনি বলেন, বিভিন্ন এলাকায় পুলিশ রাজনৈতিক কর্মীদের একজনের কাছ থেকে অন্যজনের তথ্য সংগ্রহে লিপ্ত রয়েছে। বিএনপি ও অঙ্গ-সংগঠনের কমিটির তালিকা সংগ্রহ করছে।

পুলিশের এ ধরনের কর্মকাণ্ড বাংলাদেশের সংবিধান, ফৌজদারি কার্যবিধি, পুলিশ আইন বা পুলিশ বিধি কিংবা অন্য কোনো আইনে সমর্থনযোগ্য নয় বলে উল্লেখ করে বিএনপি মহাসচিব। তিনি বলেন, পুলিশের এই প্রক্রিয়াটি সংবিধানের ৩১, ৩২ ও ৪৩ অনুচ্ছেদের সুস্পষ্ট লঙ্ঘন।

সাবেক এই প্রতিমন্ত্রী বলেন, বিএনপি এই অবস্থার অবসান চায়। আমরা পুলিশ কর্তৃপক্ষকে আহ্বান জানাচ্ছি, এভাবে সাধারণ নাগরিক, রাজনৈতিক কর্মীদের হয়রানি বন্ধ করে দেশে গণতান্ত্রিক পরিবেশ সৃষ্টির জন্য তারা তাদের সাংবিধানিক দায়িত্ব পালন করবে।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান।