ঢাকা ০৯:২৮ অপরাহ্ন, বুধবার, ০৫ অক্টোবর ২০২২, ২০ আশ্বিন ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

মানিকগঞ্জে কবরস্থান থেকে আবারও কঙ্কাল চুরি

মানিকগঞ্জের শিবালয়ে বড় বোয়ালি কবরস্থানে আবারও কঙ্কাল চুরির ঘটনা ঘটেছে। এবার চুরি হয়েছে তিনটি কঙ্কাল।

সোমবার (১৯ সেপ্টেম্বর) রাতের কোনো এক সময় চুরির এ ঘটনা ঘটে। মঙ্গলবার (২০ সেপ্টেম্বর) সকালে বিষয়টি নজরে আসে স্থানীয়দের।

শিবালয় ইউপি চেয়ারম্যান ও কবরস্থান পরিচালনা কমিটির সভাপতি আলাল উদ্দিন আলাল জানান, সকালে স্থানীয়দের কাছে খবর পেয়ে কবরস্থানে ছুটে যান তিনি। গিয়ে দেখেন ৬/৭টি কবর খোঁড়া। এর মধ্যে তিনটি কবরে কঙ্কাল নেই। রাতের কোনো এক সময় দুর্বৃত্তরা এই কঙ্কালগুলো চুরি করে।

শিবালয় থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. শাহ নুর আলম ও অতিরিক্ত পুলিশ সুপার নুরজাহান লাবনী (শিবালয় সার্কেল) ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

শিবালয় থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহ নূর এ আলম জানান, কঙ্কাল চুরির ঘটনায় জড়িতদের ধরতে জেলা পুলিশ অনেক আগে থেকেই কাজ শুরু করেছে। দ্রুতই জড়িতদের আইনের আওতায় আনা হবে।

উল্লেখ্য, এর আগে গত ১০ আগস্ট একই কবরস্থান থেকে সাতটি কঙ্কাল চুরি হয়। একই দিন পাশের আরেকটি কবরস্থান থেকে চুরি হয় পাঁচটি কঙ্কাল। এছাড়া গত ৩০ মার্চ ঘিওর উপজেলার ধুলন্ডী এলাকার একটি কবরস্থান থেকে চুরি হয় ৯টি কঙ্কাল। এ ঘটনায় জড়িত কাউকে এখনো সনাক্ত করতে পারেনি পুলিশ।

Tag :

জাতীয় গ্রিডে বিপর্যয়ের ঘটনা বিদ্যুৎ খাতসহ সরকারের সার্বিক ব্যর্থতা: মির্জা ফখরুল।

মানিকগঞ্জে কবরস্থান থেকে আবারও কঙ্কাল চুরি

প্রকাশের সময় : ০৯:৩৪:৫২ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২২

মানিকগঞ্জের শিবালয়ে বড় বোয়ালি কবরস্থানে আবারও কঙ্কাল চুরির ঘটনা ঘটেছে। এবার চুরি হয়েছে তিনটি কঙ্কাল।

সোমবার (১৯ সেপ্টেম্বর) রাতের কোনো এক সময় চুরির এ ঘটনা ঘটে। মঙ্গলবার (২০ সেপ্টেম্বর) সকালে বিষয়টি নজরে আসে স্থানীয়দের।

শিবালয় ইউপি চেয়ারম্যান ও কবরস্থান পরিচালনা কমিটির সভাপতি আলাল উদ্দিন আলাল জানান, সকালে স্থানীয়দের কাছে খবর পেয়ে কবরস্থানে ছুটে যান তিনি। গিয়ে দেখেন ৬/৭টি কবর খোঁড়া। এর মধ্যে তিনটি কবরে কঙ্কাল নেই। রাতের কোনো এক সময় দুর্বৃত্তরা এই কঙ্কালগুলো চুরি করে।

শিবালয় থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. শাহ নুর আলম ও অতিরিক্ত পুলিশ সুপার নুরজাহান লাবনী (শিবালয় সার্কেল) ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

শিবালয় থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহ নূর এ আলম জানান, কঙ্কাল চুরির ঘটনায় জড়িতদের ধরতে জেলা পুলিশ অনেক আগে থেকেই কাজ শুরু করেছে। দ্রুতই জড়িতদের আইনের আওতায় আনা হবে।

উল্লেখ্য, এর আগে গত ১০ আগস্ট একই কবরস্থান থেকে সাতটি কঙ্কাল চুরি হয়। একই দিন পাশের আরেকটি কবরস্থান থেকে চুরি হয় পাঁচটি কঙ্কাল। এছাড়া গত ৩০ মার্চ ঘিওর উপজেলার ধুলন্ডী এলাকার একটি কবরস্থান থেকে চুরি হয় ৯টি কঙ্কাল। এ ঘটনায় জড়িত কাউকে এখনো সনাক্ত করতে পারেনি পুলিশ।