ঢাকা ০৯:৩৭ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৭ নভেম্বর ২০২২, ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

একই দিনে লাল বলের ক্রিকেট ছাড়লেন দুই পেসার

প্রথম শ্রেণির ক্রিকেট থেকে অবসরের ঘোষণা দিয়েছেন পেসার রুবেল হোসেন। তার কিছুক্ষণ বাদেই একই ফরম্যাট থেকে অবসরের ঘোষণা দিয়েছেন আরেক পেসার শফিউল ইসলামও।

সীমিত পরিসরের ক্যারিয়ার লম্বা করতে প্রথম শ্রেণির ক্রিকেট না খেলার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন এই দুজন। আগামী অক্টোবরে জাতীয় ক্রিকেট লিগে (এনসিএল) দেখা যাবে না ৩২ বছর বয়সী পেসারকে।

শফিউলের অবসর ব্যাপারটি জানিয়েছেন বিসিবির প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন নান্নু। মৌখিকভাবে বলার পর বিসিবির পক্ষ থেকে লিখিতভাবে জানাতে বলা হয়েছে শফিউলকে।

লম্বা দৈর্ঘ্যের ক্রিকেট থেকে নিজেকে সরিয়ে নেওয়া নিয়ে রুবেল বলেছেন, ‘অনেক বছর ধরে ক্রিকেট খেলছি তাই শরীরের একটা বিষয় আছে। সবকিছুই আসলে বিবেচনা করেছি।

চিন্তা করছি টেস্ট ম্যাচ খেললে চোটে পড়ে যাব। ফিটনেসেরও একটা ব্যাপার আছে। এগুলো সবই বিবেচনা করছি। চার দিনের বিসিএল না খেললেও ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি সংস্করণ খেলব।’

তবে লাল বলের ক্যারিয়ার অবশ্য খুব বেশি রাঙাতে পারেননি রুবেল। ১২ বছরের লম্বা ক্যারিয়ারে কখনোই টেস্টে থিতু হতে পারেননি। ২৭ টেস্ট খেলে রুবেলের উইকেট ৩৬টি। বোলিং গড় ৭৬.৭৭।

১০টির বেশি টেস্ট খেলা বোলারদের মধ্যে সবচেয়ে বাজে বোলিং গড় রুবেলের। ঘরোয়া প্রথম শ্রেণিতে ৬০ ম্যাচে উইকেট সংখ্যা ৯৭টি। এখানেও একটি উইকেট পেতে খরচ করতে হয়েছে ৫৪.০৩ রান।

অনেকটা একই অবস্থা শফিউলেরও। দীর্ঘ ক্যারিয়ারে চোটের সঙ্গে লড়াই করতে হয়েছে ৩২ বছর বয়সী এই পেসারকে। লাল বলে বাংলাদেশের হয়ে ১১ টি ম্যাচ খেলেছেন শফিউল।

উইকেট নিয়েছেন ১৭টি। ঘরোয়া প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটের পরিসংখ্যানও খুব বেশি সমৃদ্ধ নয়। ৬২ ম্যাচে খেলে উইকেট নিয়েছেন ১৬৪টি।

Tag :
জনপ্রিয়

নিরব-আরিয়ানা জামানের ‘স্পর্শ’

একই দিনে লাল বলের ক্রিকেট ছাড়লেন দুই পেসার

প্রকাশের সময় : ০৯:১০:০৮ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২২

প্রথম শ্রেণির ক্রিকেট থেকে অবসরের ঘোষণা দিয়েছেন পেসার রুবেল হোসেন। তার কিছুক্ষণ বাদেই একই ফরম্যাট থেকে অবসরের ঘোষণা দিয়েছেন আরেক পেসার শফিউল ইসলামও।

সীমিত পরিসরের ক্যারিয়ার লম্বা করতে প্রথম শ্রেণির ক্রিকেট না খেলার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন এই দুজন। আগামী অক্টোবরে জাতীয় ক্রিকেট লিগে (এনসিএল) দেখা যাবে না ৩২ বছর বয়সী পেসারকে।

শফিউলের অবসর ব্যাপারটি জানিয়েছেন বিসিবির প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন নান্নু। মৌখিকভাবে বলার পর বিসিবির পক্ষ থেকে লিখিতভাবে জানাতে বলা হয়েছে শফিউলকে।

লম্বা দৈর্ঘ্যের ক্রিকেট থেকে নিজেকে সরিয়ে নেওয়া নিয়ে রুবেল বলেছেন, ‘অনেক বছর ধরে ক্রিকেট খেলছি তাই শরীরের একটা বিষয় আছে। সবকিছুই আসলে বিবেচনা করেছি।

চিন্তা করছি টেস্ট ম্যাচ খেললে চোটে পড়ে যাব। ফিটনেসেরও একটা ব্যাপার আছে। এগুলো সবই বিবেচনা করছি। চার দিনের বিসিএল না খেললেও ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি সংস্করণ খেলব।’

তবে লাল বলের ক্যারিয়ার অবশ্য খুব বেশি রাঙাতে পারেননি রুবেল। ১২ বছরের লম্বা ক্যারিয়ারে কখনোই টেস্টে থিতু হতে পারেননি। ২৭ টেস্ট খেলে রুবেলের উইকেট ৩৬টি। বোলিং গড় ৭৬.৭৭।

১০টির বেশি টেস্ট খেলা বোলারদের মধ্যে সবচেয়ে বাজে বোলিং গড় রুবেলের। ঘরোয়া প্রথম শ্রেণিতে ৬০ ম্যাচে উইকেট সংখ্যা ৯৭টি। এখানেও একটি উইকেট পেতে খরচ করতে হয়েছে ৫৪.০৩ রান।

অনেকটা একই অবস্থা শফিউলেরও। দীর্ঘ ক্যারিয়ারে চোটের সঙ্গে লড়াই করতে হয়েছে ৩২ বছর বয়সী এই পেসারকে। লাল বলে বাংলাদেশের হয়ে ১১ টি ম্যাচ খেলেছেন শফিউল।

উইকেট নিয়েছেন ১৭টি। ঘরোয়া প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটের পরিসংখ্যানও খুব বেশি সমৃদ্ধ নয়। ৬২ ম্যাচে খেলে উইকেট নিয়েছেন ১৬৪টি।