ঢাকা ০৯:০৪ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৪ আশ্বিন ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

পায়ের নখ, গোসলের পানি বিক্রি করেই লাখ টাকা আয় তরুণীর

নানা রকম অদ্ভুত পেশার কথা এখন শোনা যায়। বিভিন্ন মানুষ বিভিন্ন ধরনের পেশার সঙ্গে নিযুক্ত। তবে কখনো কি শুনেছেন, পায়ের নখ, গোসলের পানি বিক্রি করেই লাখ টাকা আয় করতে? কি বিশ্বাস হচ্ছে না? বিশ্বাস না হলেও সত্যি এমনটাই করেন নথ ক্যারোলাইনার বাসিন্দা ২৮ বছর বয়সি রেবেকা। নিজের পায়ের নখ বিক্রি করেই প্রতি মাসে রোজগার করেন প্রায় সাত থেকে লাখ টাকা।

ইনস্টাগ্রামে রেবেকা অত্যন্ত পরিচিত মুখ। জনপ্রিয়ও। তার অনুরাগীর সংখ্যাও অগুণতি। সামনে থেকে দেখতে, তাকে এক বার ছুঁয়ে দেখতে মুখিয়ে থাকেন তার অনুরাগীরা। আর এই জনপ্রিয়তাকে কাজে লাগিয়েছেন এই তরুণী। সামনে থেকে তিনি ধরা দেন না। কিন্তু তার ব্যবহৃত জিনিস অনুরাগীদের মধ্যে অর্থের বিনিময়ে পৌঁছে দেন তিনি। এই তালিকায় পায়ের নখ ছাড়াও রয়েছে গোসলের পানি, ব্যবহৃত ইয়ারবাড এমনকি চিবানো খাবার, থুতুও।

বাড়ির পরিচারকদের প্রতি রেবেকার কড়া নির্দেশ যাতে এই জিনিসগুলো তারা ফেলে না দেন। মাঝেমাঝে নিজেও গুছিয়ে সযত্নে তুলে রাখেন এই দ্রব্যগুলি। কয়েক বার নিজের পুরনো পোশাকও তিনি তবে রেবেকা জানিয়েছেন, এ সব বিক্রি করে যে অর্থ তিনি পান, তা মোটেই নিজের কাজে লাগান না। রাস্তার বিড়াল, সারমেয়দের জন্য সেই অর্থ তিনি খরচ করেন।

Tag :

মধ্যনগরে দুর্গোৎসব উপলক্ষে ৩৩টি পূজামন্ডপে নগদ অর্থ প্রদান করেন, এমপি রতন

পায়ের নখ, গোসলের পানি বিক্রি করেই লাখ টাকা আয় তরুণীর

প্রকাশের সময় : ০৯:৫৪:০৪ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২২

নানা রকম অদ্ভুত পেশার কথা এখন শোনা যায়। বিভিন্ন মানুষ বিভিন্ন ধরনের পেশার সঙ্গে নিযুক্ত। তবে কখনো কি শুনেছেন, পায়ের নখ, গোসলের পানি বিক্রি করেই লাখ টাকা আয় করতে? কি বিশ্বাস হচ্ছে না? বিশ্বাস না হলেও সত্যি এমনটাই করেন নথ ক্যারোলাইনার বাসিন্দা ২৮ বছর বয়সি রেবেকা। নিজের পায়ের নখ বিক্রি করেই প্রতি মাসে রোজগার করেন প্রায় সাত থেকে লাখ টাকা।

ইনস্টাগ্রামে রেবেকা অত্যন্ত পরিচিত মুখ। জনপ্রিয়ও। তার অনুরাগীর সংখ্যাও অগুণতি। সামনে থেকে দেখতে, তাকে এক বার ছুঁয়ে দেখতে মুখিয়ে থাকেন তার অনুরাগীরা। আর এই জনপ্রিয়তাকে কাজে লাগিয়েছেন এই তরুণী। সামনে থেকে তিনি ধরা দেন না। কিন্তু তার ব্যবহৃত জিনিস অনুরাগীদের মধ্যে অর্থের বিনিময়ে পৌঁছে দেন তিনি। এই তালিকায় পায়ের নখ ছাড়াও রয়েছে গোসলের পানি, ব্যবহৃত ইয়ারবাড এমনকি চিবানো খাবার, থুতুও।

বাড়ির পরিচারকদের প্রতি রেবেকার কড়া নির্দেশ যাতে এই জিনিসগুলো তারা ফেলে না দেন। মাঝেমাঝে নিজেও গুছিয়ে সযত্নে তুলে রাখেন এই দ্রব্যগুলি। কয়েক বার নিজের পুরনো পোশাকও তিনি তবে রেবেকা জানিয়েছেন, এ সব বিক্রি করে যে অর্থ তিনি পান, তা মোটেই নিজের কাজে লাগান না। রাস্তার বিড়াল, সারমেয়দের জন্য সেই অর্থ তিনি খরচ করেন।