ঢাকা ১২:১১ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ০৭ ডিসেম্বর ২০২২, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

হাড়ে প্রচণ্ড ব্যথা, মারাত্মক কোনো রোগেরলক্ষণ নয়তো?

হাড় হলো আমাদের শরীরের ভিত। শরীর সুস্থ রাখতে হলে হাড় সুস্থ রাখতে হবে। এছাড়া হাড়ের স্বাস্থ্য ভালো না থাকলে ব্যথা থেকে শুরু করে হাড় ক্ষয়ের মত সমস্যা দেখা দিতে পারে।

সাধারণত দেহের অন্যান্য অঙ্গ-প্রত্যঙ্গে ব্যথা বা কোনো পরিবর্তন দেখলে আমরা চিকিৎসকের শরণাপন্ন হই। কিন্তু হাড় সংক্রান্ত সমস্যায় পড়লে কোনোভাবে আঘাত লেগেছে ভেবে বসে থাকেন অনেকেই। ফলে, আমাদের অজান্তেই হাড়ের ক্যান্সার শরীরে ধীরে ধীরে বিস্তার করতে থাকে। এমন সময় এই রোগ ধরা পড়ে, যখন আর করার কিছুই থাকে না।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, যত দ্রুত এই ক্যান্সারের চিকিৎসা শুরু করা যাবে, ততই সুস্থ হয়ে ওঠার আশা বেশি থাকে।

চলুন তবে জেনে নেয়া যাক নীরব ঘাতক হাড়ের ক্যান্সারের মারাত্মক লক্ষণগুলো সম্পর্কে-

>>> কোনো চোট বা আঘাত না পাওয়া সত্ত্বেও যদি হাড়ে প্রচণ্ড ব্যথা হয় এবং সেই স্থানটি ফুলে যায়, বিশেষ করে গাঁট বা জয়েন্টের জায়গায় ব্যথা হওয়া এবং ফুলে গেলে, তা হাড়ের সাধারণ সমস্যা নাও হতে পারে। রাতে ঘুমোনোর সময় ব্যথা শুরু হওয়া, ভারী কোনো জিনিস তোলার পর ব্যথা হওয়া বা হাঁটার ফলে হাড়ে ব্যথা হওয়া, ইত্যাদি হতে পারে হাড়ের ক্যান্সারের লক্ষণ।

তাই হাড়ের ব্যথা অবহেলা করবেন না। এছাড়াও, ফুলে যাওয়া স্থানে গোটার মতো অনুভব হলেই সতর্ক হোন। যদি ব্যথার স্থানে রক্ত জমাট বাঁধার মতো গুটলি মনে হয় তা হলে কিন্তু তা হাড়ের ক্যান্সারের লক্ষণ হতে পারে।

>>> হঠাৎ করে ওজন কমতে শুরু করাও হাড়ের ক্যান্সারের অন্যতম উপসর্গ হতে পারে। তাই কায়িক পরিশ্রম ও খাওয়াদাওয়ায় কন্ট্রোল ছাড়াই যদি ধীরে ধীরে ওজন হ্রাস হতে শুরু করে,তাহলে অবশ্যই ডাক্তারের সঙ্গে পরামর্শ করুন।

>>> আপনি কি সব সময় ক্লান্ত বোধ করেন? শরীর দুর্বল মনে হয়? তাইলে অবশ্যই স্বাস্থ্য পরীক্ষা করান। কারণ, সর্বদা ক্লান্তি ও দুর্বল অনুভব হওয়াও কিন্তু হাড়ের ক্যান্সারের লক্ষণ হতে পারে।

>>> রাতে ঘুমের মধ্যে ভীষণ ঘামেন? এ ক্ষেত্রে চিকিৎসকের পরামর্শ নেয়াই ভালো, এটি মোটেই ভালো লক্ষণ নয়। হাড়ের ক্যান্সারের অন্যতম উপসর্গ হতে পারে এটি।

>>> হাড়ের ক্যান্সার হওয়ার ফলে হাড়ের ভেতরে ক্ষয় হতে থাকে এবং হাড় ভঙ্গুর হয়ে পড়ে। এর ফলে উঠতে-বসতে ও হাত-পা নড়াতে সমস্যা, হাঁটাচলার সময়ও খুব কষ্ট হয়।

>>> একটানা জ্বরে ভোগাও বোন ক্যান্সারের উপসর্গ হতে পারে। উপরের উল্লিখিত উপসর্গ-সহ যদি ঘন ঘন জ্বরে ভুগতে থাকেন, তাহলে অবশ্যই সতর্ক হোন।

>>> হাড়ের ক্যান্সার হলে হাড় অত্যন্ত দুর্বল হয়ে যায়। তখন সামান্য চোট আঘাতেও ফ্র্যাকচার হয়ে যায়। হালকা চোট লাগলেও হাড়ে ফাটল ধরে। আপনারও এমন সমস্যা দেখা দিলে অবশ্যই ডাক্তারের পরামর্শ নিন।

Tag :
জনপ্রিয়

রসিক নির্বাচন ; আ’লীগের মেয়র প্রার্থী ডালিয়ার গণসংযোগ অনুষ্ঠিত

হাড়ে প্রচণ্ড ব্যথা, মারাত্মক কোনো রোগেরলক্ষণ নয়তো?

প্রকাশের সময় : ১০:৩৬:৩৩ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২২

হাড় হলো আমাদের শরীরের ভিত। শরীর সুস্থ রাখতে হলে হাড় সুস্থ রাখতে হবে। এছাড়া হাড়ের স্বাস্থ্য ভালো না থাকলে ব্যথা থেকে শুরু করে হাড় ক্ষয়ের মত সমস্যা দেখা দিতে পারে।

সাধারণত দেহের অন্যান্য অঙ্গ-প্রত্যঙ্গে ব্যথা বা কোনো পরিবর্তন দেখলে আমরা চিকিৎসকের শরণাপন্ন হই। কিন্তু হাড় সংক্রান্ত সমস্যায় পড়লে কোনোভাবে আঘাত লেগেছে ভেবে বসে থাকেন অনেকেই। ফলে, আমাদের অজান্তেই হাড়ের ক্যান্সার শরীরে ধীরে ধীরে বিস্তার করতে থাকে। এমন সময় এই রোগ ধরা পড়ে, যখন আর করার কিছুই থাকে না।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, যত দ্রুত এই ক্যান্সারের চিকিৎসা শুরু করা যাবে, ততই সুস্থ হয়ে ওঠার আশা বেশি থাকে।

চলুন তবে জেনে নেয়া যাক নীরব ঘাতক হাড়ের ক্যান্সারের মারাত্মক লক্ষণগুলো সম্পর্কে-

>>> কোনো চোট বা আঘাত না পাওয়া সত্ত্বেও যদি হাড়ে প্রচণ্ড ব্যথা হয় এবং সেই স্থানটি ফুলে যায়, বিশেষ করে গাঁট বা জয়েন্টের জায়গায় ব্যথা হওয়া এবং ফুলে গেলে, তা হাড়ের সাধারণ সমস্যা নাও হতে পারে। রাতে ঘুমোনোর সময় ব্যথা শুরু হওয়া, ভারী কোনো জিনিস তোলার পর ব্যথা হওয়া বা হাঁটার ফলে হাড়ে ব্যথা হওয়া, ইত্যাদি হতে পারে হাড়ের ক্যান্সারের লক্ষণ।

তাই হাড়ের ব্যথা অবহেলা করবেন না। এছাড়াও, ফুলে যাওয়া স্থানে গোটার মতো অনুভব হলেই সতর্ক হোন। যদি ব্যথার স্থানে রক্ত জমাট বাঁধার মতো গুটলি মনে হয় তা হলে কিন্তু তা হাড়ের ক্যান্সারের লক্ষণ হতে পারে।

>>> হঠাৎ করে ওজন কমতে শুরু করাও হাড়ের ক্যান্সারের অন্যতম উপসর্গ হতে পারে। তাই কায়িক পরিশ্রম ও খাওয়াদাওয়ায় কন্ট্রোল ছাড়াই যদি ধীরে ধীরে ওজন হ্রাস হতে শুরু করে,তাহলে অবশ্যই ডাক্তারের সঙ্গে পরামর্শ করুন।

>>> আপনি কি সব সময় ক্লান্ত বোধ করেন? শরীর দুর্বল মনে হয়? তাইলে অবশ্যই স্বাস্থ্য পরীক্ষা করান। কারণ, সর্বদা ক্লান্তি ও দুর্বল অনুভব হওয়াও কিন্তু হাড়ের ক্যান্সারের লক্ষণ হতে পারে।

>>> রাতে ঘুমের মধ্যে ভীষণ ঘামেন? এ ক্ষেত্রে চিকিৎসকের পরামর্শ নেয়াই ভালো, এটি মোটেই ভালো লক্ষণ নয়। হাড়ের ক্যান্সারের অন্যতম উপসর্গ হতে পারে এটি।

>>> হাড়ের ক্যান্সার হওয়ার ফলে হাড়ের ভেতরে ক্ষয় হতে থাকে এবং হাড় ভঙ্গুর হয়ে পড়ে। এর ফলে উঠতে-বসতে ও হাত-পা নড়াতে সমস্যা, হাঁটাচলার সময়ও খুব কষ্ট হয়।

>>> একটানা জ্বরে ভোগাও বোন ক্যান্সারের উপসর্গ হতে পারে। উপরের উল্লিখিত উপসর্গ-সহ যদি ঘন ঘন জ্বরে ভুগতে থাকেন, তাহলে অবশ্যই সতর্ক হোন।

>>> হাড়ের ক্যান্সার হলে হাড় অত্যন্ত দুর্বল হয়ে যায়। তখন সামান্য চোট আঘাতেও ফ্র্যাকচার হয়ে যায়। হালকা চোট লাগলেও হাড়ে ফাটল ধরে। আপনারও এমন সমস্যা দেখা দিলে অবশ্যই ডাক্তারের পরামর্শ নিন।