ঢাকা ০৫:৩৩ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ০৭ ডিসেম্বর ২০২২, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

প্রতারক স্বামী গ্রেফতার

সোহেল কবির, রূপগঞ্জ নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি

নারায়ণগঞ্জ রূপগঞ্জে কায়েত পারা ইউনিয়নের ৫ নং ওয়ার্ডের জনাব মরহুম মোঃ নুরুল ইসলাম সাহেবের ২য় ছেলে আমিনুল ইসলামের সাথে মুন্সীগন্জ জেলার শ্রী নগর থানার পাটাভোগ ইউনিয়নের জুশুরগাও গ্রামের বাসিন্দা জনাব আব্দুল জলিল হাওলাদার সাহেবের মেঝ মেয়ে সিমা আক্তার সাথে ইসলামী শরীয়ত মোতাবেক ৬লাখ টাকা দেনমোহর ধার্য করিয়া বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়।

বিবাহ হওয়ার কয়েক বছর সুখে শান্তিতে সংসার চলছিল এরই মধ্যে ২টি সন্তানের বাবা হন আমিনুল – তার স্ত্রী তয় সন্তানের যখন গর্ববর্তী হন, তখনই আমিনুলের মন মানসিকতার পরিবর্তন শুরু হয়।

এক পর্যায়ে সীমার কাছে ব্যবসা করার জন্য সীমার পরিবারের কাছ থেকে ২৭ লাখ টাকা নেয় আমিনুল। এই টাকা গুলি সীমার ২ ভাই ইতালী প্রবাসী তারা দেয় বোনের সংসার সুখের জন্য।
তার পরেও আমিনুল সন্তোষ না হয়ে বিভিন্ন ভাবে বলে তোর ২ ভাইয়ের কাছ থেকে আরো টাকা এনে দে আর না হয় আমি আরেকটা বিয়া করিয়া অনেক টাকা যৌতুক নিবো
উল্লেখ এরই মধ্যে সীমা তার ইতালী প্রবাসী ২ ভাইয়ের সহযোগিতায় ১২ শতাংশ জমি সীমা তার নিজ নামে পাওয়ার নামা করে রাখে

কিন্তু প্রতারক স্বামী সীমা কে ভুল বাল বুজিয়ে নিজের নামে দলিল করিয়া নেন

কয়েক দিন পর সীমা জানতে পারে তার স্বামী পাশের বাড়ীর বর্তমান মেম্বার নজরুল ইসলাম আপন বোন হেলেনা আক্তারের সাথে অবৈধ সম্পর্ক করে গোপনে কোটে বিবাহ করে ফেলেছে!
উপায় অন্তর না পেয়ে সীমা এলাকার মুরুব্বীদের শালিশী বসে – সবাই এক পর্যায়ে একমত হয়ঃ সীমার নামে জমি এবং টাকা ফেরত দিবে এবং হেলেনা কে ডির্বোস দিয়ে সন্তানদের সাথে নিয়ে সীমার সাথে সংসার করবে।

কিন্তু চালাক আমিনুল পরের দিন ভোর বেলা হেলেনা এবং ৩ বছরের ছেলে আব্দুলা কে নিয়ে শশুর বাড়ী থেকে পালিয়ে রুপগন্জে নিজ বাড়ীতে উঠেন

সীমা সকালে তার বাচ্চা না পেয়ে ১ দিন অপেক্ষা করে পরের দিন আমিনুলের বাড়ীতে যায়। সেখান থেকে তার ছেলে কে আনতে চাইলে আমিনুল এবং হেলেনা অকথ্য ভাষায় গালী গালাজ এবং শরীরে হাত তুলে বাড়ী থেকে তারিয়ে দেয়

তার সীমা রুপগন্জ থানায় হাজির হয়ে মামলা করেনঃ থানার ওসি এএফ এম সায়েদ সাহেবের নির্দেশে পুলিশ কে আমিনুল কে এরেস্ট করে জেল হাজতে প্রেরণ করেন

Tag :
জনপ্রিয়

রসিক নির্বাচন ; আ’লীগের মেয়র প্রার্থী ডালিয়ার গণসংযোগ অনুষ্ঠিত

প্রতারক স্বামী গ্রেফতার

প্রকাশের সময় : ০৪:০৪:৪৩ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২২

সোহেল কবির, রূপগঞ্জ নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি

নারায়ণগঞ্জ রূপগঞ্জে কায়েত পারা ইউনিয়নের ৫ নং ওয়ার্ডের জনাব মরহুম মোঃ নুরুল ইসলাম সাহেবের ২য় ছেলে আমিনুল ইসলামের সাথে মুন্সীগন্জ জেলার শ্রী নগর থানার পাটাভোগ ইউনিয়নের জুশুরগাও গ্রামের বাসিন্দা জনাব আব্দুল জলিল হাওলাদার সাহেবের মেঝ মেয়ে সিমা আক্তার সাথে ইসলামী শরীয়ত মোতাবেক ৬লাখ টাকা দেনমোহর ধার্য করিয়া বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়।

বিবাহ হওয়ার কয়েক বছর সুখে শান্তিতে সংসার চলছিল এরই মধ্যে ২টি সন্তানের বাবা হন আমিনুল – তার স্ত্রী তয় সন্তানের যখন গর্ববর্তী হন, তখনই আমিনুলের মন মানসিকতার পরিবর্তন শুরু হয়।

এক পর্যায়ে সীমার কাছে ব্যবসা করার জন্য সীমার পরিবারের কাছ থেকে ২৭ লাখ টাকা নেয় আমিনুল। এই টাকা গুলি সীমার ২ ভাই ইতালী প্রবাসী তারা দেয় বোনের সংসার সুখের জন্য।
তার পরেও আমিনুল সন্তোষ না হয়ে বিভিন্ন ভাবে বলে তোর ২ ভাইয়ের কাছ থেকে আরো টাকা এনে দে আর না হয় আমি আরেকটা বিয়া করিয়া অনেক টাকা যৌতুক নিবো
উল্লেখ এরই মধ্যে সীমা তার ইতালী প্রবাসী ২ ভাইয়ের সহযোগিতায় ১২ শতাংশ জমি সীমা তার নিজ নামে পাওয়ার নামা করে রাখে

কিন্তু প্রতারক স্বামী সীমা কে ভুল বাল বুজিয়ে নিজের নামে দলিল করিয়া নেন

কয়েক দিন পর সীমা জানতে পারে তার স্বামী পাশের বাড়ীর বর্তমান মেম্বার নজরুল ইসলাম আপন বোন হেলেনা আক্তারের সাথে অবৈধ সম্পর্ক করে গোপনে কোটে বিবাহ করে ফেলেছে!
উপায় অন্তর না পেয়ে সীমা এলাকার মুরুব্বীদের শালিশী বসে – সবাই এক পর্যায়ে একমত হয়ঃ সীমার নামে জমি এবং টাকা ফেরত দিবে এবং হেলেনা কে ডির্বোস দিয়ে সন্তানদের সাথে নিয়ে সীমার সাথে সংসার করবে।

কিন্তু চালাক আমিনুল পরের দিন ভোর বেলা হেলেনা এবং ৩ বছরের ছেলে আব্দুলা কে নিয়ে শশুর বাড়ী থেকে পালিয়ে রুপগন্জে নিজ বাড়ীতে উঠেন

সীমা সকালে তার বাচ্চা না পেয়ে ১ দিন অপেক্ষা করে পরের দিন আমিনুলের বাড়ীতে যায়। সেখান থেকে তার ছেলে কে আনতে চাইলে আমিনুল এবং হেলেনা অকথ্য ভাষায় গালী গালাজ এবং শরীরে হাত তুলে বাড়ী থেকে তারিয়ে দেয়

তার সীমা রুপগন্জ থানায় হাজির হয়ে মামলা করেনঃ থানার ওসি এএফ এম সায়েদ সাহেবের নির্দেশে পুলিশ কে আমিনুল কে এরেস্ট করে জেল হাজতে প্রেরণ করেন