ঢাকা ০৮:০৪ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৪ আশ্বিন ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

সিলেট জেলা পরিষদ নির্বাচনে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় চেয়ারম্যান হচ্ছেন নাসির খাঁন।

নির্বাচনের আগেই জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান হচ্ছেন সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট নাসির উদ্দিন খান। চেয়ারম্যান পদে কোনো প্রতিদ্বন্দ্বী না থাকায় বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হতে যাচ্ছেন তিনি।

এর আগে নির্বাচনে স্বতন্ত্র থেকে ড. এনামুল হক সর্দার প্রার্থী হচ্ছেন বলে সর্বত্র গুঞ্জন ছিল। তবে নানা নাটকীয়তায় শেষ পর্যন্ত তিনি নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়িয়েছেন। যার ফলে নাসির খানের আর কোনো প্রতিদ্বন্দ্বী রইল না।

বৃহস্পতিবার (১৫ সেপ্টেম্বর) সিলেট জেলার সিনিয়র নির্বাচন কর্মকর্তা ও জেলা পরিষদ নির্বাচনের সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা মোহাম্মদ শুকুর মাহমুদ মিঞা এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, চেয়ারম্যান পদে দুই প্রার্থী মনোনয়নপত্র কিনেছিলেন। এর মধ্যে একজন রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে সেটি জমা দিয়েছেন। আর কেউ জমা দেননি।

সিলেট জেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের অন্তত চার নেতা দলীয় মনোনয়ন চেয়েছিলেন। তবে দল থেকে নাসির খানকে মনোনয়ন দেওয়া হয়।

এদিকে বৃহস্পতিবার দুপুরে রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন অ্যাডভোকেট নাসির উদ্দিন খান। এ সময় সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি শফিকুর রহমান চৌধুরী, মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মাসুক উদ্দিন আহমদ, সাধারণ সম্পাদক জাকির হোসেন, সিনিয়র সহ-সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল খালিক, জেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি আশফাক আহমদসহ আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

Tag :

মধ্যনগরে দুর্গোৎসব উপলক্ষে ৩৩টি পূজামন্ডপে নগদ অর্থ প্রদান করেন, এমপি রতন

সিলেট জেলা পরিষদ নির্বাচনে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় চেয়ারম্যান হচ্ছেন নাসির খাঁন।

প্রকাশের সময় : ০২:১২:২৫ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২২

নির্বাচনের আগেই জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান হচ্ছেন সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট নাসির উদ্দিন খান। চেয়ারম্যান পদে কোনো প্রতিদ্বন্দ্বী না থাকায় বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হতে যাচ্ছেন তিনি।

এর আগে নির্বাচনে স্বতন্ত্র থেকে ড. এনামুল হক সর্দার প্রার্থী হচ্ছেন বলে সর্বত্র গুঞ্জন ছিল। তবে নানা নাটকীয়তায় শেষ পর্যন্ত তিনি নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়িয়েছেন। যার ফলে নাসির খানের আর কোনো প্রতিদ্বন্দ্বী রইল না।

বৃহস্পতিবার (১৫ সেপ্টেম্বর) সিলেট জেলার সিনিয়র নির্বাচন কর্মকর্তা ও জেলা পরিষদ নির্বাচনের সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা মোহাম্মদ শুকুর মাহমুদ মিঞা এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, চেয়ারম্যান পদে দুই প্রার্থী মনোনয়নপত্র কিনেছিলেন। এর মধ্যে একজন রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে সেটি জমা দিয়েছেন। আর কেউ জমা দেননি।

সিলেট জেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের অন্তত চার নেতা দলীয় মনোনয়ন চেয়েছিলেন। তবে দল থেকে নাসির খানকে মনোনয়ন দেওয়া হয়।

এদিকে বৃহস্পতিবার দুপুরে রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন অ্যাডভোকেট নাসির উদ্দিন খান। এ সময় সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি শফিকুর রহমান চৌধুরী, মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মাসুক উদ্দিন আহমদ, সাধারণ সম্পাদক জাকির হোসেন, সিনিয়র সহ-সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল খালিক, জেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি আশফাক আহমদসহ আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।