ঢাকা ১০:৫৬ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১২ আশ্বিন ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

হলে পরীক্ষার্থীরা, বাইরে স্বজনদের অপেক্ষা

আদরের সন্তান কিংবা কোনো স্বজন বসেছে এসএসসি পরীক্ষায়। তাকে সাহস দিতে কেন্দ্র পর্যন্ত নিয়ে এসেছেন তারা। পরীক্ষার্থীরা পরীক্ষার হলে বসার পর পরীক্ষা শেষ হওয়ার অপেক্ষায় বাইরে বসে প্রহর গুনছেন তারা।

বৃহস্পতিবার (১৫ সেপ্টেম্বর) সরেজমিনে এসএসসি পরীক্ষার প্রথম দিন রাজধানীর মতিঝিল সরকারি বালিকা স্কুলসহ বেশ কয়েকটি পরীক্ষা কেন্দ্র ঘুরে দেখা যায় এই চিত্র।

দেখা গেছে, যানজট এড়াতে এবার ১০টার পরিবর্তে ১১টায় পরীক্ষা শুরু হয়েছে। তবে যানজটের কথা বিবেচনা করে সকাল ৯টা থেকে কেন্দ্রে আসতে শুরু করেন পরীক্ষার্থীরা। ১০টার দিকে লোকে লোকারণ্য হয়ে উঠে প্রতিটি কেন্দ্র। সাড়ে ১০টার দিকে কেন্দ্রে প্রবেশ করে পরীক্ষার্থীরা। এরপর থেকে অভিভাবকরা কেন্দ্রের বাইরে ফুটপাতে বসে কিংবা চায়ের দোকানে আড্ডা দিয়ে সময় কাটছে তাদের।

মতিঝিল আইডিয়াল স্কুলের শিক্ষার্থী মেয়ে ইসতার তাসলিমা ফাইজাকে নিয়ে মতিঝিল বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে এসেছেন বাবা। তিনি জানিয়েছেন, মেয়েকে সাহস দিতে কেন্দ্র পর্যন্ত নিয়ে এসেছি।

আরেক অভিভাবক কানিজ ফাতেমা। তার ছেলে সাঈদ রুবেল দিতে এসেছে এই কেন্দ্রে। তিনি বলেন, ছেলে পরীক্ষায় ডুকল, আমি বাইরে অপেক্ষা করছি। পরীক্ষা কেন্দ্রে অভিভাবকরা এলে মনোবল শক্ত হয়।

সাধারণত এসএসসি পরীক্ষা ফেব্রুয়ারিতে শুরু হয়। কিন্তু করোনা পরিস্থিতির কারণে নির্ধারিত সময়ে এ পরীক্ষা নেওয়া সম্ভব হচ্ছে না। পিছিয়ে যাওয়া এ পরীক্ষা গত ১৯ জুন শুরু হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু সিলেটসহ কয়েকটি জেলায় ব্যাপক বন্যা দেখা দিলে গত ১৭ জুন পরীক্ষা স্থগিত করে সরকার। এর আগে গত বছর ৯ মাস পিছিয়ে নভেম্বরে সংক্ষিপ্ত সিলেবাসে তিন বিষয়ে এ পরীক্ষা নেওয়া হয়। এবারের লিখিত পরীক্ষা শেষ হবে আগামী ১ অক্টোবর। এরপর শুরু হবে ব্যবহারিক পরীক্ষা। চলতি বছরের এ পরীক্ষায় বসছে ২০ লাখের বেশি শিক্ষার্থী।

তবে শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি দেশের বাইরে যাওয়ায় এবার কেন্দ্রের পরিদর্শনের কর্মসূচি রাখা হয়নি।

বৈশ্বিক মহামারির কারণে পরীক্ষার বিষয়, নম্বর ও সময় কিছুটা কমিয়ে আনা হয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, পুনর্বিন্যাসকৃত সিলেবাসে পরীক্ষা শুরু হচ্ছে।

দেশের ১১টি শিক্ষা বোর্ডের আওতায় মোট ২০ লাখ ২১ হাজার ৮৬৮ জন পরীক্ষার্থী অংশগ্রহণ করবে। সারাদেশে তিন হাজার ৭৯০টি কেন্দ্রে মোট ২৯ হাজার ৫৯১টি বিদ্যালয়ে পরীক্ষা আয়োজন করা হবে। তার মধ্যে নয়টি সাধারণ বোর্ডের আওতায় পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ১৫ লাখ ৯৯ হাজার ৭১১ জন, দাখিলে দুই লাখ ৬৮ হাজার ৪৯৫ জন। মাদরাসা বোর্ডের আওতায় দাখিল পরীক্ষায় দুই লাখ ৬৮ হাজার পরীক্ষার্থীর জন্য ৭১৫টি কেন্দ্রে নয় হাজার ৯৩টি প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থী রয়েছে। এছাড়া কারিগরি বোর্ডের আওতায় এসএসসি (ভোকেশনাল) ও দাখিল (ভোকেশনাল) পরীক্ষায় এক লাখ ৫৩ হাজার ৬৬২ জন পরীক্ষার্থী রয়েছে। মোট ৮২৮টি কেন্দ্রে দুই হাজার ৮১৮টি প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা অংশগ্রহণ করবে। এছাড়া দেশের বাইরে আটটি দেশে ৩৬৭ জন পরীক্ষার্থী রয়েছে।

২০২১ সালের তুলনায় এবছর পরীক্ষার্থী কমেছে দুই লাখ ২১ হাজার ৩৮৬ জন। মোট প্রতিষ্ঠান বেড়েছে ৫৫৬টি এবং কেন্দ্র বেড়েছে ১১১টি।

পুনর্বিন্যাসকৃত সিলেবাস নিয়ে শিক্ষামন্ত্রী জানান, পরীক্ষার সময় তিন ঘণ্টা থেকে কমিয়ে দুই ঘণ্টা করা হয়েছে। এরমধ্যে এমসিকিউ ২০ মিনিট এবং সিকিউ এক ঘণ্টা ৪০ মিনিট। এ বছর এসএসসিতে তিনটি বিষয়ে পরীক্ষা দিতে হবে না।

এসএসসিতে বিভাগভেদে বাংলা, ইংরেজি, গণিত, গার্হস্থ্য বিজ্ঞান, কৃষিশিক্ষা, সংগীত, আরবি, সংস্কৃত, পালি, শারীরিক শিক্ষা ও ক্রীড়া, চারু ও কারুকলা, পদার্থবিজ্ঞান, বাংলাদেশের ইতিহাস ও বিশ্বসভ্যতা, ফিন্যান্স ও ব্যাংকিং, রসায়ন, পৌরনীতি ও নাগরিকতা, ব্যবসায় উদ্যোগ, ভূগোল ও পরিবেশ, উচ্চতর গণিত, হিসাববিজ্ঞান, জীববিজ্ঞান ও অর্থনীতি বিষয়ে পরীক্ষা হবে।

Tag :

নোয়াখালীতে প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলের চেক বিতরণ

হলে পরীক্ষার্থীরা, বাইরে স্বজনদের অপেক্ষা

প্রকাশের সময় : ০৯:১৮:৩০ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২২

আদরের সন্তান কিংবা কোনো স্বজন বসেছে এসএসসি পরীক্ষায়। তাকে সাহস দিতে কেন্দ্র পর্যন্ত নিয়ে এসেছেন তারা। পরীক্ষার্থীরা পরীক্ষার হলে বসার পর পরীক্ষা শেষ হওয়ার অপেক্ষায় বাইরে বসে প্রহর গুনছেন তারা।

বৃহস্পতিবার (১৫ সেপ্টেম্বর) সরেজমিনে এসএসসি পরীক্ষার প্রথম দিন রাজধানীর মতিঝিল সরকারি বালিকা স্কুলসহ বেশ কয়েকটি পরীক্ষা কেন্দ্র ঘুরে দেখা যায় এই চিত্র।

দেখা গেছে, যানজট এড়াতে এবার ১০টার পরিবর্তে ১১টায় পরীক্ষা শুরু হয়েছে। তবে যানজটের কথা বিবেচনা করে সকাল ৯টা থেকে কেন্দ্রে আসতে শুরু করেন পরীক্ষার্থীরা। ১০টার দিকে লোকে লোকারণ্য হয়ে উঠে প্রতিটি কেন্দ্র। সাড়ে ১০টার দিকে কেন্দ্রে প্রবেশ করে পরীক্ষার্থীরা। এরপর থেকে অভিভাবকরা কেন্দ্রের বাইরে ফুটপাতে বসে কিংবা চায়ের দোকানে আড্ডা দিয়ে সময় কাটছে তাদের।

মতিঝিল আইডিয়াল স্কুলের শিক্ষার্থী মেয়ে ইসতার তাসলিমা ফাইজাকে নিয়ে মতিঝিল বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে এসেছেন বাবা। তিনি জানিয়েছেন, মেয়েকে সাহস দিতে কেন্দ্র পর্যন্ত নিয়ে এসেছি।

আরেক অভিভাবক কানিজ ফাতেমা। তার ছেলে সাঈদ রুবেল দিতে এসেছে এই কেন্দ্রে। তিনি বলেন, ছেলে পরীক্ষায় ডুকল, আমি বাইরে অপেক্ষা করছি। পরীক্ষা কেন্দ্রে অভিভাবকরা এলে মনোবল শক্ত হয়।

সাধারণত এসএসসি পরীক্ষা ফেব্রুয়ারিতে শুরু হয়। কিন্তু করোনা পরিস্থিতির কারণে নির্ধারিত সময়ে এ পরীক্ষা নেওয়া সম্ভব হচ্ছে না। পিছিয়ে যাওয়া এ পরীক্ষা গত ১৯ জুন শুরু হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু সিলেটসহ কয়েকটি জেলায় ব্যাপক বন্যা দেখা দিলে গত ১৭ জুন পরীক্ষা স্থগিত করে সরকার। এর আগে গত বছর ৯ মাস পিছিয়ে নভেম্বরে সংক্ষিপ্ত সিলেবাসে তিন বিষয়ে এ পরীক্ষা নেওয়া হয়। এবারের লিখিত পরীক্ষা শেষ হবে আগামী ১ অক্টোবর। এরপর শুরু হবে ব্যবহারিক পরীক্ষা। চলতি বছরের এ পরীক্ষায় বসছে ২০ লাখের বেশি শিক্ষার্থী।

তবে শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি দেশের বাইরে যাওয়ায় এবার কেন্দ্রের পরিদর্শনের কর্মসূচি রাখা হয়নি।

বৈশ্বিক মহামারির কারণে পরীক্ষার বিষয়, নম্বর ও সময় কিছুটা কমিয়ে আনা হয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, পুনর্বিন্যাসকৃত সিলেবাসে পরীক্ষা শুরু হচ্ছে।

দেশের ১১টি শিক্ষা বোর্ডের আওতায় মোট ২০ লাখ ২১ হাজার ৮৬৮ জন পরীক্ষার্থী অংশগ্রহণ করবে। সারাদেশে তিন হাজার ৭৯০টি কেন্দ্রে মোট ২৯ হাজার ৫৯১টি বিদ্যালয়ে পরীক্ষা আয়োজন করা হবে। তার মধ্যে নয়টি সাধারণ বোর্ডের আওতায় পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ১৫ লাখ ৯৯ হাজার ৭১১ জন, দাখিলে দুই লাখ ৬৮ হাজার ৪৯৫ জন। মাদরাসা বোর্ডের আওতায় দাখিল পরীক্ষায় দুই লাখ ৬৮ হাজার পরীক্ষার্থীর জন্য ৭১৫টি কেন্দ্রে নয় হাজার ৯৩টি প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থী রয়েছে। এছাড়া কারিগরি বোর্ডের আওতায় এসএসসি (ভোকেশনাল) ও দাখিল (ভোকেশনাল) পরীক্ষায় এক লাখ ৫৩ হাজার ৬৬২ জন পরীক্ষার্থী রয়েছে। মোট ৮২৮টি কেন্দ্রে দুই হাজার ৮১৮টি প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা অংশগ্রহণ করবে। এছাড়া দেশের বাইরে আটটি দেশে ৩৬৭ জন পরীক্ষার্থী রয়েছে।

২০২১ সালের তুলনায় এবছর পরীক্ষার্থী কমেছে দুই লাখ ২১ হাজার ৩৮৬ জন। মোট প্রতিষ্ঠান বেড়েছে ৫৫৬টি এবং কেন্দ্র বেড়েছে ১১১টি।

পুনর্বিন্যাসকৃত সিলেবাস নিয়ে শিক্ষামন্ত্রী জানান, পরীক্ষার সময় তিন ঘণ্টা থেকে কমিয়ে দুই ঘণ্টা করা হয়েছে। এরমধ্যে এমসিকিউ ২০ মিনিট এবং সিকিউ এক ঘণ্টা ৪০ মিনিট। এ বছর এসএসসিতে তিনটি বিষয়ে পরীক্ষা দিতে হবে না।

এসএসসিতে বিভাগভেদে বাংলা, ইংরেজি, গণিত, গার্হস্থ্য বিজ্ঞান, কৃষিশিক্ষা, সংগীত, আরবি, সংস্কৃত, পালি, শারীরিক শিক্ষা ও ক্রীড়া, চারু ও কারুকলা, পদার্থবিজ্ঞান, বাংলাদেশের ইতিহাস ও বিশ্বসভ্যতা, ফিন্যান্স ও ব্যাংকিং, রসায়ন, পৌরনীতি ও নাগরিকতা, ব্যবসায় উদ্যোগ, ভূগোল ও পরিবেশ, উচ্চতর গণিত, হিসাববিজ্ঞান, জীববিজ্ঞান ও অর্থনীতি বিষয়ে পরীক্ষা হবে।