ঢাকা ১২:৫৮ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৪ আশ্বিন ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

সুইডেনের প্রধানমন্ত্রীর পদত্যাগের ঘোষণা

সুইডেনের প্রধানমন্ত্রী ম্যাগডালেনা অ্যান্ডারসন বলেছেন, নির্বাচনে তার সরকার পরাজিত হলে, তিনি পদত্যাগ করবেন। গত রোববার নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে সুইডেনে। নির্বাচনের প্রাথমিক ফলাফলে এখন পর্যন্ত ম্যাগডালেনা অ্যান্ডারসনের বাম জোটের চেয়ে এগিয়ে আছে ডানপন্থী দলগুলোর জোট। ব্রিটিশ গণমাধ্যম বিবিসি এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে।

মডারেট পার্টির নেতা উলফ ক্রিস্টারসন এখন সরকার গঠন করবেন বলে আশা করা হচ্ছে। নির্বাচনের চূড়ান্ত ফলাফল এখনো ঘোষণা করা হয়নি। প্রায় ৯৯ শতাংশ নির্বাচনী এলাকার ভোট গণনা শেষ হয়েছে।

চূড়ান্ত ফল ঘোষণার আগেই ম্যাগডালেনা অ্যান্ডারসন পরাজয় স্বীকার করে নিয়েছেন এবং স্থানীয় সময় বুধবার এক সংবাদ সম্মেলনে বলেছেন, তিনি বৃহস্পতিবার আনুষ্ঠানিকভাবে পদত্যাগপত্র জমা দেবেন।

অ্যান্ডারসন আরও বলেছেন, ‘পার্লামেন্টে তারা (ডানপন্থী জোট) আমাদের চেয়ে দুই একটি আসনে এগিয়ে থাকবে। ফলে, ব্যবধান কম হলেও তারাই সংখ্যাগরিষ্ঠ হবে। তাই আমি পদত্যাগ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি।’

নর্ডিক দেশের প্রথম নারী প্রধানমন্ত্রী ছিলেন অ্যান্ডারসন। তিনি গত বছর সুইডেনের দায়িত্ব গ্রহণ করেছিলেন।

রোববারের নির্বাচনে সুইডেন ডেমোক্র্যাট, মডারেট পার্টি, খ্রিষ্টান ডেমোক্র্যাট এবং লিবারেলদের সমন্বয়ে গঠিত চার দলীয় ডানপন্থী জোট অ্যান্ডারসনের জোট থেকে এগিয়ে রয়েছে। নির্বাচনের এই ফল সুইডেনের রাজনীতির জন্য একটি গুরুত্বপূর্ণ টার্নিং পয়েন্ট। কারণ এক সময় সুইডেনের রাজনীতিতে এই দলগুলো অচ্যুত হিসেবে বিবেচিত হতো। কিন্তু এখন তারা ২০ শতাংশ ভোটে জিতে গেল।

ম্যাগডালেনা অ্যান্ডারসনের সোশ্যাল ডেমোক্র্যাট পার্টি ২০১৪ সাল থেকে সুইডেনের ক্ষমতায় ছিল। এটি সুইডেনের রাজনীতিতে বহু পুরোনো একটি দল। ১৯৩০ সাল থেকে তারা দেশটির রাজনীতিতে আধিপত্য বিস্তার করে ছিল।

অ্যান্ডারসন বুধবার সাংবাদিকদের বলেছেন, ‘আমি তাদের ক্রমবর্ধমান জনপ্রিয়তা বুঝতে পেরেছি। আমাদের সুইডিশ জনগণ ও সুইডিশ গণতন্ত্রকে সম্মান করতে হবে।’

Tag :

তাহিরপুরে নানা আয়োজনে প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিন পালিত

সুইডেনের প্রধানমন্ত্রীর পদত্যাগের ঘোষণা

প্রকাশের সময় : ০৯:৩৪:৫২ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২২

সুইডেনের প্রধানমন্ত্রী ম্যাগডালেনা অ্যান্ডারসন বলেছেন, নির্বাচনে তার সরকার পরাজিত হলে, তিনি পদত্যাগ করবেন। গত রোববার নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে সুইডেনে। নির্বাচনের প্রাথমিক ফলাফলে এখন পর্যন্ত ম্যাগডালেনা অ্যান্ডারসনের বাম জোটের চেয়ে এগিয়ে আছে ডানপন্থী দলগুলোর জোট। ব্রিটিশ গণমাধ্যম বিবিসি এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে।

মডারেট পার্টির নেতা উলফ ক্রিস্টারসন এখন সরকার গঠন করবেন বলে আশা করা হচ্ছে। নির্বাচনের চূড়ান্ত ফলাফল এখনো ঘোষণা করা হয়নি। প্রায় ৯৯ শতাংশ নির্বাচনী এলাকার ভোট গণনা শেষ হয়েছে।

চূড়ান্ত ফল ঘোষণার আগেই ম্যাগডালেনা অ্যান্ডারসন পরাজয় স্বীকার করে নিয়েছেন এবং স্থানীয় সময় বুধবার এক সংবাদ সম্মেলনে বলেছেন, তিনি বৃহস্পতিবার আনুষ্ঠানিকভাবে পদত্যাগপত্র জমা দেবেন।

অ্যান্ডারসন আরও বলেছেন, ‘পার্লামেন্টে তারা (ডানপন্থী জোট) আমাদের চেয়ে দুই একটি আসনে এগিয়ে থাকবে। ফলে, ব্যবধান কম হলেও তারাই সংখ্যাগরিষ্ঠ হবে। তাই আমি পদত্যাগ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি।’

নর্ডিক দেশের প্রথম নারী প্রধানমন্ত্রী ছিলেন অ্যান্ডারসন। তিনি গত বছর সুইডেনের দায়িত্ব গ্রহণ করেছিলেন।

রোববারের নির্বাচনে সুইডেন ডেমোক্র্যাট, মডারেট পার্টি, খ্রিষ্টান ডেমোক্র্যাট এবং লিবারেলদের সমন্বয়ে গঠিত চার দলীয় ডানপন্থী জোট অ্যান্ডারসনের জোট থেকে এগিয়ে রয়েছে। নির্বাচনের এই ফল সুইডেনের রাজনীতির জন্য একটি গুরুত্বপূর্ণ টার্নিং পয়েন্ট। কারণ এক সময় সুইডেনের রাজনীতিতে এই দলগুলো অচ্যুত হিসেবে বিবেচিত হতো। কিন্তু এখন তারা ২০ শতাংশ ভোটে জিতে গেল।

ম্যাগডালেনা অ্যান্ডারসনের সোশ্যাল ডেমোক্র্যাট পার্টি ২০১৪ সাল থেকে সুইডেনের ক্ষমতায় ছিল। এটি সুইডেনের রাজনীতিতে বহু পুরোনো একটি দল। ১৯৩০ সাল থেকে তারা দেশটির রাজনীতিতে আধিপত্য বিস্তার করে ছিল।

অ্যান্ডারসন বুধবার সাংবাদিকদের বলেছেন, ‘আমি তাদের ক্রমবর্ধমান জনপ্রিয়তা বুঝতে পেরেছি। আমাদের সুইডিশ জনগণ ও সুইডিশ গণতন্ত্রকে সম্মান করতে হবে।’