ঢাকা ০৮:১৯ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৯ নভেম্বর ২০২২, ১৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

লেভাকে রুখে তৃপ্তির ঢেকুর তুলছেন নাগেলসমান

কয়েক মাস আগেও রবার্ট লেভানডফস্কির গোলে উদ্বেলিত হয়েছেন বায়ার্ন মিউনিখ কোচ ইউলিয়ান নাগেলসমান। সেই লেভাই গত রাতে আলিয়াঞ্জ অ্যারেনায় খেলতে নেমেছিলেন বায়ার্নের প্রতিপক্ষ হিসেবে।

বার্সেলোনার বিপক্ষে ম্যাচে বায়ার্নের সবচেয়ে বড় হুমকিও ছিলেন লেভা। পোলিশ ‘গোল মেশিনকে’ আটকানো ছিল ডিফেন্ডারদের গুরুদায়িত্ব। সেই দায়িত্ব ভালোভাবেই সামাল দিয়েছেন মানুয়েল নয়ার, দায়োত উপামেকানো, লুকাস হার্নান্দেজরা। কিংবা বলা যায়, লেভা নিজেই সদ্য সাবেক সতীর্থদের সফল হতে দিয়েছেন। একের পর এক সুযোগ নষ্ট করে নিজের কাজে ব্যর্থ তিনি।

সে যাই হোক, শেষ পর্যন্ত লেভানডফস্কিকে গোল করতে না দেওয়ায় তৃপ্তির ঢেকুর তুলছেন নাগেলসমান। বদলে যাওয়া বার্সাকে ২-০ গোলে হারানোর পর তিনি বলেছেন, ‘আমাদের দিক থেকে খুব খুশি যে, আজকে (গত রাতে) লেভানডফস্কি গোল করতে পারেনি।’

চিরচেনা ছন্দে থাকলে কাল প্রথমার্ধেই হ্যাটট্রিক করতে ফেলতেন লেভানডফস্কি। কিন্তু রাতটি তাঁর ছিল না। হাতের তালুর মতো চেনা মাঠে বায়ার্নের জার্সি গায়ে গোল-বন্যা বইয়ে দেওয়া মানুষটাই ভিন্ন জার্সিতে ছিলেন বিবর্ণ। তাঁর খেলায় বিশেষ কিছু তো ছিলই না, নিজের স্বাভাবিক খেলাটাও যেন ভুলে গিয়েছিলেন।

প্রথমার্ধে লেভানডফস্কির সেসব ব্যর্থতার চড়া মূল্য বার্সাকে দিতে হয়েছে দ্বিতীয়ার্ধে। গোলমুখে নেওয়া চার শটের দুটিতে সফল হয়েছে বায়ার্ন।

দুই অর্ধে দুই দলের পারফরম্যান্সের গ্রাফও নাগেলসমান ফুটিয়ে তুলেছেন তাঁর কথায়, ‘এটা ঠিক যে, প্রথমার্ধে আমাদের চেয়ে বার্সেলোনা সুযোগ বেশি সৃষ্টি করেছে। দ্বিতীয়ার্ধে আমরা অনেক ভালো খেলেছি। আমাদের ক্ষিপ্রতা ও কার্যকারিতাই ব্যবধান গড়ে দিয়েছে।’

Tag :
জনপ্রিয়

সংবাদ প্রকাশের জেরে তিন সাংবাদিকসহ ৫জনের নামে চোরাকারবারির মামলা

লেভাকে রুখে তৃপ্তির ঢেকুর তুলছেন নাগেলসমান

প্রকাশের সময় : ১০:০৯:৩৫ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২২

কয়েক মাস আগেও রবার্ট লেভানডফস্কির গোলে উদ্বেলিত হয়েছেন বায়ার্ন মিউনিখ কোচ ইউলিয়ান নাগেলসমান। সেই লেভাই গত রাতে আলিয়াঞ্জ অ্যারেনায় খেলতে নেমেছিলেন বায়ার্নের প্রতিপক্ষ হিসেবে।

বার্সেলোনার বিপক্ষে ম্যাচে বায়ার্নের সবচেয়ে বড় হুমকিও ছিলেন লেভা। পোলিশ ‘গোল মেশিনকে’ আটকানো ছিল ডিফেন্ডারদের গুরুদায়িত্ব। সেই দায়িত্ব ভালোভাবেই সামাল দিয়েছেন মানুয়েল নয়ার, দায়োত উপামেকানো, লুকাস হার্নান্দেজরা। কিংবা বলা যায়, লেভা নিজেই সদ্য সাবেক সতীর্থদের সফল হতে দিয়েছেন। একের পর এক সুযোগ নষ্ট করে নিজের কাজে ব্যর্থ তিনি।

সে যাই হোক, শেষ পর্যন্ত লেভানডফস্কিকে গোল করতে না দেওয়ায় তৃপ্তির ঢেকুর তুলছেন নাগেলসমান। বদলে যাওয়া বার্সাকে ২-০ গোলে হারানোর পর তিনি বলেছেন, ‘আমাদের দিক থেকে খুব খুশি যে, আজকে (গত রাতে) লেভানডফস্কি গোল করতে পারেনি।’

চিরচেনা ছন্দে থাকলে কাল প্রথমার্ধেই হ্যাটট্রিক করতে ফেলতেন লেভানডফস্কি। কিন্তু রাতটি তাঁর ছিল না। হাতের তালুর মতো চেনা মাঠে বায়ার্নের জার্সি গায়ে গোল-বন্যা বইয়ে দেওয়া মানুষটাই ভিন্ন জার্সিতে ছিলেন বিবর্ণ। তাঁর খেলায় বিশেষ কিছু তো ছিলই না, নিজের স্বাভাবিক খেলাটাও যেন ভুলে গিয়েছিলেন।

প্রথমার্ধে লেভানডফস্কির সেসব ব্যর্থতার চড়া মূল্য বার্সাকে দিতে হয়েছে দ্বিতীয়ার্ধে। গোলমুখে নেওয়া চার শটের দুটিতে সফল হয়েছে বায়ার্ন।

দুই অর্ধে দুই দলের পারফরম্যান্সের গ্রাফও নাগেলসমান ফুটিয়ে তুলেছেন তাঁর কথায়, ‘এটা ঠিক যে, প্রথমার্ধে আমাদের চেয়ে বার্সেলোনা সুযোগ বেশি সৃষ্টি করেছে। দ্বিতীয়ার্ধে আমরা অনেক ভালো খেলেছি। আমাদের ক্ষিপ্রতা ও কার্যকারিতাই ব্যবধান গড়ে দিয়েছে।’