ঢাকা ১০:৫৮ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ০৬ ডিসেম্বর ২০২২, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

বিশ্বের সবচেয়ে বেশি মিলিওনেয়ারের বসবাস যেসব শহরে

বিশ্বের কোন দেশের কোন শহরে সবচেয়ে বেশি মিলিওনেয়ারের বসবাস তার একটি তালিকা প্রকাশ করেছে যুক্তরাজ্যভিত্তিক পরামর্শক প্রতিষ্ঠান হেনলি অ্যান্ড পার্টনার্স গ্রুপ। সেই তালিকায় সবচেয়ে বেশি মিলিওনেয়ার বসবাসের শহরের শীর্ষে উঠে এসেছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্ক, জাপানের রাজধানী টোকিও ও যুক্তরাষ্ট্রের সান ফ্রান্সিসকো বে এরিয়া।

মিলিওনেয়ার বসবাসের শীর্ষ ১০টি শহরের অর্ধেকই যুক্তরাষ্ট্রের। হেনলি অ্যান্ড পার্টনার্সের প্রতিবেদনে দেখা গেছে, চলতি বছরের প্রথম ছয় মাসে প্রায় ১২ শতাংশ মিলিওনেয়ার হারিয়েছে নিউইয়র্ক শহর। তবে দেশটির সানফ্রান্সিসকো বে এরিয়ায় মিলিওনেয়ারের সংখ্যা ৪ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে।

অন্যদিকে, শীর্ষ শহরের তালিকায় চতুর্থ স্থানে থাকা যুক্তরাজ্যের রাজধানী লন্ডনে মিলিওনেয়ারের সংখ্যা চলতি বছরে ৯ শতাংশ কমে গেছে।

হেনলি মিলিওনেয়ারের এই তালিকায় কেবল তাদেরই অন্তর্ভুক্ত করেছে যাদের কমপেক্ষ ১০ লাখ ডলার বা তারও বেশি বিনিয়োগযোগ্য সম্পদ রয়েছে।

দক্ষিণ আফ্রিকা-ভিত্তিক বৈশ্বিক বাজার ও সম্পদ গবেষণা প্রতিষ্ঠান নিউ ওয়ার্ল্ড ওয়েলথের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, চলতি বছরের এখন পর্যন্ত সৌদি আরবের রাজধানী রিয়াদ এবং সংযুক্ত আরব আমিরাতের তৃতীয় সর্বাধিক জনবহুল শারজাহ শহরে অত্যন্ত দ্রুতগতিতে মিলিওনেয়ারের সংখ্যা বৃদ্ধি পেয়েছে।

স্বল্প শুল্ক ব্যবস্থা আর নতুন আবাসিক প্রকল্পের মাধ্যমে অতি-ধনীদের আকৃষ্ট করায় আমিরাতের আবু ধাবি এবং দুবাই শহরেও মিলিনেওয়ারের সংখ্যা অত্যন্ত দ্রুত বেড়েছে। রাশিয়ার সম্পদশালীদের দেশত্যাগ করে সংযুক্ত আরব আমিরাতে পাড়ি জমানোর প্রবণতা মিলিওনেয়ার বৃদ্ধিতে অবদান রেখেছে।

মিলিওনেয়ার বসবাসের এই তালিকায় শীর্ষ ১০ শহরের নবম এবং দশম স্থানে রয়েছে চীনের রাজধানী বেইজিং ও বাণিজ্যিক নগরীখ্যাত সাংহাই। তবে চলতি বছরে রাশিয়ার পরই দ্বিতীয় সর্বোচ্চ মিলিওনেয়ার চীন হারিয়েছে বলে হ্যানলি অ্যান্ড পার্টনার্সের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।

ব্লুমবার্গের তথ্য অনুযায়ী, সবচেয়ে বেশি মিলিওনেয়ার বসবাসের তালিকায় আশ্চর্যজনকভাবে শীর্ষে আছে যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্ক। এই শহরটিতে বর্তমানে ৩ লাখ ৪৫ হাজার ৬০০ জন মিলিওনেয়ার বসবাস করছেন। এরপরই দ্বিতীয় স্থানে থাকা জাপানের রাজধানী টোকিওতে ৩ লাখ ৪ হাজার ৯০০, তৃতীয় স্থানে থাকা সান ফ্রান্সিসকোর বে এলাকায় ২ লাখ ৭৬ হাজার ৪০০ জন মিলিওনেয়ার রয়েছেন।

এছাড়া চতুর্থ স্থানে থাকা লন্ডনে ২ লাখ ৭২ হাজার ৪০০ এবং পঞ্চম সিঙ্গাপুরে ২ লাখ ৪৯ হাজার ৮০০ জন মিলিওনেয়ারের বসবাস রয়েছে।

মিলিওনেয়ার বসবাসের শীর্ষ ২০ শহর

• নিউইয়র্ক
• টোকিও
• সান ফ্রান্সিসকো বে এরিয়া
• লন্ডন
• সিঙ্গাপুর
• লস অ্যাঞ্জেলেস ও মালিবু
• শিকাগো
• হিউস্টন
• বেইজিং
• সাংহাই
• সিডনি
• হংকং
• ফ্রাঙ্কফুর্ট
• টরন্টো
• জুরিখ
• সিউল
• মেলবোর্ন
• ডালাস ও ফোর্ট ওয়ার্থ
• জেনেভা
• প্যারিস

সূত্র: ব্লুমবার্গ, হ্যানলি অ্যান্ড পার্টনার্স।

Tag :
জনপ্রিয়

তিতাসে বর্তমান ও সাবেক চেয়ারম্যান সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষে নিহত-১, আহত-১৫

বিশ্বের সবচেয়ে বেশি মিলিওনেয়ারের বসবাস যেসব শহরে

প্রকাশের সময় : ০৮:৪৭:০৬ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২২

বিশ্বের কোন দেশের কোন শহরে সবচেয়ে বেশি মিলিওনেয়ারের বসবাস তার একটি তালিকা প্রকাশ করেছে যুক্তরাজ্যভিত্তিক পরামর্শক প্রতিষ্ঠান হেনলি অ্যান্ড পার্টনার্স গ্রুপ। সেই তালিকায় সবচেয়ে বেশি মিলিওনেয়ার বসবাসের শহরের শীর্ষে উঠে এসেছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্ক, জাপানের রাজধানী টোকিও ও যুক্তরাষ্ট্রের সান ফ্রান্সিসকো বে এরিয়া।

মিলিওনেয়ার বসবাসের শীর্ষ ১০টি শহরের অর্ধেকই যুক্তরাষ্ট্রের। হেনলি অ্যান্ড পার্টনার্সের প্রতিবেদনে দেখা গেছে, চলতি বছরের প্রথম ছয় মাসে প্রায় ১২ শতাংশ মিলিওনেয়ার হারিয়েছে নিউইয়র্ক শহর। তবে দেশটির সানফ্রান্সিসকো বে এরিয়ায় মিলিওনেয়ারের সংখ্যা ৪ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে।

অন্যদিকে, শীর্ষ শহরের তালিকায় চতুর্থ স্থানে থাকা যুক্তরাজ্যের রাজধানী লন্ডনে মিলিওনেয়ারের সংখ্যা চলতি বছরে ৯ শতাংশ কমে গেছে।

হেনলি মিলিওনেয়ারের এই তালিকায় কেবল তাদেরই অন্তর্ভুক্ত করেছে যাদের কমপেক্ষ ১০ লাখ ডলার বা তারও বেশি বিনিয়োগযোগ্য সম্পদ রয়েছে।

দক্ষিণ আফ্রিকা-ভিত্তিক বৈশ্বিক বাজার ও সম্পদ গবেষণা প্রতিষ্ঠান নিউ ওয়ার্ল্ড ওয়েলথের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, চলতি বছরের এখন পর্যন্ত সৌদি আরবের রাজধানী রিয়াদ এবং সংযুক্ত আরব আমিরাতের তৃতীয় সর্বাধিক জনবহুল শারজাহ শহরে অত্যন্ত দ্রুতগতিতে মিলিওনেয়ারের সংখ্যা বৃদ্ধি পেয়েছে।

স্বল্প শুল্ক ব্যবস্থা আর নতুন আবাসিক প্রকল্পের মাধ্যমে অতি-ধনীদের আকৃষ্ট করায় আমিরাতের আবু ধাবি এবং দুবাই শহরেও মিলিনেওয়ারের সংখ্যা অত্যন্ত দ্রুত বেড়েছে। রাশিয়ার সম্পদশালীদের দেশত্যাগ করে সংযুক্ত আরব আমিরাতে পাড়ি জমানোর প্রবণতা মিলিওনেয়ার বৃদ্ধিতে অবদান রেখেছে।

মিলিওনেয়ার বসবাসের এই তালিকায় শীর্ষ ১০ শহরের নবম এবং দশম স্থানে রয়েছে চীনের রাজধানী বেইজিং ও বাণিজ্যিক নগরীখ্যাত সাংহাই। তবে চলতি বছরে রাশিয়ার পরই দ্বিতীয় সর্বোচ্চ মিলিওনেয়ার চীন হারিয়েছে বলে হ্যানলি অ্যান্ড পার্টনার্সের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।

ব্লুমবার্গের তথ্য অনুযায়ী, সবচেয়ে বেশি মিলিওনেয়ার বসবাসের তালিকায় আশ্চর্যজনকভাবে শীর্ষে আছে যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্ক। এই শহরটিতে বর্তমানে ৩ লাখ ৪৫ হাজার ৬০০ জন মিলিওনেয়ার বসবাস করছেন। এরপরই দ্বিতীয় স্থানে থাকা জাপানের রাজধানী টোকিওতে ৩ লাখ ৪ হাজার ৯০০, তৃতীয় স্থানে থাকা সান ফ্রান্সিসকোর বে এলাকায় ২ লাখ ৭৬ হাজার ৪০০ জন মিলিওনেয়ার রয়েছেন।

এছাড়া চতুর্থ স্থানে থাকা লন্ডনে ২ লাখ ৭২ হাজার ৪০০ এবং পঞ্চম সিঙ্গাপুরে ২ লাখ ৪৯ হাজার ৮০০ জন মিলিওনেয়ারের বসবাস রয়েছে।

মিলিওনেয়ার বসবাসের শীর্ষ ২০ শহর

• নিউইয়র্ক
• টোকিও
• সান ফ্রান্সিসকো বে এরিয়া
• লন্ডন
• সিঙ্গাপুর
• লস অ্যাঞ্জেলেস ও মালিবু
• শিকাগো
• হিউস্টন
• বেইজিং
• সাংহাই
• সিডনি
• হংকং
• ফ্রাঙ্কফুর্ট
• টরন্টো
• জুরিখ
• সিউল
• মেলবোর্ন
• ডালাস ও ফোর্ট ওয়ার্থ
• জেনেভা
• প্যারিস

সূত্র: ব্লুমবার্গ, হ্যানলি অ্যান্ড পার্টনার্স।