ঢাকা ০৫:৩৯ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ০১ অক্টোবর ২০২২, ১৫ আশ্বিন ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

মনের শান্তির জন্য ৫৩ বিয়ে

শুধুমাত্র মনের শান্তির জন্য ৫৩ বার বিয়ে করেছেন বলে দাবি করেছেন আবু আবদুল্লাহ নামে এক সৌদি নাগরিক। তিনি জীবনে এমন একজন নারীকে খুঁজেছেন যিনি তাকে শান্তিতে রাখতে পারেন। গালফ নিউজের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে। এতে তার উদ্দেশ্য ছিল স্থিতিশীলতা এবং মানসিক শান্তি, ব্যক্তিগত আনন্দ নয় বলেও জানান তিনি। গালফ নিউজের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ৬৩ বছর বয়সী সউদির ওই নাগরিক দেশটির মালিকানাধীন এমবিএস টেলিভিশনে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে সর্বশেষ এক নারীকে বিয়ের কথা জানান। তিনি জানান, এখন তার আর কোনো বিয়ে করার ইচ্ছা নেই।

আবু আব্দুল্লাহ বলেন, ‘যখন আমি প্রথম বিয়ে করি তখন আমার বহু বিবাহ করার কোনো ইচ্ছা ছিল না। কারণ, প্রথম বিয়ে করে আমি সুখেই ছিলাম। প্রথম স্ত্রীর সঙ্গে আমার ৬ বছর সংসার ছিল। কিন্তু পরবর্তী সময়ে সমস্যা দেখা দেওয়ার কারণে আমি দ্বিতীয় বিয়ে করি। প্রথম ও দ্বিতীয় স্ত্রীর মধ্যে ঝামেলা বাধলে আমি তৃতীয় এবং চতুর্থ বিয়ে করি। পরে প্রথম, দ্বিতীয় ও তৃতীয় স্ত্রীকে তালাক দেই। তবে যাদের বিয়ে করেছেন তাদের সবাইকে ন্যায্য অধিকার দিয়েছেন বলেই দাবি করেন সউদির এই ব্যক্তি।

তিনি আরও বলেন, দীর্ঘ সময় নিয়ে আমি ৫৩টি বিয়ে করেছি। প্রত্যেক পুরুষই চায় একজন নারীর সঙ্গে সারাজীবন কাটিয়ে দিতে। কিন্তু এটা কম বয়সী কোনো নারীর সঙ্গে সম্ভব নয়। যতটা সম্ভব একজন বয়স্ক নারীর সঙ্গে। আমি একজন স্ত্রীর সঙ্গে সবচেয়ে কম সময় সংসার করেছি। মাত্র এক রাত পরেই তার সঙ্গে আমার সম্পর্ক ছিন্ন হয়ে যায়।

আবু আব্দুল্লাহ যাদের বিয়ে করেছেন তাদের মধ্যে অধিকাংশই সৌদি নারী। তবে তিনি ব্যবসায়ের কাজের জন্য বছরে তিন থেকে চার মাস দেশের বাইরে থাকেন। তখন চরিত্র হেফাজত’ রাখার জন্য সৌদি আরবের বাইরের নারীদেরও বিয়ে করেছেন।

Tag :
জনপ্রিয়

হোসেনপুর বাজার সনাতন ধর্মাবলম্বী ব্যাবসায়িকদের উদ্যোগে বস্ত্র বিতরণ

মনের শান্তির জন্য ৫৩ বিয়ে

প্রকাশের সময় : ১০:০৯:৩৮ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২২

শুধুমাত্র মনের শান্তির জন্য ৫৩ বার বিয়ে করেছেন বলে দাবি করেছেন আবু আবদুল্লাহ নামে এক সৌদি নাগরিক। তিনি জীবনে এমন একজন নারীকে খুঁজেছেন যিনি তাকে শান্তিতে রাখতে পারেন। গালফ নিউজের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে। এতে তার উদ্দেশ্য ছিল স্থিতিশীলতা এবং মানসিক শান্তি, ব্যক্তিগত আনন্দ নয় বলেও জানান তিনি। গালফ নিউজের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ৬৩ বছর বয়সী সউদির ওই নাগরিক দেশটির মালিকানাধীন এমবিএস টেলিভিশনে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে সর্বশেষ এক নারীকে বিয়ের কথা জানান। তিনি জানান, এখন তার আর কোনো বিয়ে করার ইচ্ছা নেই।

আবু আব্দুল্লাহ বলেন, ‘যখন আমি প্রথম বিয়ে করি তখন আমার বহু বিবাহ করার কোনো ইচ্ছা ছিল না। কারণ, প্রথম বিয়ে করে আমি সুখেই ছিলাম। প্রথম স্ত্রীর সঙ্গে আমার ৬ বছর সংসার ছিল। কিন্তু পরবর্তী সময়ে সমস্যা দেখা দেওয়ার কারণে আমি দ্বিতীয় বিয়ে করি। প্রথম ও দ্বিতীয় স্ত্রীর মধ্যে ঝামেলা বাধলে আমি তৃতীয় এবং চতুর্থ বিয়ে করি। পরে প্রথম, দ্বিতীয় ও তৃতীয় স্ত্রীকে তালাক দেই। তবে যাদের বিয়ে করেছেন তাদের সবাইকে ন্যায্য অধিকার দিয়েছেন বলেই দাবি করেন সউদির এই ব্যক্তি।

তিনি আরও বলেন, দীর্ঘ সময় নিয়ে আমি ৫৩টি বিয়ে করেছি। প্রত্যেক পুরুষই চায় একজন নারীর সঙ্গে সারাজীবন কাটিয়ে দিতে। কিন্তু এটা কম বয়সী কোনো নারীর সঙ্গে সম্ভব নয়। যতটা সম্ভব একজন বয়স্ক নারীর সঙ্গে। আমি একজন স্ত্রীর সঙ্গে সবচেয়ে কম সময় সংসার করেছি। মাত্র এক রাত পরেই তার সঙ্গে আমার সম্পর্ক ছিন্ন হয়ে যায়।

আবু আব্দুল্লাহ যাদের বিয়ে করেছেন তাদের মধ্যে অধিকাংশই সৌদি নারী। তবে তিনি ব্যবসায়ের কাজের জন্য বছরে তিন থেকে চার মাস দেশের বাইরে থাকেন। তখন চরিত্র হেফাজত’ রাখার জন্য সৌদি আরবের বাইরের নারীদেরও বিয়ে করেছেন।