ঢাকা ১২:২১ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ০৭ অক্টোবর ২০২২, ২২ আশ্বিন ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

রাস্তার গাছে গাছে ‘আলহামদুলিল্লাহ’ ও ‘সুবহানাল্লাহ’

আল্লাহ্ আকবর, আলহামদুলিল্লাহ ও সুবহানাল্লাহ ইত্যাদি গুনামুক্ত ও চলার পথে বিপদমুক্ত দোয়াসহ আল্লাহ্ ও নবী-রাসুলের নাম লেখা সাইনবোর্ড শোভা পাচ্ছে জয়পুরহাটের পাঁচবিবি উপজেলার গ্রামীণ জনপথের রাস্তার পাশের গাছে গাছে। তবে এ নিয়ে নানা প্রশ্ন দেখা দিয়েছে জনমনে।

খোঁজ খবর নিয়ে জানা গেছে, টিনের তৈরী আকারে ছোট সাইনবোর্ড গুলো রাস্তার পাশের গাছে কে কখন টাঙ্গিয়েছে কেউ দেখেনি এবং বলতেও পারেনা। তবে অনেকেই বলেন এমন মহতী কাজ যে ব্যক্তিই করুক না কেন সে নিজের এবং পথচারী (মুমিনদের) জন্য অতি মঙ্গল কাজ করেছেন। অনেকেরাই ধারনা করছেন ইসলাম পন্থি কোন ছাত্র সংগঠনের পক্ষ থেকে এমন সাইনবোর্ড লাগানো হতে পারে।

পাঁচবিবি উপজেলার বড়মানিক থেকে কোতোয়ালী বাগ, ধরঞ্জী, হাটখোলা ও কয়া অন্যদিকে রতনপুর, চৌমোহনী মোড়ের বাজার হয়ে ভুঁইডোবা হয়ে সীমান্ত এলাকা পর্যন্ত আসা-যাওয়ার পথে গ্রামীণ পাকারাস্তার পাশের ছোট বড় গাছে এসব সাইনবোর্ড দেখা যায়। এছাড়া কড়িয়া বাজার ও ভেদলার মোড় হয়ে শালপাড়া বাজার রাস্তার পাশের গাছেও অনেক সাইনবোর্ড চোখে পড়ে। পাঁচবিবি শহর থেকে উচাই, বেড়াখাই হয়ে বারোকান্দ্রী এবং কুসুম্বা ইউনিয়ন পরিষদের সামনের রাস্তাদিয়ে চাঁনপাড়া, শিরট্রী ও শাইলট্রি পর্যন্ত রাস্তার দু’পাশে এমন সাইনবোর্ড দেখা যায়।

পাঁচবিবি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) পলাশ চন্দ্র দেব বলেন, সাইনবোর্ড গুলো কারা কি উদ্দেশ্যে লাগিয়েছে তা ক্ষতিয়ে দেখা হচ্ছে। উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরমান হোসেন বলেন, বিষয়টি তার নজরে পড়েনি। তারপরেও বিষয়টি নিয়ে উপজেলা চেয়ারম্যানের সঙ্গে কথা বলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করবেন বলে জানান তিনি।

পাঁচবিবি উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মোঃ মনিরুল শহিদ মুন্না বলেন, আল্লাহ্ রাসুলের নাম সম্বলিত সাইনবোর্ড গুলো যে সংগঠনের পক্ষ থেকেই রাস্তার গাছে ঝুঁলিয়েছে নিঃসন্দে ভালো কাজ। তবে পেছনে কোন উদ্দেশ্য আছে কিনা তা ক্ষতিয়ে দেখা হবে।

Tag :

২ লাখ টাকার ফুলদানি নিলামে বিক্রি হলো ৯২ কোটি টাকায়

রাস্তার গাছে গাছে ‘আলহামদুলিল্লাহ’ ও ‘সুবহানাল্লাহ’

প্রকাশের সময় : ১০:০৮:৩৯ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৩ সেপ্টেম্বর ২০২২

আল্লাহ্ আকবর, আলহামদুলিল্লাহ ও সুবহানাল্লাহ ইত্যাদি গুনামুক্ত ও চলার পথে বিপদমুক্ত দোয়াসহ আল্লাহ্ ও নবী-রাসুলের নাম লেখা সাইনবোর্ড শোভা পাচ্ছে জয়পুরহাটের পাঁচবিবি উপজেলার গ্রামীণ জনপথের রাস্তার পাশের গাছে গাছে। তবে এ নিয়ে নানা প্রশ্ন দেখা দিয়েছে জনমনে।

খোঁজ খবর নিয়ে জানা গেছে, টিনের তৈরী আকারে ছোট সাইনবোর্ড গুলো রাস্তার পাশের গাছে কে কখন টাঙ্গিয়েছে কেউ দেখেনি এবং বলতেও পারেনা। তবে অনেকেই বলেন এমন মহতী কাজ যে ব্যক্তিই করুক না কেন সে নিজের এবং পথচারী (মুমিনদের) জন্য অতি মঙ্গল কাজ করেছেন। অনেকেরাই ধারনা করছেন ইসলাম পন্থি কোন ছাত্র সংগঠনের পক্ষ থেকে এমন সাইনবোর্ড লাগানো হতে পারে।

পাঁচবিবি উপজেলার বড়মানিক থেকে কোতোয়ালী বাগ, ধরঞ্জী, হাটখোলা ও কয়া অন্যদিকে রতনপুর, চৌমোহনী মোড়ের বাজার হয়ে ভুঁইডোবা হয়ে সীমান্ত এলাকা পর্যন্ত আসা-যাওয়ার পথে গ্রামীণ পাকারাস্তার পাশের ছোট বড় গাছে এসব সাইনবোর্ড দেখা যায়। এছাড়া কড়িয়া বাজার ও ভেদলার মোড় হয়ে শালপাড়া বাজার রাস্তার পাশের গাছেও অনেক সাইনবোর্ড চোখে পড়ে। পাঁচবিবি শহর থেকে উচাই, বেড়াখাই হয়ে বারোকান্দ্রী এবং কুসুম্বা ইউনিয়ন পরিষদের সামনের রাস্তাদিয়ে চাঁনপাড়া, শিরট্রী ও শাইলট্রি পর্যন্ত রাস্তার দু’পাশে এমন সাইনবোর্ড দেখা যায়।

পাঁচবিবি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) পলাশ চন্দ্র দেব বলেন, সাইনবোর্ড গুলো কারা কি উদ্দেশ্যে লাগিয়েছে তা ক্ষতিয়ে দেখা হচ্ছে। উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরমান হোসেন বলেন, বিষয়টি তার নজরে পড়েনি। তারপরেও বিষয়টি নিয়ে উপজেলা চেয়ারম্যানের সঙ্গে কথা বলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করবেন বলে জানান তিনি।

পাঁচবিবি উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মোঃ মনিরুল শহিদ মুন্না বলেন, আল্লাহ্ রাসুলের নাম সম্বলিত সাইনবোর্ড গুলো যে সংগঠনের পক্ষ থেকেই রাস্তার গাছে ঝুঁলিয়েছে নিঃসন্দে ভালো কাজ। তবে পেছনে কোন উদ্দেশ্য আছে কিনা তা ক্ষতিয়ে দেখা হবে।