ঢাকা ১০:৫৩ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১২ আশ্বিন ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

ময়মনসিংহে সন্ত্রাসী ও মাদক মামলা আসামীদের অত্যাচারে অতিষ্ঠ এলাকাবাসী

নজরুল ইসলাম জুয়েল, স্টাফ রিপোর্টার

ময়মনসিংহে শহরের ৬নং ওয়ার্ডে আকুয়ার সন্ত্রাসী ও মাদক মামলা আসামীদের অত্যাচারে অতিষ্ঠ এলাকাবাসী। গতকাল দুপুরে অত্যাচারে শিকার ভুক্তভোগীরা মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল করে। নগরীর আকুয়া হাজী বাড়ি মোড় হয়ে সেনবাড়ি রোড হয়ে ময়মনসিংহ জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে সামনে এসে অবস্থান কর্মীসূচী পালন করে ভোক্তভোগীরা৷ মানববন্ধনে বিভিন্ন ফেস্টুন ও প্ল্যাকার্ডে বিভিন্ন ধরনের লেখা নিয়ে হাজির হয় মানববন্ধনে।

এ সময় এলাকার বিভিন্ন ভুক্তভোগীরা রাফেল ও সহযোগী মির্জা মাহমুদ, লিটু, আকাশ, জিহাদ, রাব্বিদের অত্যাচারে থেকে রক্ষা চায় প্রশাসন ও প্রধানমন্ত্রীর কাছে এটা সঠিক বিচার চায়।
এ সময় উপস্থিত ভুক্তভোগীরা বলেন সন্ত্রাসী ও মাদক মামলা আসামীদের বিরুদ্ধে একাধিক মামলা রয়েছে, মামলা থাকা সত্বেও তারা কিভাবে বাহিরে চাদাবাজি ডাকাতি, মেয়েদের হয়রানি, মাদক ব্যাবসা চালিয়ে চাচ্ছে? অতি শীগ্রই প্রশাসনের আওতায় আনা হোক। এলাকাবাসী মাধ্যামে জানা যায় এ অত্যাচার থেকে মুক্তিযোদ্ধা পরিবারও রক্ষা পাইনি।

Tag :

প্রতিমায় রং তুলির আঁচড়ে ব্যস্ত কারিগররা

ময়মনসিংহে সন্ত্রাসী ও মাদক মামলা আসামীদের অত্যাচারে অতিষ্ঠ এলাকাবাসী

প্রকাশের সময় : ১১:৩৩:২৬ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১২ সেপ্টেম্বর ২০২২

নজরুল ইসলাম জুয়েল, স্টাফ রিপোর্টার

ময়মনসিংহে শহরের ৬নং ওয়ার্ডে আকুয়ার সন্ত্রাসী ও মাদক মামলা আসামীদের অত্যাচারে অতিষ্ঠ এলাকাবাসী। গতকাল দুপুরে অত্যাচারে শিকার ভুক্তভোগীরা মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল করে। নগরীর আকুয়া হাজী বাড়ি মোড় হয়ে সেনবাড়ি রোড হয়ে ময়মনসিংহ জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে সামনে এসে অবস্থান কর্মীসূচী পালন করে ভোক্তভোগীরা৷ মানববন্ধনে বিভিন্ন ফেস্টুন ও প্ল্যাকার্ডে বিভিন্ন ধরনের লেখা নিয়ে হাজির হয় মানববন্ধনে।

এ সময় এলাকার বিভিন্ন ভুক্তভোগীরা রাফেল ও সহযোগী মির্জা মাহমুদ, লিটু, আকাশ, জিহাদ, রাব্বিদের অত্যাচারে থেকে রক্ষা চায় প্রশাসন ও প্রধানমন্ত্রীর কাছে এটা সঠিক বিচার চায়।
এ সময় উপস্থিত ভুক্তভোগীরা বলেন সন্ত্রাসী ও মাদক মামলা আসামীদের বিরুদ্ধে একাধিক মামলা রয়েছে, মামলা থাকা সত্বেও তারা কিভাবে বাহিরে চাদাবাজি ডাকাতি, মেয়েদের হয়রানি, মাদক ব্যাবসা চালিয়ে চাচ্ছে? অতি শীগ্রই প্রশাসনের আওতায় আনা হোক। এলাকাবাসী মাধ্যামে জানা যায় এ অত্যাচার থেকে মুক্তিযোদ্ধা পরিবারও রক্ষা পাইনি।