ঢাকা ১১:৫৮ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১২ আশ্বিন ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

ফ্যামিলি কার্ডে টিসিবি পণ্য, ভর্তুকি ৫২০০ কোটি টাকা

বর্তমানে ফ্যামিলি কার্ডের মাধ্যমে মাসে একবার করে পণ্য দিতে বছরে প্রায় পাঁচ হাজার ২০০ কোটি টাকা ভর্তুকি দিচ্ছে সরকার। সবদিক চিন্তা করে ও টিসিবির সক্ষমতা বিবেচনায় ভবিষ্যতে মাসে দুই বার পণ্য দেওয়া যায় কিনা মন্ত্রণালয় খতিয়ে দেখবে বলে জানিয়েছেন বাণিজ্য সচিব তপন কান্তি ঘোষ।

রোববার (১১ সেপ্টেম্বর) সরকারের বিপণন সংস্থা ট্রেডিং কর্পোরেশন অব বাংলাদেশের (টিসিবি) পণ্য বিক্রি কার্যক্রম উদ্বোধনকালে তিনি এসব কথা জানান।

সেপ্টেম্বর মাসের এক কোটি ফ্যামিলি কার্ডধারী নিম্ন আয়ের পরিবারের মাঝে পণ্য বিক্রি করতে এ কার্যক্রমের উদ্বোধন করা হয়।

বিক্রয় কার্যক্রম উদ্বোধন শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের উত্তরে তপন কান্তি ঘোষ বলেন, টিসিবির মাধ্যমে প্রায় ৫ কোটি মানুষ উপকৃত হচ্ছে। প্রতি মাসেই এ পণ্য দেওয়া হবে।

তিনি জানান, মাসে একবার করে পণ্য দিতে বছরে প্রায় ৫২০০ কোটি টাকা ভর্তুকি প্রয়োজন হয়। সবদিক চিন্তা করে ও টিসিবির সক্ষমতা বিবেচনায় নিয়ে ভবিষ্যতে মাসে দুইবার পণ্য দেওয়া যায় কিনা মন্ত্রণালয় তা খতিয়ে দেখবে।

টিসিবির পণ্য বিক্রি কার্যক্রম অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন- অতিরিক্ত বাণিজ্য সচিব (আইআইটি) এ কে এম আলী আহাদ খান, টিসিবির চেয়ারম্যান ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. আরিফুল হাসান, উত্তর সিটি কর্পোরেশন এর ২৪নং ওয়ার্ডের কমিশনার সফিউল্লাহ (সফি)সহ টিসিবির প্রধান কার্যালয়ের পরিচালক, সচিব, প্রধান কর্মকর্তা ও টিসিবির ঢাকা আঞ্চলিক প্রধান ও মিডিয়া মুখপাত্র হুমায়ুন কবির প্রমুখ।

টিসিবির পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, ফ্যামিলি কার্ডের মাধ্যমে প্রতিটি কার্ডধারী ২ লিটার তেল, ২ কেজি মসুর ডাল, ১ কেজি চিনি ৪০৫ টাকার প্যাকেজে পাচ্ছেন।

ঢাকার প্রায় ৩০০ এবং দেশব্যাপী প্রায় ৩৫০০ ডিলারের মাধ্যমে সারা মাসব্যাপী বিক্রয় কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে। পেঁয়াজ দেশের বাইরে থেকে আসা সাপেক্ষে মহানগরীতে বিক্রি করা হবে বলে জানায় টিসিবি।

Tag :

‘ডেলিভারির দিন এই মানুষটাই প্রথম ছুটে গিয়েছিল’

ফ্যামিলি কার্ডে টিসিবি পণ্য, ভর্তুকি ৫২০০ কোটি টাকা

প্রকাশের সময় : ১০:০২:৪২ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১১ সেপ্টেম্বর ২০২২

বর্তমানে ফ্যামিলি কার্ডের মাধ্যমে মাসে একবার করে পণ্য দিতে বছরে প্রায় পাঁচ হাজার ২০০ কোটি টাকা ভর্তুকি দিচ্ছে সরকার। সবদিক চিন্তা করে ও টিসিবির সক্ষমতা বিবেচনায় ভবিষ্যতে মাসে দুই বার পণ্য দেওয়া যায় কিনা মন্ত্রণালয় খতিয়ে দেখবে বলে জানিয়েছেন বাণিজ্য সচিব তপন কান্তি ঘোষ।

রোববার (১১ সেপ্টেম্বর) সরকারের বিপণন সংস্থা ট্রেডিং কর্পোরেশন অব বাংলাদেশের (টিসিবি) পণ্য বিক্রি কার্যক্রম উদ্বোধনকালে তিনি এসব কথা জানান।

সেপ্টেম্বর মাসের এক কোটি ফ্যামিলি কার্ডধারী নিম্ন আয়ের পরিবারের মাঝে পণ্য বিক্রি করতে এ কার্যক্রমের উদ্বোধন করা হয়।

বিক্রয় কার্যক্রম উদ্বোধন শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের উত্তরে তপন কান্তি ঘোষ বলেন, টিসিবির মাধ্যমে প্রায় ৫ কোটি মানুষ উপকৃত হচ্ছে। প্রতি মাসেই এ পণ্য দেওয়া হবে।

তিনি জানান, মাসে একবার করে পণ্য দিতে বছরে প্রায় ৫২০০ কোটি টাকা ভর্তুকি প্রয়োজন হয়। সবদিক চিন্তা করে ও টিসিবির সক্ষমতা বিবেচনায় নিয়ে ভবিষ্যতে মাসে দুইবার পণ্য দেওয়া যায় কিনা মন্ত্রণালয় তা খতিয়ে দেখবে।

টিসিবির পণ্য বিক্রি কার্যক্রম অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন- অতিরিক্ত বাণিজ্য সচিব (আইআইটি) এ কে এম আলী আহাদ খান, টিসিবির চেয়ারম্যান ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. আরিফুল হাসান, উত্তর সিটি কর্পোরেশন এর ২৪নং ওয়ার্ডের কমিশনার সফিউল্লাহ (সফি)সহ টিসিবির প্রধান কার্যালয়ের পরিচালক, সচিব, প্রধান কর্মকর্তা ও টিসিবির ঢাকা আঞ্চলিক প্রধান ও মিডিয়া মুখপাত্র হুমায়ুন কবির প্রমুখ।

টিসিবির পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, ফ্যামিলি কার্ডের মাধ্যমে প্রতিটি কার্ডধারী ২ লিটার তেল, ২ কেজি মসুর ডাল, ১ কেজি চিনি ৪০৫ টাকার প্যাকেজে পাচ্ছেন।

ঢাকার প্রায় ৩০০ এবং দেশব্যাপী প্রায় ৩৫০০ ডিলারের মাধ্যমে সারা মাসব্যাপী বিক্রয় কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে। পেঁয়াজ দেশের বাইরে থেকে আসা সাপেক্ষে মহানগরীতে বিক্রি করা হবে বলে জানায় টিসিবি।