ঢাকা ০১:১৪ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ০৭ অক্টোবর ২০২২, ২২ আশ্বিন ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

‘সুন্দর দৃষ্টিভঙ্গি দিয়ে সবুজ পৃথিবী গড়ে তোলা সম্ভব’

ব্যক্তি পর্যায়ে সুন্দর দৃষ্টিভঙ্গি ও মূল্যবোধ পোষণ করলেই পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন পরিবেশ ও সবুজ পৃথিবী গড়ে তোলা সম্ভব বলে মনে করছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান।

শুক্রবার (৯ সেপ্টেম্বর) নবাব নওয়াব আলী চৌধুরী সিনেট ভবনে জাতীয় পরিবেশ অলিম্পিয়াড ২০২২ অনুষ্ঠানে তিনি এ অভিমত দেন।
পরিবেশ সংরক্ষণে সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ভূগোল ও পরিবেশ বিভাগের উদ্যোগে এ কর্মসূচির আয়োজন করা হয়।

ঢাবি উপাচার্য বলেন, সুন্দর দৃষ্টিভঙ্গি শেখা ও চর্চার জন্য পরিবার সবচেয়ে উত্তম স্কুল। শৈশব থেকেই শিশুদের মধ্যে এ ধরনের অভ্যাস গড়ে তুলতে বাবা-মা, শিক্ষক ও অভিভাবকদের ভূমিকা গুরুত্বপূর্ণ। অন্তর্ভুক্তিমূলক অংশগ্রহণের মাধ্যমে পরিবেশ ও প্রকৃতি সংরক্ষণে কাজ করার জন্য উপাচার্য শিক্ষক, গবেষক, শিক্ষার্থী ও সংশ্লিষ্টদের প্রতি আহ্বান জানান।

ভূগোল ও পরিবেশ বিভাগের চেয়ারপারসন অধ্যাপক নাসরীন রফিকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রো-উপাচার্য (শিক্ষা) অধ্যাপক ড. এ এস এম মাকসুদ কামাল, আর্থ অ্যান্ড এনভায়রনমেন্টাল সায়েন্সেস অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. মো. জিল্লুর রহমান, ভূতত্ত্ব বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. সুব্রত কুমার সাহা ও সমুদ্রবিজ্ঞান বিভাগের চেয়ারম্যান ড. কে এম আজম চৌধুরী বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন। ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন ভূগোল ও পরিবেশ বিভাগের অধ্যাপক ড. নাজমুন নাহার।

অনুষ্ঠানে রচনা, চিত্রাঙ্কন, পোস্টার ও প্রেজেন্টেশন প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মধ্যে উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান পুরস্কার বিতরণ করেন।

Tag :

২৪ ঘণ্টায় করোনায় মৃত্যু ২ সহস্রাধিক, আক্রান্ত সাড়ে ৬ লাখ

‘সুন্দর দৃষ্টিভঙ্গি দিয়ে সবুজ পৃথিবী গড়ে তোলা সম্ভব’

প্রকাশের সময় : ১০:৪৭:৩৯ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ৯ সেপ্টেম্বর ২০২২

ব্যক্তি পর্যায়ে সুন্দর দৃষ্টিভঙ্গি ও মূল্যবোধ পোষণ করলেই পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন পরিবেশ ও সবুজ পৃথিবী গড়ে তোলা সম্ভব বলে মনে করছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান।

শুক্রবার (৯ সেপ্টেম্বর) নবাব নওয়াব আলী চৌধুরী সিনেট ভবনে জাতীয় পরিবেশ অলিম্পিয়াড ২০২২ অনুষ্ঠানে তিনি এ অভিমত দেন।
পরিবেশ সংরক্ষণে সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ভূগোল ও পরিবেশ বিভাগের উদ্যোগে এ কর্মসূচির আয়োজন করা হয়।

ঢাবি উপাচার্য বলেন, সুন্দর দৃষ্টিভঙ্গি শেখা ও চর্চার জন্য পরিবার সবচেয়ে উত্তম স্কুল। শৈশব থেকেই শিশুদের মধ্যে এ ধরনের অভ্যাস গড়ে তুলতে বাবা-মা, শিক্ষক ও অভিভাবকদের ভূমিকা গুরুত্বপূর্ণ। অন্তর্ভুক্তিমূলক অংশগ্রহণের মাধ্যমে পরিবেশ ও প্রকৃতি সংরক্ষণে কাজ করার জন্য উপাচার্য শিক্ষক, গবেষক, শিক্ষার্থী ও সংশ্লিষ্টদের প্রতি আহ্বান জানান।

ভূগোল ও পরিবেশ বিভাগের চেয়ারপারসন অধ্যাপক নাসরীন রফিকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রো-উপাচার্য (শিক্ষা) অধ্যাপক ড. এ এস এম মাকসুদ কামাল, আর্থ অ্যান্ড এনভায়রনমেন্টাল সায়েন্সেস অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. মো. জিল্লুর রহমান, ভূতত্ত্ব বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. সুব্রত কুমার সাহা ও সমুদ্রবিজ্ঞান বিভাগের চেয়ারম্যান ড. কে এম আজম চৌধুরী বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন। ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন ভূগোল ও পরিবেশ বিভাগের অধ্যাপক ড. নাজমুন নাহার।

অনুষ্ঠানে রচনা, চিত্রাঙ্কন, পোস্টার ও প্রেজেন্টেশন প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মধ্যে উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান পুরস্কার বিতরণ করেন।