ঢাকা ১০:২৭ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১২ আশ্বিন ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

রাশিয়ার হুমকিতে আবারও দাম বাড়লো তেলের

রাশিয়ার হুমকির পর বিশ্ব বাজারে জ্বালানী তেলের দাম বাড়তে শুরু করেছে। বুধবার গত সাত মাসের মধ্যে সর্বনিম্ন অবস্থায় নেমে আসে তেলের দাম। এরপরই তেল রপ্তানি বন্ধের হুমকি দেয় মস্কো। এরফলে বিশ্ব বাজারে আবারও দাম বাড়তে শুরু করেছে। এ খবর দিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

খবরে জানানো হয়, ইউক্রেনে রাশিয়ার অভিযান শুরুর পর থেকেই বিশ্ব বাজারে তেলের দাম বাড়তে শুরু করে। এক পর্যায়ে ব্যারেলপ্রতি তেল ১৩৯ ডলারেও পৌঁছে গিয়েছিল। তবে সেই দাম এখন পড়ে গেছে। গত বুধবার তেলের দাম যুদ্ধ শুরুর আগের পর্যায়ে এসে দাঁড়িয়েছে। কিন্তু এতে ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে রাশিয়া। ফলে দেশটি হুমকি দিয়েছে, তারা তাদের তেল রপ্তানির চুক্তিগুলো থেকে সরে দাঁড়াবে।

এরপরই আবারও দাম বাড়তে থাকে তেলের।

বুধবার ব্রেন্ট ক্রুডের দাম বাড়ে ৮৫ সেন্ট বা ০.৯২ শতাংশ। বর্তমানে এর দাম ব্যারেলপ্রতি ৯৩.৬৮ ডলার। যদিও এর আগেই এর দাম ৯১.২০ ডলারে নেমে গিয়েছিল। সর্বশেষ ১৮ই ফেব্রুয়ারি তেলের এতো কম দাম ছিল বিশ্বে। ব্রেন্ট ক্রুডের পাশাপাশি বুধবার দাম বেড়েছে ওয়েস্ট টেক্সাস ইন্টারমিডিয়েট ক্রুডেরও। এর দাম ৮০ সেন্ট বেড়ে হয়েছে ৮৭.৬৮ ডলার। অথচ এর দাম কমে ৮৫.০৮ ডলারে ঠেকেছিল।

Tag :

প্রতিমায় রং তুলির আঁচড়ে ব্যস্ত কারিগররা

রাশিয়ার হুমকিতে আবারও দাম বাড়লো তেলের

প্রকাশের সময় : ০৭:৫৭:২৬ অপরাহ্ন, বুধবার, ৭ সেপ্টেম্বর ২০২২

রাশিয়ার হুমকির পর বিশ্ব বাজারে জ্বালানী তেলের দাম বাড়তে শুরু করেছে। বুধবার গত সাত মাসের মধ্যে সর্বনিম্ন অবস্থায় নেমে আসে তেলের দাম। এরপরই তেল রপ্তানি বন্ধের হুমকি দেয় মস্কো। এরফলে বিশ্ব বাজারে আবারও দাম বাড়তে শুরু করেছে। এ খবর দিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

খবরে জানানো হয়, ইউক্রেনে রাশিয়ার অভিযান শুরুর পর থেকেই বিশ্ব বাজারে তেলের দাম বাড়তে শুরু করে। এক পর্যায়ে ব্যারেলপ্রতি তেল ১৩৯ ডলারেও পৌঁছে গিয়েছিল। তবে সেই দাম এখন পড়ে গেছে। গত বুধবার তেলের দাম যুদ্ধ শুরুর আগের পর্যায়ে এসে দাঁড়িয়েছে। কিন্তু এতে ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে রাশিয়া। ফলে দেশটি হুমকি দিয়েছে, তারা তাদের তেল রপ্তানির চুক্তিগুলো থেকে সরে দাঁড়াবে।

এরপরই আবারও দাম বাড়তে থাকে তেলের।

বুধবার ব্রেন্ট ক্রুডের দাম বাড়ে ৮৫ সেন্ট বা ০.৯২ শতাংশ। বর্তমানে এর দাম ব্যারেলপ্রতি ৯৩.৬৮ ডলার। যদিও এর আগেই এর দাম ৯১.২০ ডলারে নেমে গিয়েছিল। সর্বশেষ ১৮ই ফেব্রুয়ারি তেলের এতো কম দাম ছিল বিশ্বে। ব্রেন্ট ক্রুডের পাশাপাশি বুধবার দাম বেড়েছে ওয়েস্ট টেক্সাস ইন্টারমিডিয়েট ক্রুডেরও। এর দাম ৮০ সেন্ট বেড়ে হয়েছে ৮৭.৬৮ ডলার। অথচ এর দাম কমে ৮৫.০৮ ডলারে ঠেকেছিল।