রেজি. নং- ১৯৬, ডিএ নং- ৬৪৩৪

সোমবার ১৭ মে ২০২১, ৩রা জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

০৪:০৬ অপরাহ্ণ

শিরোনাম
◈ বুড়িচং উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ডের মতবিনিময় সভা অনষ্ঠিত ◈ মতিন খসরু’র স্মরণ সভা ও পূর্ণমিলনী অনুষ্ঠিত ◈ স্ত্রী কানিজ ফাতিমা হত্যায় আটক সেনা সদস্য স্বামী রাকিবুলের ফাঁসির দাবিতে মানববন্ধন ◈ বাঁশখালীতে বেড়াতে আসা তরুণীকে ধর্ষণ করে আবারো আলোচনায় সেই নূরু ◈ ছাগলনাইয়া থানার অফিসার ইনচার্জ মেজবাহ্ উদ্দিন আহমেদ এর বিদায় সংবর্ধনা ◈ বাঁশখালীতে অবৈধভাবে বালি উত্তোলন করায় ড্রেজার মেশিন জব্দ ◈ বাঁশখালী সাধনপুরে কাঁদায় দৌড় প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত ◈ নবীনগর বিটঘরে কাল বৈশাখীর ঝড়ে গাছের ডাল পড়ে বৃদ্ধের মৃত্যু ◈ লালমোহনে শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবসে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত ◈ মোংলায় আগুনে পুড়ে যাওয়া ছয়টি পরিবারের মাঝে পি.ডি.এম. ফাউন্ডেশন এর ঢেউটিন বিতরণ

১০ বছরেও টাটকা চিজবার্গার

প্রকাশিত : ০৬:৩৪ AM, ১২ নভেম্বর ২০১৯ মঙ্গলবার ১১৪ বার পঠিত

আলোকিত সকাল রিপোর্ট :
alokitosakal

আইসল্যান্ডে ম্যাকডোনাল্ডস তাদের সব রেস্তোরাঁ বন্ধ করে দিচ্ছিল ২০০৯ সালে। তখন এক ব্যক্তি শেষবারের মতো রেস্তোরাঁটি থেকে হ্যামবার্গার এবং ফ্রাইস কেনেন। তিনি শুনেছিলেন যে ম্যাকডোনাল্ডসের খাবার কখনো পচে যায় না। সেটি সত্যি কিনা তা দেখতেই তিনি এ সিদ্ধান্ত নেন। গত সপ্তাহে এ খাবারটি কেনার

১০ বছর হচ্ছে এবং সত্যিই খাবারটি ঠিক আগের মতোই আছে।

সাউদার্ন আইসল্যান্ডের স্নোটরা হাউসে (একটি হোটেল) একটি কাচের বাক্সে রাখা আছে সেই বার্গার ও ফ্রাইসগুলো। হোটেলটির মালিক সিগি সিগারডার বলেছেন, এটা বেশ মজার ব্যাপার। বার্গারটিতে পচে যাওয়ার মতো কিছু ঘটেনি। শুধু মলিন কাগজের মোড়কটি ছাড়া বাকি সব কিছুই বেশ তাজা দেখাচ্ছে।

হোটেল কর্তৃপক্ষ বলছে, বিশ্বের নানা প্রান্ত থেকে লোকজন এটাকে দেখতে আসছেন এবং প্রতিদিন এ সম্পর্কিত ওয়েবসাইটটিতে কমপক্ষে চার লাখ হিট পড়ে। বার্গারটি কিনেছিলেন স্মারাসন নামে এক ব্যক্তি। প্রথমে তিনি এগুলো একটি প্লাস্টিকের ব্যাগে করে নিজের গ্যারেজে কয়েক দিন রেখে দেন। তিন বছরেও যখন তেমন কোনো পরিবর্তন দেখতে পাননি, তখন তিনি সেগুলো আইসল্যান্ডের জাতীয় জাদুঘরে দান করেন।

জাদুঘর কর্তৃপক্ষ খাবার সংরক্ষণ করার মতো কোনো ব্যবস্থা তাদের নেই জানিয়ে ফিরিয়ে দিয়েছিল। তবে স্মারাসনের মতে, তারা ভুল করেছিল। কারণ এ হ্যামবার্গারটি নিজেই নিজেকে সংরক্ষণ করতে পারে। রেইকজাভিকের আরেকটি হোটেলে কয়েক দিন থাকার পর বার্গার ও ফ্রাইসগুলোতে বর্তমান জায়গায় স্থানান্তর করা হয়।

২০১৩ সালে ম্যাকডোনাল্ডস জানিয়েছিল, উপযুক্ত পরিবেশে অন্যান্য খাবারের মতো আমাদের বার্গারও পচে যায়। কিন্তু পরিবেশে যদি ওই পরিমাণ আর্দ্রতা না থাকে, তা হলে এগুলো বর্জ্যে পরিণত হওয়া, ব্যাকটেরিয়া জন্মানো কিংবা পচে যাওয়ার মতো ঘটনা ঘটবে না।

শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়। আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি Alokito Sakal'কে জানাতে ই-মেইল করুন- dailyalokitosakal@gmail.com আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।

Alokito Sakal'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

এই বিভাগের জনপ্রিয়

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। Alokito Sakal | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বে-আইনি, Design and Developed by- DONET IT