রেজি. নং- ১৯৬, ডিএ নং- ৬৪৩৪

সোমবার ১৮ নভেম্বর ২০১৯, ৩রা অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম
◈ এমপি মানিকের বিরুদ্ধে কটুক্তির প্রতিবাদে ছাতকে আ’লীগের বিক্ষোভ ◈ নবীগঞ্জে ৬০ টাকা দরে পেঁয়াজ বিক্রি ◈ বাংলাদেশ খেলাফত আন্দোলন ফেনী জেলা শাখা মানববন্ধন অনুষ্ঠিত ◈ গংগাচড়ায় দুইদিন ব্যাপি মাদক বিরোধী ফুটবল টুর্নামেন্ট অনুষ্ঠিত ◈ গাজীপুর মহানগর ধীরাশ্রম এলাকা থেকে বিপুল পরিমাণ চোরাই সেগুন কাঠ টাক আটক করেন ◈ সাপাহারে তিলনা ইউনিয়ন আ’লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক হিসাবে সাংবাদিক হাফিজুলকে চায় এলাকাবাসী ◈ ধামইরহাটে পাতকুয়া ব্যবহারে উদ্বুদ্ধ করতে কৃষক প্রশিক্ষণ ◈ কালিহাতীতে পানিতে ডুবে ২ শিশুর মৃত্যু ◈ পত্নীতলায় তরুন তরুনীদের একতাবদ্ধ ও উন্নত জীবন তৈরীতে যুব সম্মেলন অনুষ্ঠিত ◈ এবার চালের বাজারে অস্থিরতা
বয়সের বিষয়ে আজ দিকনির্দেশনা দেবেন প্রধানমন্ত্রী

স্বচ্ছ ইমেজের প্রার্থী সংকট যুবলীগে

প্রকাশিত : ০৫:১২ পূর্বাহ্ণ, ২০ অক্টোবর ২০১৯ রবিবার ৫৫ বার পঠিত

অনলাইন নিউজ ডেক্স :
alokitosakal

ক্যাসিনো বিরোধী অভিযানে থলের বিড়াল বের হয়ে গেছে যুব লীগের। এত বিস্তর অভিযোগ অন্য কোনো সংগঠনের বিরুদ্ধে নেই। অবস্থা এমন দাঁড়িয়েছে, নতুন সম্মেলন করে বর্তমান কমিটির চৌকস ও স্বচ্ছ ইমেজের কোনো নেতা খুঁজে পাওয়া দুষ্কর হয়ে দাঁড়িয়েছে।

তৃণমূল পর্যায় পর্যায়ের নেতাকর্মীদের নামেও এত অভিযোগ উঠেছে যে, পুরো সংগঠনই দূষিত হয়ে গেছে বলে মনে করছেন আওয়ামী লীগের দায়িত্বশীল নেতারা। এ কারণে গোটা যুবলীগ কেই ঢেলে সাজাতে চান আওয়ামী লীগ সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে যুবলীগের আসন্ন সপ্তম কংগ্রেস অনুষ্ঠিত হবে আগামী ২৩ নভেম্বর।

আওয়ামী লীগের দায়িত্বশীল একাধিক সূত্রে জানা গেছে, এবারের সম্মেলনের মধ্য দিয়ে যুবলীগের দীর্ঘদিনের বলয় ভাঙতে চান শেখ হাসিনা। এর আগে আওয়ামী লীগের একজন সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য সরাসরি যুবলীগের অভিভাবক হিসেবে সংগঠনটির দেখভাল করতেন। কিন্তু যুবলীগের বর্তমান পরিণতির পর এবার প্রধানমন্ত্রী চাচ্ছেন নিজেই যুবলীগের কমিটির বিষয়টি দেখবেন। ইতোমধ্যে যুবলীগের কেন্দ্রীয় ও মহানগরের শীর্ষ নেতা নির্বাচনের বিষয়ে খোঁজখবর নিতে শুরু করেছেন তিনি।

অন্যান্য সময় ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণ শাখার সম্মেলন শেষে কেন্দ্রের সম্মেলন হতো। কিন্তু এবারের পরিস্থিতি ভিন্ন। বর্তমান পরিস্থিতিতে মহানগর শাখার সম্মেলন অনুষ্ঠানের পক্ষে নয় আওয়ামী লীগের হাইকমান্ড। কারণ সম্প্রতি ক্যাসিনো কারবারের দায়ে সংগঠন থেকে বহিষ্কার হয়েছেন ঢাকা মহানগর যুবলীগ দক্ষিণের সভাপতি ইসমাইল হোসেন চৌধুরী সম্রাটসহ অনেকেই। অস্বাভাবিক লেনদেনের অভিযোগে বাংলাদেশ ব্যাংক তলব করেছে যুবলীগ চেয়ারম্যান ওমর ফারুক চৌধুরীর ব্যাংক অ্যাকাউন্ট। সংগঠন থেকে বহিষ্কার হয়েছেন ওমর ফারুকের ‘ক্যাশিয়ার’ হিসেবে পরিচিত সংগঠনটির দফতর সম্পাদক কাজী আনিস। ঢাকা মহানগর উত্তর শাখা যুবলীগের অনেক নেতাও রয়েছেন দৌড়ের ওপর। সার্বিক পরিস্থিতিতে আজ রোববার দলের চেয়ারম্যান ওমর ফারুক চৌধুরীকে ছাড়াই গণভবনে যাচ্ছে যুবলীগ নেতারা।

প্রধানমন্ত্রীর ঘনিষ্ঠ নেতারা জানিয়েছেন, যুবলীগের নেতৃত্ব নির্বাচনের ক্ষেত্রে পরিচ্ছন্ন ইমেজকে প্রাধান্য দেবেন প্রধানমন্ত্রী। কারণ এই সংগঠনের বর্তমান ভাবমূর্তি তলানিতে এসে ঠেকেছে। এখন এমন নেতা প্রয়োজন, যারা ভাবমূর্তি পুনরুদ্ধার ও সেটা ধরে রাখবেন। ইতোমধ্যে নতুন নেতৃত্বের সন্ধান শুরু করেছেন খোদ আওয়ামী লীগ সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এতে সার্বিক সহযোগিতা করছে বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থা।

একাধিক সূত্রে জানা গেছে, এবারের সম্মেলনে চেয়ারম্যান পদে দেখা যেতে পারে যুবলীগের প্রতিষ্ঠাতা শেখ ফজলুল হক মণির ছেলে শেখ ফজলে শামস পরশকে। বঙ্গবন্ধু পরিবারের সদস্য হলেও সব সময় নিজেকে রাজনৈতিক দৃশ্যপটের আড়ালেই রেখেছেন একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগের এই শিক্ষক। এ ছাড়াও যুবলীগের বর্তমান কমিটির দুজন যুগ্ম সাধারণ সম্পাদকের নাম রয়েছে শীর্ষ পদের আলোচনায়। তারা হলেন মহিউদ্দীন আহমেদ মহি ও সুব্রত পাল। ছাত্রলীগের শীর্ষ নেতা ছিলেন কিন্তু বর্তমানে কোনো দায়িত্বে নেই- এমন দুজন সাবেক ছাত্র নেতাকে নিয়েও ভাবনা চলছে যুবলীগের শীর্ষ পদের জন্য। তারা হলেনÑ বাহাদুর বেপারি ও ইসহাক আলী খান পান্না।

যুবলীগের বর্তমান কমিটির একাধিক প্রেসিডিয়াম সদস্য শীর্ষ দুই পদের একটি পেতে তদবির চালিয়ে যাচ্ছেন। প্রেসিডিয়াম সদস্য আতাউর রহমান আতা, মো. ফারুক হোসেন, আবদুস সাত্তার মাসুদ, অ্যাডভোকেট বেলাল হোসাইন, ইঞ্জিনিয়ার নিখিলগুহ প্রমুখ সম্মেলনের তারিখ ঘোষণার পর কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে বেশ সময় দিচ্ছেন।

২০১২ সালের ১২ সেপ্টেম্বর ষষ্ঠ কংগ্রেসে অনুমোদিত সংগঠনের গঠনতন্ত্র অনুযায়ী, যেকোনো যুবক ও যুবার যুবলীগের সদস্য হওয়ার সুযোগ রয়েছে। এ ক্ষেত্রে বয়সসীমা সুনির্দিষ্ট করা হয়নি। এই সুযোগেই যেকোনো বয়সের ব্যক্তিরা যুবলীগের কেন্দ্রীয় নেতা হওয়ার সুযোগ পেয়েছেন। এর মধ্য দিয়েই যুবকদের সংগঠন যুবলীগ মূলত বুড়োদের সংগঠনে রূপ নিয়েছে।

প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে আজকের বৈঠকে যুবলীগের বয়সসীমা বেঁধে দেওয়া হতে পারে। বৈঠকে যুবলীগের বয়সের বিষয় নিয়ে আলোচনা হবে বলে ইতোমধ্যে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের জানিয়েছেন। নতুন নেতৃত্বের বিষয়ে সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন, সহযোগী সংগঠনগুলোর সম্মেলনের বয়স অনেক বেশি হয়ে গেছে। সম্মেলনে দলকে ঢেলে সাজানো হবে। দলের নেতারা বলছেন, এবারের কংগ্রেসে আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার কথাই হবে শেষ কথা। তিনি নিজেই যুব লীগকে ঢেলে সাজাবেন বলে জানা গেছে।

শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়। আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি Alokito Sakal'কে জানাতে ই-মেইল করুন- dailyalokitosakal@gmail.com আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।

Alokito Sakal'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।




© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। Alokito Sakal | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বে-আইনি, Design and Developed by- DONET IT