রেজি. নং- ১৯৬, ডিএ নং- ৬৪৩৪

শুক্রবার ২২ মে ২০২০, ৮ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

০৪:৪৯ পূর্বাহ্ণ

শিরোনাম
◈ গ্রিন শ্যামগঞ্জ-এর উদ্যোগে১৫০টি দরিদ্র পরিবারের মাঝে জরুরী ঔষধ বিতরণ করেন ডিসি মিজানুর রহমান ◈ নওগাঁয় আম্পানের তান্ডবে কৃষকের স্বপ্নের দাম ২০ টাকা বস্তা! ◈ পণ্যবাহী গাড়িতে যাত্রী বহন করলেই সড়ক আইনে মামলা ◈ পৌনে দুই লাখ হেক্টর জমির ফসলের ক্ষতি ◈ শার্শায় আম্পানের আঘাতে শার্শায় গাছ চাপায় নারী,পুরুষসহ নিহত ৪ ◈ খুলনায় ঘূর্ণিঝড় আম্পানে ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে জেলা প্রশাসনের ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ ◈ বিচারপতি শশাংঙ্ক শেখর সরকার করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ◈ দাকোপ বটিয়াঘাটায় ঝড়ের পর ক্ষতিগ্রস্থদের মাঝে মাননীয় হুইপ পঞ্চানন বিশ্বান বিভাগীয় কমিশনার ও জেলা প্রশাসক ◈ পিএইচপি কোরআনের আলো প্রতিযোগিতায় সেরা-১০ বেনাপোলের হাফেজ আবু সাঈদ ◈ করোনা মহাসংকটে কৃষিবিদ ড. সামীউল আলম লিটনের ব্যাপক  উদ্যোগ

সূর্যকে গিলে খাবে চাঁদ, বাংলাদেশ থেকে দেখবেন যেভাবে

প্রকাশিত : ০৫:৪২ AM, ২৬ নভেম্বর ২০১৯ Tuesday ২৪২ বার পঠিত

আলোকিত সকাল রিপোর্ট :
alokitosakal

মঙ্গলবার বছরের শেষ সূর্যগ্রহণ দেখা যাবে। বাংলাদেশ থেকে এই মহাকাশীয় ঘটনাটি আংশিক দৃশ্যমান হবে বলে জানিয়েছে মহাকাশ বিষয়ক মার্কিন ওয়েবসাইট space.com। বাংলাদেশ ছাড়াও ভারত, সৌদি আরব, ইন্দোনেশিয়ার সুমাত্রা এবং মালয়েশিয়া থেকেও দেখা যাবে এই সূর্যগ্রহণ। বাংলাদেশ সময় সকাল সাড়ে আটটায় শুরু হবে এই সূর্যগ্রহণ চলবে। চলবে আড়াই ঘণ্টারও বেশি সময় ধরে।

সূর্যগ্রহণের সময় সূর্য ঢেকে যায় অন্ধকারে। এবারের সূর্যগ্রহণে ‘হারিয়ে যাওয়ার পর’ ধীরে ধীরে সূর্যের চারপাশে ফুটে উঠতে শুরু করবে আগুনের গোলক। একে বলা হয় ‘‘রিং অব ফায়ার’’ বা অগ্নিগোলক। সর্বশেষ ১৭২ বছর আগে এমন অদ্ভুত দৃশ্য দেখেছিল পৃথিবীবাসী। তাই এবারের সূর্যগ্রহণকে বলা হচ্ছে বিশেষ।

প্রসঙ্গত, চাঁদ যখন নিজের কক্ষপথে ঘুরতে ঘুরতে সূর্য ও পৃথিবীর মাঝখানে আসে এবং পৃথিবীর ওপর একটি ছায়া ফেলে তখন সূর্যগ্রহণ দেখা যায়। অর্থাৎ সূর্য ও পৃথিবীর মাঝে চাঁদ অন্তরায় হয়ে গেলে সূর্যকে আর দেখা যায় না। চাঁদের এই ঢেকে ফেলার ফলে গ্রহণটি আংশিক হতে পারে, পূর্ণগ্রাস বা বলয়াকার হতে পারে।

স্পেসডটকম বলছে, এবারের সূর্যগ্রহণটি হবে “অ্যানুলার” (annular) বা বলয়াকার। এটি “আগুনের বলয়” (ring of fire) নামেও পরিচিত। যখন চাঁদ তার কেন্দ্র থেকে সূর্যকে আচ্ছাদিত করে তখন চাঁদের ঢেকে দেওয়া অংশটুকু বাদে সূর্যের বাকিটা দৃশ্যমানই থাকে। দেখে যেন মনে হয় একটা সোনালি রঙের আংটি। এই ধরণের সূর্যগ্রহণকেই বলয়াকার সূর্যগ্রহণ বলে। সুতরাং, এই বছর, চাঁদ সূর্যকে মাঝখান থেকে ঢেকে ফেলবে, এবং সূর্যের প্রান্তকে “আগুনের আংটি” বা “আগুনের বলয়” হিসেবেই দেখা যাবে।

উল্লেখ্য, কোনোভাবেই খালি চোখে সূর্যগ্রহণ দেখা উচিত নয়। সূর্যগ্রহণ দেখার সময় চোখে অবশ্যই সানগ্লাস পরার পরামর্শ দেন বিশেষজ্ঞরা।

শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়। আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি Alokito Sakal'কে জানাতে ই-মেইল করুন- dailyalokitosakal@gmail.com আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।

Alokito Sakal'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।




© ২০২০ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। Alokito Sakal | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বে-আইনি, Design and Developed by- DONET IT