রেজি. নং- ১৯৬, ডিএ নং- ৬৪৩৪

বুধবার ১৬ জুন ২০২১, ২রা আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

০৭:৫৬ পূর্বাহ্ণ

শিরোনাম
◈ বিলাইভ মিউজিক স্টেশন থেকে আগামী রবিবার আসছে রাহিব খানের ❝তুই আশিকি❞ ◈ আজীবন সম্মাননা পাচ্ছেন সংগঠক মোস্তফা কামাল মাহদী ◈ বিএসআরএফ দপ্তর সম্পাদক নির্বাচিত হওয়ায় মোসকায়েত মাশরেককে শুভেচ্ছা ◈ ঠাকুরগাঁওয়ে ধর্ষন মামলা আসামীকে পুলিশের সহযোগীতার অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন ◈ ঘাটাইল লক্ষিন্দর ইউনিয়নে টাকা ছাড়া হয় না ভাতা কার্ড ◈ রেড ক্রিসেন্ট চট্টগ্রামের উদ্যোগে বিশ্ব রক্তদাতা দিবস উদযাপন ◈ জাগ্রত আছিম গ্রন্থাগারের উদ্যোগে স্থানীয় মাদ্রাসায় বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি পালন ◈ কালিহাতীতে বাড়ছে করোনা, সামাজিক সচেতনতায় ইউএনও’র ব্যতিক্রমী উদ্যোগ অব্যাহত ◈ মুক্তাগাছায় ভ্রাম্যমাণ আদালতে ৭ জনের জেল ◈ রায়পুরায় ট্রেনের সাথে প্রাইভেটকারের ধাক্কা, ঘটনার ৬ দিনপর এক পুলিশ কর্মকর্তার মৃত্যু
নতুন পরিবহন আইন

সিন্ডিকেটের সেই পুরনো ফাঁদ

প্রকাশিত : ০৪:৪৭ AM, ৪ নভেম্বর ২০১৯ সোমবার ১১১ বার পঠিত

আলোকিত সকাল রিপোর্ট :
alokitosakal

চলতি মাসের শুরু থেকে কার্যকর করা হয়েছে নতুন সড়ক পরিবহন আইন। বহুল আলোচিত এই আইন বেশ কিছুদিন আগে প্রণয়ন করা হলেও পরিবহন মালিক-শ্রমিকদের বাধার মুখে এতদিন বাস্তবায়নে যায়নি সরকার। এবার বাস্তবায়ন শুরু হতেই পরিবহন সিন্ডিকেটের সেই পুরনো ফাঁদ পেতেছে মালিকরা। রাস্তা থেকে তুলে নেওয়া হয়েছে গণপরিবহন। এতে ভোগান্তিতে পড়েছেন রাজধানীবাসী। রোববার দিনভর বিভিন্ন রুটে বাস ছিল প্রয়োজনের তুলনায় কম।

সূত্র বলছে, জিম্মি করার উদ্দেশ্য ছাড়াও মামলা খাওয়া বা জরিমানার ভয়ে কিছু পরিবহন রাস্তায় নামেনি।

পরিবহন মালিকদের এই ফাঁদ বেশ পুরনো। নিজেদের মধ্যে সিন্ডিকেট তৈরি করে ‘পান থেকে চুন খসলেই’ রাস্তা থেকে বাস তুলে নিয়ে তারা জনগণকে জিম্মি করে থাকেন। এক পর্যায়ে রাষ্ট্রও যেন অসহায় হয়ে পড়ে এই জিম্মি ব্যবস্থার কাছে। এর আগে ‘ট্রাফিক সপ্তাহ’ কিংবা কোনো চালককে শাস্তি দেওয়ার পরিপ্রেক্ষিতেও উদ্দেশ্যমূলকভাবে এমন অচলাবস্থার সৃষ্টি করা হয়েছিল।

নতুন সড়ক পরিবহন আইনে সব ধরনের সাজা বাড়ানো হয়েছে। ট্রাফিক সংকেত ভঙ্গের জরিমানা ৫০০ থেকে বাড়িয়ে সর্বোচ্চ ১০ হাজার, হেলমেট না পরলে জরিমানা ২০০ থেকে বাড়িয়ে সর্বোচ্চ ১০ হাজার টাকা করা হয়েছে। সিটবেল্ট না বাঁধলে, মোবাইল ফোনে কথা বললে চালকের সর্বোচ্চ ৫ হাজার টাকা জরিমানা দিতে হবে। বেপরোয়া গাড়ি চালিয়ে কাউকে আহত করলে তিন লাখ টাকা জরিমানা ও তিন বছরের জেল হতে পারে। চালকদের লাইসেন্স পেতে অষ্টম শ্রেণি, সহকারীকে পঞ্চম শ্রেণি পাস হতে হবে। এছাড়া ড্রাইভিং লাইসেন্সের বিপরীতে ১২ পয়েন্ট রাখা হয়েছে। আইন ভঙ্গে জেল-জরিমানা ছাড়াও লাইসেন্সের পয়েন্ট কাটা যাবে। পুরো ১২ পয়েন্ট কাটা গেলে লাইসেন্স বাতিল।

দেশের সড়কে অব্যবস্থাপনা যেন দীর্ঘস্থায়ী ক্ষত। এমন কোনো দিন নেই যেদিন পরিবহনের চাকার নিচে পিষ্ট হতে হয়নি কাউকে না কাউকে। এর মধ্যে নিরাপদ সড়কের দাবিতে স্কুলশিক্ষার্থীরা রাস্তায় নেমে বিশ্বকে চমকে দিয়েছেন। কিন্তু কোনো কিছুতেই যেন কিছু হচ্ছিল না। অবশেষে নানা চড়াই-উতরাই পেরিয়ে কার্যকর করা হলো নতুন সড়ক পরিবহন আইন। পরিবহন মালিক ও শ্রমিক সংগঠনগুলো আপাতভাবে এই আইন মেনে নিলেও ইতোমধ্যেই অসন্তোষও প্রকাশ করেছে।
আইন কার্যকরের শুরুতেই সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির সভাপতি সংসদ সদস্য মসিউর রহমান রাঙ্গা বলেছেন, ‘নতুন সড়ক পরিবহন আইন বাস্তবায়ন করতে গিয়ে মালিক-শ্রমিকরা যাতে অকারণে হয়রানির শিকার না হয় এবং আইনের অপপ্রয়োগ না হয়, সেদিকে লক্ষ রাখা প্রয়োজন।’

আইনকে ভালোভাবে মেনে নিতে পারছেন না সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশনের কার্যকরী সভাপতি শাজাহান খানও। তিনি এই আইন সংশোধনের দাবি জানিয়েছেন। সড়কে দুর্ঘটনা সংক্রান্ত ধারায় জামিনযোগ্য বিধান অন্তর্ভুক্তিসহ ৫ দফা দাবি জানিয়ে বলেছেন, শুধু ভয় দেখিয়ে সড়কে শৃঙ্খলা আনা যাবে না।

মালিক সমিতির মহাসচিব খন্দকার এনায়েত উল্লাহ নতুন আইন সম্পর্কে পষ্ট করেই তার অসন্তোষের কথা উল্লেখ করেছেন, ‘নতুন সড়ক পরিবহন আইনে চালকের জামিন অযোগ্য ধারায় চালক সংকট তৈরি করবে। দক্ষ চালক তৈরি ছাড়া সড়কে শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনা সম্ভব নয়। যদি দুর্ঘটনার পর চালক কারাগারে যায়, তারা যদি জামিন না পায়, তাহলে চালক সংকট আরও প্রকট হবে।’

তিনি আরও বলেন, ‘যেখানে সাত-আট লাখ চালক দরকার, সেখানে এ ধারা আরও সংকট তৈরি করবে। এ ছাড়া বাস মালিকদের বড় অঙ্কের জরিমানা পরিবহন খাতের বিকাশ বাধাগ্রস্ত করবে। এ খাতের সেবা বাড়াতে হলে মালিককে বড় অঙ্কের জরিমানা করা যাবে না। এটা করলে খাত বাধাগ্রস্ত হবে। বড় অঙ্কের জরিমানা আইন বাস্তবায়নেও বাধাগ্রস্ত করবে।’

শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়। আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি Alokito Sakal'কে জানাতে ই-মেইল করুন- dailyalokitosakal@gmail.com আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।

Alokito Sakal'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। Alokito Sakal | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বে-আইনি, Design and Developed by- DONET IT