রেজি. নং- ১৯৬, ডিএ নং- ৬৪৩৪

শুক্রবার ০৩ এপ্রিল ২০২০, ২০শে চৈত্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

০৮:২৬ অপরাহ্ণ

শিরোনাম

সলঙ্গায় মহাসড়কে ব্রিজের মুখ বন্ধ,জায়গা দখল করে অবৈধ ভাবে পুকুর খনন

প্রকাশিত : ১০:০৩ PM, ২৩ মার্চ ২০২০ Monday ৮ বার পঠিত

আলোকিত সকাল রিপোর্ট :
alokitosakal

স্টাফ রিপোর্টার :

সরকারি নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে সিরাজগঞ্জের সলঙ্গায় কৃষিজমিতে চলছে অবাধে পুকুর খনন। পুকুর খননে কৃষির ধ্বংসযজ্ঞ চললেও স্থানীয় প্রশাসন নিরব ভুমিকা পালন করছে। নামমাত্র অভিযান চালালেও প্রভাবশালীরা থেকে যাচ্ছেন ধরাছোঁয়ার বাইরে। এদিকে হাটিকুমরুল- বনপাড়া মহাসড়কের দবিরগঞ্জ এলাকায় তিন নম্বর ব্রিজের মুখ বন্ধ করে পুকুর খননের অভিযোগ উঠেছে কয়েকজন প্রভাবশালীর বিরুদ্ধে। অপরদিকে একই মহাসড়কের সাতটির্করি এলাকায় মহাসড়কের জায়গা দখল করে অবাধে চলছে পুকুর খনন ।

সোমবার দুপুরে সরেজমিনে দেখা যায়, হাটিকুমরুল-বনপাড়া মহাসড়কের সিরাজগঞ্জের সলঙ্গা থানার দবিরগঞ্জ এলাকায় ৩ নম্বর ব্রিজের মুখ বন্ধ করে একই এলাকার প্রভাবশালী আবুল হোসেন, আব্দুর জব্বার, আফজাল হোসেন. আবুল কালাম ও হাজী আশরাফ আলী । এর পর থানার রামকৃষ্ণপুর ইউনিয়নের অলিদহ গ্রামের মাটি ব্যবসায়ী আলমের ছেলে সিরাজুল ইসলাম এবং আলমের ভাই আবুল কালাম আজাদ উক্ত জমি লিজ নেয়। গত কয়েক দিন ধরে ওই মাটি ব্যবসায়ীরা নিষিদ্ধ এক্সকেভেটর দিয়ে আবাদি জমিতে অবাধে মহাসড়কের ব্রিজের মুখ বন্ধ করে মাটি কেটে পাড় বাধার নাম করে স্থানীয় ইট ভাটাসহ বিভিন্ন স্থানে মাটি বিক্রি করছে। প্রতিদিন মাটি বিক্রির টাকায় পকেট ভারী করছে। স্থানীয়দের অভিযোগের প্রেক্ষিতে এক দল সাংবাদিক ঘটনার স্থলে গিয়ে সত্যতা পায়। এদিকে ব্রিজের মুখ বন্ধ থাকলে বৃষ্টির পানিতে আবাদি জমিতে জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হবে। এতে ব্রিজের দুই পাশের জমিতে পানি জমে গেলে চলতি ইরি বোর মৌসমে রোপনকৃত ধানের চরম ক্ষতির আশংকা করছে স্থানীয় কৃষকরা। দ্রুত এই ব্রিজের মুখ খোলার দাবি জানিয়েছে স্থানীয় কৃষকরা। অপরদিকে একই মহাসড়কের সাতটির্করি এলাকায় মহাসড়কের জায়গা দখল করে অবাধে চলছে পুকুর খনন করছে একই গ্রামের বাবলু তালুকদার ।

মাটি ব্যবসায়ী আবুল কালাম আজাদ জানান, আমরা ডিসির অনুমতি নিয়ে এবং স্থানীয় প্রশাসন ও নেতাদের ম্যানেজ করেই আমরা পুকুর খনন করছি।

রামকৃষ্ণপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম হিরোর সাথে ফোনের যোগাযোগ করা হলে তার বন্ধ পাওয়া যায়।

রামকৃষ্ণপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক জাহিদুল ইসলাম জাহিদের সাথে কথা হলে তিনি বলেন, লোক মুখে ব্রিজের মুখ বন্ধ করার কথা শুনেছি। ব্রীজরের মূখ বন্ধ হলে আবাদি জমিতে জলাবদ্ধা সৃষ্টি হবে। সে ক্ষেত্রে আমি অবশ্যই প্রশাসনকে জানাবো।

ইউনিয়ন ভুমি কর্মকর্তা কাইয়ুম মাহমুদ জানান, পুকুর খননের বিষয়টি আমি শুনেছি। এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

সড়ক ও জনপদের সহকারী প্রকৌশলী শাহারিয়ার রহমান জানান, আপনাদের অভিযোগের বিষয়টি সরেজমিনে দেখে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

উল্লাপাড়া নির্বাহী কর্মকর্তা আরিফুজ্জামান জানান, পুকুর খননের বিষয়টি তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়। আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি Alokito Sakal'কে জানাতে ই-মেইল করুন- dailyalokitosakal@gmail.com আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।

Alokito Sakal'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।




এই বিভাগের জনপ্রিয়

© ২০২০ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। Alokito Sakal | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বে-আইনি, Design and Developed by- DONET IT