রেজি. নং- ১৯৬, ডিএ নং- ৬৪৩৪

শনিবার ১৯ জুন ২০২১, ৫ই আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

১২:২১ অপরাহ্ণ

শিরোনাম
◈ মানিকগঞ্জ রুবেল হত্যাকারীদের ফাঁসীর দাবীতে মানববন্ধন। ◈ ঠাকুরগাঁওয়ে গৃহহীন পরিবারকে জমি ও গৃহ প্রদান উপলক্ষে সংবাদ সম্মেলন ◈ বহুমুখী প্রতিভার অধিকারী হৃদয় হাসান ◈ নারায়ণগ‌ঞ্জে বি‌ভিন্ন অনুষ্ঠা‌নে মোবাইল কো‌র্টের হানা ◈ কালিহাতীতে ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযানে ১২ জনকে জরিমানা ◈ কালিয়ায় ভুমি দস্যুর সংবাদ প্রকাশের জেরে সাংবাদিককে হুমকি! থানায় জিডি ◈ পত্নীতলার আইসোলেশনে ভারত থেকে আসা তিন হিজড়া সহ ১০ জন ভর্তি ◈ ঘাটাইল ভারতীয় ভেরিয়েন্টের উপসর্গ নিয়ে মারা গেলেন ইউপি চেয়ারম্যান ◈ ফুলবাড়ীতে রাইস কুকারে ভাত রান্না করতে গিয়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে প্রান গেল গৃহবধূর ◈ বুড়িচংয়ের সংস্কারবিহীন সেতু: জনগণের দুর্ভোগ চরমে

শ্রীনগরে ৫০০ বিঘা সরকারি জমিতে ভুট্রা চাষে রাজস্ব ফাঁকি

প্রকাশিত : ০৩:৩৭ PM, ১৭ মে ২০২১ সোমবার ৭৫ বার পঠিত

আলোকিত সকাল রিপোর্ট :
alokitosakal

শ্রীনগর (মুন্সীগঞ্জ) প্রতিনিধি: শ্রীনগর উপজেলার ভাগ্যকুল এলাকার পদ্মার তীরবর্তী চরে ৫০০ বিঘা সরকারি জমিতে ভুট্রার চাষাবাদে রাজস্ব ফাঁকি দেওয়া হচ্ছে। এবিষয়ে স্থানীয় ভূমি সহকারী কর্মকর্তার কাছে কোন তথ্য নেই! অথচ একটি প্রভাবশালী সিন্ডিকেট মহল চরের এসব জমিতে সংশ্লিষ্টদের বিনা অনুমোতিতে কিভাবে ভুট্রা চাষ করে যাচ্ছে এনিয়ে জনমনে প্রশ্ন উঠেছে। এর আগেও গেল বছর সংশ্লিষ্টদের চোখ ফাঁকি দিয়ে অবৈধভাবে চরে ভুট্রা চাষের বিষয়ে বিভিন্ন পত্র পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশিত হলে স্থানীয় ভূমি অফিসের লোকজন মাঠে নেমেও রহস্যজনক কারণে সিন্ডিকেটটির কোনও সন্ধান পায়নি। এবছরও চরে ব্যাপক ভুট্রা ক্ষেতি করা হয়েছে। ইতিমধ্যেই সরকারি নিয়মনীতির তোয়াক্কা না করে জমি থেকে এসব ভুট্রা গো-খাবার হিসেবে পাঁচার করে যাচ্ছে সিন্ডিকেটটি। একদিকে সরকারের মোটা অঙ্কের রাজস্ব ফাঁকি দিয়ে মহলটি চরের শত শত হেক্টর জমিতে ভুট্রার চাষ করে কোটি টাকার বানিজ্য করে নিচ্ছে। অপরদিকে স্থানীয় কৃষি অফিস চরের এসব ভুট্রা চাষে যাচাইবাছাই না করেই সরকারিভাবে প্রণোদনা দিচ্ছেন।
সরেজমিনে দেখা গেছে, ভাগ্যকুল ইউনিয়ন পরিষদের দক্ষিণে শ্রীনগরের ভাগ্যকুলসহ রাঢ়িখাল ও বাঘড়ার আংশিক মৌজায় শত শত বিঘা ভুট্রার ক্ষেতি করা হয়েছে। বেশকিছু শ্রমিককে জমি থেকে তাজা ভুট্রা গাছ তুলছেন। এসব তাজা গাছ কাটিং মেশিনে ছোট ছোট আকারে টুকরো করা হচ্ছে। পরে এসব ভুট্রার সেলাইস (গো-খাবার) অবৈধ মাহিন্দ্রা ট্রলিতে করে পাঁচার করা হচ্ছে পার্শ্ববর্তী লৌহজং উপজেলাসহ বিভিন্ন স্থানে। শ্রমিকরা জানায়, এসব আবাদি জমির মালিককে তারা চিনেন না। তবে ভাগ্যকুলের দক্ষিন কামারগাঁও এলাকার কাউসার খান নামে এক ব্যক্তি দিনমজুরের কাজের জন্য তাদেরকে এনেছেন।
স্থানীয়রা জানায়, ভুট্রাবাহী এসব নিষিদ্ধ মাহিন্দ্রা বিভিন্ন সড়ক ব্যবহার করে ঢাকা-মাওয়া একপ্রেসওয়ে দিয়ে মাওয়ার বিভিন্ন দিকে যাচ্ছে। ট্রলিগুলো বেপরোয়ভাবে চলাচলের কারণে বেশ কয়েকটি দুর্ঘটনা হয়েছে। এছাড়াও কয়েকদিন আগে ভুট্রা ভর্তি বেপরোয়া মাহিন্দ্রা এক বসতবাড়ির ভবনের দেয়াল ভেঙে ভিতরে প্রবেশ করে।
খোঁজ খবর নিয়ে জানা গেছে, স্থানীয় একটি সিন্ডিকেট মহলের কারসাজিতে বিস্তীর্ণ চরে সরকারি এসব জমিতে ভুট্রার চাষ করা হচ্ছে। সিন্ডিকেট মহলের অন্যতম সদস্য কাউসার খানের নের্তৃত্বে সরকারের রাজস্ব ফাঁকির মধ্যে দিয়ে কয়েক বছর চরের জমিতে ভুট্রা ফপনের ৭৫-৮০ দিনের মধ্যে এসব তাজা ভুট্রা গাছ সেলাইস করে বিভিন্ন খামারে পাঁচার করে যাচ্ছে। একটি সূত্র জানায়, সঠিক তদারকীর অভাবে মোটা অঙ্কের সরকারি রাজস্ব ফাঁকি দিয়ে সিন্ডিকেটটি তাদের ফায়দা লুফে নিতে সাহস পাচ্ছে।
কাউসার খানের কাছে এবিষয়ে জানতে যোগাযোগের চেষ্টা করেও তার সাথে কথা বলা সম্ভব হয়নি।
ভাগ্যকুল ভূমি অফিসের সহকারী কর্মকর্তা আব্দুল হান্নানের কাছে জানতে চাইলে তিনিও এবিষয়ে সুনিদিষ্টভাবে কিছু বলতে পারেননি। তবে তিনি স্বীকার করেন গত বছরসহ এবছরেও চরে ব্যাপক ভুট্রার চাষ করা হয়েছে। তিনি বলেন, যেহুতু চরের মালিকানা সরকার সেই হিসেব অনুযায়ী এসব জমিতে চাষাবাসের ক্ষেত্রে সরকারি নিয়ম-নীতি মানতে হবে। তবে দুঃখের বিষয় আমি শত চেষ্টা করেও এসব জমিতে কারা ভুট্রার চাষাবাদ করছেন সেই বিষয়ে এখনও জানতে পারিনি। এবিষয়ে উধ্বর্তন কর্মকর্তার সাথে আলাপ করবো।
এব্যাপারে উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা শান্তনা রানী জানান, চরে এসব ভুট্রা গো-খাবার হিসেবে লৌহজং যাচ্ছে। তিনি বলেন, চরের জমিতে তারা বৈধভাবে না অবৈধভাবে ভুট্রার চাষাবাদ করছেন সে বিষয়ে তিনি অবগত নন। চরের ৪০ বিঘা জমিতে ভুট্রা চাষে সরকারি প্রণোদনা দেওয়া কথা বলেল তিনি।

শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়। আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি Alokito Sakal'কে জানাতে ই-মেইল করুন- dailyalokitosakal@gmail.com আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।

Alokito Sakal'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। Alokito Sakal | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বে-আইনি, Design and Developed by- DONET IT