রেজি. নং- ১৯৬, ডিএ নং- ৬৪৩৪

শনিবার ০৬ মার্চ ২০২১, ২২শে ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

০২:১৪ অপরাহ্ণ

‘একটি দেশ যখন তার ইতিহাস-ঐতিহ্যকে লালন ও ধারণ করে- সেটাই তার শক্তি : অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল

‘শুধু অর্থনীতি নয়, গ্রামীণ সংস্কৃতিকেও জাগ্ররত করতে হবে’

প্রকাশিত : ১০:৫৩ PM, ৫ অক্টোবর ২০১৯ শনিবার ১৯৯ বার পঠিত

আলোকিত সকাল রিপোর্ট :
alokitosakal

‘একটি দেশ যখন তার ইতিহাস-ঐতিহ্যকে লালন ও ধারণ করে- সেটাই তার শক্তি। শুধু অর্থনীতিতে অগ্রগতি হলে চলবে না- খেলাধুলা, শিক্ষা-সংস্কৃতি এবং গ্রামীণ যেসব সংস্কৃতি আছে, সেগুলোকেও আবার জাগ্ররত করতে হবে। জনগণের সামনে তুলে ধরতে হবে। আজকের প্রজন্ম যাতে তাদের অতীতকে খুঁজে পায় এবং ধারাবাহিকভাবে লালন ও ধারণ করতে পারে।’

শনিবার বিকালে কুমিল্লার দাউদকান্দির মেঘনা নদীতে ‘জেলা প্রশাসক নৌকা বাইচ’ প্রতিযোগিতায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, ‘আমাদের পরিচয় আমরা গ্রাম-বাংলার মানুষ। এই গ্রাম-বাংলার ঐতিহ্যগুলো আস্তে আস্তে হারিয়ে যাচ্ছে। ছোট বেলায় নৌকাবাইচ প্রতিযোগিতা অনেক ভালো লাগত। কিন্তু দীর্ঘদিন এই নৌকাবাইচ প্রতিযোগিতা চোখে পড়েনি। কুমিল্লার মেঘনা-গোমতী নদীতে কখনও এতো সুন্দর নৌকাবাইচ প্রতিযোগিতা হয়নি। মেঘনা ও গোমতী নদীতে আজকের এই নৌকাবাইচ প্রতিযোগিতার মধ্যদিয়ে প্রমাণ হলো গ্রাম-বাংলার মানুষ তাদের ইতিহাস-ঐতিহ্য ভুলে যায়নি। অতীত হারিয়ে যেতে দেয়নি।’

এর আগে অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন অর্থমন্ত্রী। এ প্রতিযোগিতায় রঙ-বেরঙের দৃষ্টিনন্দন ১২টি বড় নৌকা সাজিয়ে ১২টি দল অংশগ্রহণ করে। এতে কুমিল্লা ছাড়াও ঢাকা, টাঙ্গাইল, ব্রাহ্মণবাড়িয়া, কিশোরগঞ্জ ও নরসিংদী থেকে প্রতিযোগীরা অংশগ্রহণ করেন।

প্রতিযোগিতায় চ্যাম্পিয়ন হয় ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইল দল। এ দল প্রধান ওসমান উল্লাহ দলকে নগদ ১ লাখ টাকা পুরস্কার দেয়া হয়। প্রতিযোগিতায় রানারআপ হয় গুলিস্তান দল এবং তৃতীয় হয় ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিজয়নগর দল। এছাড়া অপর অংশগ্রহণকারী প্রতিটি দলকে সম্মাননা প্রদান করা হয়।

নৌকাবাইচটি মেঘনার চরকাঁঠালিয়া থেকে শুরু হয়ে দাউদকান্দি ব্রিজে এসে শেষ হয়।

কুমিল্লা জেলা প্রশাসক আবুল ফজল মীরের সভাপতিত্বে এ অনুষ্ঠানে ছিলেন- স্থানীয় সাংসদ মেজর জেনারেল (অব.) সুবিদ আলী ভূঁইয়া, সেলিমা আহমেদ মেরী এমপি, পুলিশ সুপার সৈয়দ নুরুল ইসলাম, কুমিল্লা জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান রিয়াল এডমিরাল (অব.) আবু তাহের, দাউদকান্দি উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মেজর (অব.) মোহাম্মদ আলী সুমন, মুরাদনগর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আহসানুল আলম কিশোর, দাউদকান্দি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কামরুল ইসলাম চৌধুরী।

শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়। আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি Alokito Sakal'কে জানাতে ই-মেইল করুন- dailyalokitosakal@gmail.com আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।

Alokito Sakal'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

এই বিভাগের জনপ্রিয়

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। Alokito Sakal | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বে-আইনি, Design and Developed by- DONET IT