রেজি. নং- ১৯৬, ডিএ নং- ৬৪৩৪

সোমবার ২৬ অক্টোবর ২০২০, ১১ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

০৩:৫২ পূর্বাহ্ণ

শিরোনাম
◈ কলেজের খেলার মাঠে ভবন নির্মাণ না করার দাবী ◈ তাড়াশে সড়ক দুর্ঘটনায় যুবলীগ নেতা নিহত ◈ ধামইরহাটে দূর্গাপুজায় পুলিশের সার্বক্ষনিক টহল, পরিদর্শণে রাজনৈতিক নেতারা ◈ বগুড়ায় শর্মীকে সহায়তায় এগিয়ে আসল কারিগরি শিক্ষার ফেরিওয়ালা তৌহিদ ◈ রংধনু গ্রুপের চেয়ারম্যানকে দাউদপুর ইউপির নবনির্বাচিত চেয়ারম্যানের শু‌ভেচ্ছা ◈ নরসিংদীর বেলাবতে পুলিশ সুপারের পক্ষ হতে বিভিন্ন পূজা মন্ডপে উপহার সামগ্রী বিতরন ◈ ভেদরগঞ্জে ৭ বছর শিশু ধর্ষণ, থানায় মামলা আসামি পলাতক ◈ কালিহাতীতে ট্রাক চাপায় মোটরসাইকেল চালক নিহত ◈ কালিহাতীতে জেলেদের মাঝে ভিজিএফ’র চাল বিতরণ ◈ কালিহাতীতে পূজা মন্ডপে ভ্রাম্যমাণ টহলে আনসার সদস্যরা

শিল্পকর দ্বিগুণ করায় নেতিবাচক প্রভাব জাহাজ ভাঙ্গা শিল্পে

প্রকাশিত : ১০:০৮ PM, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯ Monday ২৫৫ বার পঠিত

আলোকিত সকাল রিপোর্ট :
alokitosakal

বাজেটে শিল্প কর দ্বিগুণ করার নেতিবাচক প্রভাব পড়েছে বিশ্বের সবচেয়ে বড় বাংলাদেশের জাহাজ ভাঙ্গা শিল্পে। স্থানীয় বাজারে দাম পড়ে যাওয়া ছাড়াও ৫ শতাংশ অগ্রিম আয়কর যুক্ত হওয়ায় হঠাৎ বেড়েছে উৎপাদন খরচ। ফলে অস্বাভাবিকভাবে কমেছে পুরোনো জাহাজ আমদানী। উদ্যোক্তারা বলছেন, এভাবে চললে বছরে দেড় হাজার কোটি টাকার রাজস্ব প্রদানকারী শিল্পটি চলে যাবে ভারত ও পাকিস্তানের দখলে।

কয়েক দশক ধরে বিশ্বের জাহাজ ভাঙ্গা শিল্পে নেতৃত্ব দিচ্ছে বাংলাদেশ। গেল অর্থবছরে তিনশো স্ক্র্যাপ জাহাজ আমদানী করা হয়। মাসে গড়ে ২৬টি পুরনো জাহাজ আসে সীতাকুণ্ডের জাহাজ ভাঙ্গা শিল্প জোনে। কিন্তু চলতি অর্থবছরের প্রথম আড়াই মাসে, জাহাজ এসেছে মাত্র ৪টি। গেল বছর এ খাতে প্রতি টনে শুল্ককর ছিলো দুই হাজর ৬ শো টাকা। আর এবার তা বাড়িয়ে করা হয়েছে ৫ হাজার টাকা। এছাড়াও জাহাজের কেনা দামের ওপর ৫ শতাংশ অগ্রিম আয় কর যুক্ত হয়েছে। যা এই শিল্পের প্রতি অশনি সংকেত।

স্ক্র্যাপ জাহাজ থেকে উৎপাদিত পণ্য অভ্যন্তরীণ শিল্পে ব্যবহারের দিক থেকে শীর্ষে বাংলাদেশ। দেশের আড়াইশো রি-রোলিং মিলের প্রধান কাঁচামালের যোগান আসে জাহাজ ভাঙ্গা শিল্প থেকে। অচিরেই লোহার বাজারে নেতিবাচক প্রভাব পড়ার আশংকা করছেন সংশ্লিষ্টরা। বাংলাদেশ, ভারত, পাকিস্তান, চীন ও তুরস্কো বিশ্বের এই পাচটি দেশই স্ক্র্যাপ জাহাজ আমদানী করে। এরমধ্যে চীন ও তুরস্কো নামমাত্র হলেও বাংলাদেশের সঙ্গে প্রতিযোগীতা চলে ভারত আর পাকিস্তানের। তাই শুল্ককরের জটিলতা নিরসন না হলে বাজার হারানোর শঙ্কায় এই খাতের উদ্যোক্তারা।

সীতাকুণ্ডের শীপ ব্রেকিং জোনে দেড়শোটি ইয়ার্ডের স্থাপনা থাকলেও অপারেশনে আছে ৫০ থেকে ৬০ টি ইয়ার্ড। শুল্ককরের জটিলতা নিরসন না হলে, ইয়ার্ডের সংখ্যা আরো কমে যাওয়ার আশংকা করছেন সংশ্লিষ্টরা।
দেশ – অভ্যন্তরীন শিল্পে স্ক্র্যাপ ব্যবহার
বাংলাদেশ- ৭৩.৮০ শতাংশ
পাকিস্তান- ২৭ শতাংশ
ভারত- ০৪ শতাংশ
তুরস্ক- ০২ শতাংশ
চীন- ০.৩ শতাংশ
দেশ – স্ক্র্যাপ জাহাজ আমদানী
বাংলাদেশ- ৩৬.০৫ শতাংশ
ভারত- ৩২.০৫ শতাংশ
পাকিস্তান- ১৮.০০ শতাংশ
তুরস্ক- ৯.০২ শতাংশ
চীন- ৩.০৭ শতাংশ

শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়। আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি Alokito Sakal'কে জানাতে ই-মেইল করুন- dailyalokitosakal@gmail.com আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।

Alokito Sakal'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।




এই বিভাগের জনপ্রিয়

© ২০২০ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। Alokito Sakal | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বে-আইনি, Design and Developed by- DONET IT