রেজি. নং- ১৯৬, ডিএ নং- ৬৪৩৪

বুধবার ১৪ এপ্রিল ২০২১, ১লা বৈশাখ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

০৪:৪৬ পূর্বাহ্ণ

শাহরাস্তি উপজেলায় ১৭টি পূজা মন্ডপের দূর্গোৎসবের প্রস্তুতি

প্রকাশিত : ০৬:৫৫ PM, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯ রবিবার ৫৩৬ বার পঠিত

আলোকিত সকাল রিপোর্ট :
alokitosakal

চাঁদপুরের শাহরাস্তি উপজেলায় এবার বিপুল উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্যদিয়ে শুরু হতে যাচ্ছে সনাতন হিন্দু ধর্মালম্বীদের প্রধান ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দূর্গাপূজা।

দুর্গোৎসবকে সামনে রেখে উপজেলার ১৭টি মন্ডপে শারদীয় দুর্গোৎসবের প্রস্তুতি প্রায় শেষ পর্যায়ে। মন্ডপগুলোতে প্রতিমায় রং তুলির কাজ চলছে। এছাড়াও সাথে সাথে অধিকাংশ মন্ডপে চলছে ডেকরেটর ও লাইটিংয়ের কাজ। উপজেলা পুজা উদযাপন পরিষদের সুত্র মতে, এ বছর এই উপজেলার ১০টি ইউনিয়ন ও ১টি পৌরসভায় মোট ১৭টি মন্ডপে শারদীয় দুর্গাপুজা অনুষ্ঠিত হবে। বিগত বছরগুলিতে এই উপজেলায় ১৫টি মন্ডপে পূজা অনুষ্ঠিত হয়ে আসছিল। ঘোষপাড়া ও উপজেলা সংলগ্ন বর্ধন বাড়ির পূজা মন্ডপ এবছর নতুন করে যোগ হওয়ায় উপজেলায় পূজা মন্ডপের সংখ্যা এখন দাঁড়িয়েছে ১৭টিতে।

এদিকে উপজেলা পূজা কমিটির সাধারণ সম্পাদক অমৃত মজুমদার টুটুন উপজেলায় ৩টি ঝুঁকিপূর্ণ পূজা মন্ডপ রয়েছে বলে জানান । ঝুঁকিপূর্ণ মন্ডপ ৩টি হচ্ছে খিতারপাড়া পূজা মন্ডপ, নুনিয়া দত্ত বাড়ি পূজা মন্ডপ ও কুলসী ঠাকুর বাড়ি পূজা মন্ডপ। ঝুঁকিপূর্ণ মন্ডপের আইন-শৃংখলা নিয়ন্ত্রণের বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য তিনি উপজেলা প্রশাসন ও থানাসহ সংশ্লিষ্ট সকলের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছেন।

এদিকে নাওড়া ঠাকুর বাড়ি,শ্রী শ্রী মেহার কালি বাড়ি,পুরোহিত বাড়ি,বর্ধন বাড়ি এবং পালপাড়া পূজা মন্ডপকে অধিক গুরুপ্তপূর্ণ ঘোষণা করা হয়েছে। তবে শান্তিপূর্ণ পরিবেশে পুজা অনুষ্ঠানের লক্ষ্যে প্রশাসনের পক্ষ থেকে ব্যাপক নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে বলে শাহরাস্তি থানার ওসি মোঃ শাহ আলম (এলএলবি) এক সাক্ষাৎকারে জানিয়েছেন।

বেশ কয়েকটি পুজা মন্ডপ ঘুরে দেখা গেছে, প্রতিমা তৈরী শেষে প্রতিমাগুলোতে রং তুলির কাজে ব্যস্ত সময় পার করছেন প্রতিমা তৈরীর কারিগরা। মন্ডপে সাজ সজ্জা আর ডেকরেট কাজ চলছে পুরো দমে। আলোকসজ্জা আর বাহারি সাজে গেইট নির্মাণ করা হচ্ছে। পুজোর দিন যত ঘনিয়ে আসছে মন্ডপ সাজানোর কাজ নিয়ে ততই ব্যস্ততা বাড়ছে পুজা কমিটির নেতৃবৃন্দের।

শাহরাস্তি থানার ওসি মোঃ শাহ আলম আরো জানান, পুজা মন্ডপে ৩ স্তরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে। প্রতিটি মন্ডপে পুলিশ, সাদা পোশাকের পুলিশ ও আনসার মোতায়েন থাকবে। ঝুঁকিপূর্ণ মন্ডপগুলোতে অতিরিক্ত ফোর্স নিয়োজিত থাকবে। আগামি ৩ অক্টোবর পূজা কমিটির পাশাপাশি উপজেলার সব কয়টি মন্ডপের দায়িত্ব গ্রহন করবে আইন-শৃংখলা বাহিনী। এছাড়াও পুলিশের মোবাইল টিম টহলে থাকবে। শান্তিপূর্ণ পরিবেশে পুজা অনুষ্ঠানের লক্ষ্যে কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে।

এছাড়াও প্রশাসনের পাশাপাশি পুজা উদযাপন পরিষদের নির্দেশে প্রতিটি মন্ডপে স্বেচ্ছাসেবি টিমও মোতায়েন থাকবে।

শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়। আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি Alokito Sakal'কে জানাতে ই-মেইল করুন- dailyalokitosakal@gmail.com আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।

Alokito Sakal'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

এই বিভাগের জনপ্রিয়

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। Alokito Sakal | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বে-আইনি, Design and Developed by- DONET IT