রেজি. নং- ১৯৬, ডিএ নং- ৬৪৩৪

বৃহস্পতিবার ১২ ডিসেম্বর ২০১৯, ২৮শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে মুগ্ধ ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীরা


Warning: Illegal string offset 'text' in /home/alokitosakal/public_html/alokitosakal.com/wp-content/themes/smrlit/functions/reporters.php on line 653

প্রকাশিত : 09:34 PM, 22 October 2019 Tuesday ৫৩ বার পঠিত

অনলাইন নিউজ ডেক্স
Warning: Illegal string offset 'text' in /home/alokitosakal/public_html/alokitosakal.com/wp-content/themes/smrlit/functions/reporters.php on line 653
:
alokitosakal

প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের লীলাভূমি রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়। পুরো ক্যাম্পাস জুড়ে রয়েছে সবুজের সমারোহ। হাজারো শিক্ষার্থীর প্রাণের এই বিশ্ববিদ্যালয় পড়ালেখার দিক দিয়ে যেমন সেরা তেমনি প্রাকৃতিক সৌন্দর্য বিচারেও অতুলনীয়।

সম্প্রতি মতিহারের সবুজ চত্বর খ্যাত এই বিশ্ববিদ্যালয়টিতে আগমন ঘটেছিলো প্রায় ৮০ হাজার ভর্তিচ্ছু এবং তাদের অভিভাবকদের।

দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে আসা শিক্ষার্থীদের মুগ্ধ করেছে রাজশাহী শহর ও বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাকৃতিক সৌন্দর্য। সেই সাথে তারা মুগ্ধ হয়েছেন সাজানো গোছানো ক্যাম্পাস, খাবার সিস্টেম, বড় ভাইদের আতিথেয়তা ও সহযোগিতায়। মুগ্ধ হয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে করেছেন প্রশংসা।

স্নিগ্ধা সরকার তামান্ন নামে এক ভর্তিচ্ছু তার ফেইসবুক স্ট্যাটাসে লিখেছেন, ‘রাবিতে চান্স পাবো কিনা জানি না। কিন্তু আমার মতে প্রতিটি শিক্ষার্থীর উচিত ভর্তি পরীক্ষার আগে ক্যাম্পাস ঘুরে দেখা।

এতে তাদের মনোবল আরও দ্বিগুন হবে। আমি হয়তো বা ক্যাম্পাসের একটা অংশ দেখেছি মাত্র সেটাও আবার রাতের আধাঁরে হলে যেতে যেতে। তাতেই মনে হচ্ছিল ইসস! এটা যদি আমার ক্যাম্পাস হতো। আমি যদি এখানে চান্স পেতাম আরও অসম্ভব ভালো লাগতো।

সকালে যখন সবাই পড়তে ব্যস্ত আমি তখন চারপাশটা দেখতেছি কারণ আমার তখন মনে হচ্ছিল চারপাশটা ঘুরে দেখলেই বোধয় পরীক্ষা ভালো হবে। সবশেষে রাবির প্রেমে পড়ে গেছি।’

রাইসা সাহা নামের আরেক ভর্তিচ্ছু লিখেছেন, ‘শুধু ক্যাম্পাস না পুরো শহরটাই অনেক ভালো লাগছে। আবারও যেতে চাই রাজশাহীতে চান্স পেয়ে না হলেও বউ হয়ে।’

জেবিন ফারজানা রূপা লিখেছেন, ‘একদিন পরীক্ষা দিতে এসেই রাবিকে ভালবেসে ফেলেছি। এখনো রাবির কাছাকাছি ই আছি। জানিনা কপালে রাবি আছে কিনা। যাক আল্লাহ ভরসা।’

সুমন আহমেদ শহিদ লিখেছেন, ঢাকার থেকে হাজার গুনে ভালো রাবি ক্যাম্পাস। আর বড় ভাইয়া আপুরা তো দেবতার সমতুল্য।পাশে থেকো সৃষ্টিকর্তা। লাভ ইউ রাবি।’

বেলাল হোসাইন রোহানী লিখেছেন, ‘আবার আসিবো ফিরে এই রাজশাহীর তীরে, হয়তো ছাত্র হিসেবে নয়তো ভ্রমণ পিপাসু হয়ে।’

রাজশাহী শহরের প্রশংসা করে সানজিদা ঐশী লিখেছেন, ‘রাজশাহী সে তো আমার অদেখা ভালবাসার শহর।’

বিশ্ববিদ্যালয়ের খাবার সম্পর্কে এক ভর্তিচ্ছু লিখেছেন, ‘রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় আসলেই অনেক চমকপ্রদ। যেখানে ১০ টাকায় ১ বাটি ছোলা। ২টা পিঁয়াজু ও ১টা চপ পাওয়া যায়।

বড় ভাইদের প্রশংসা করে মাসুম বিল্লাহ লিখেছেন, ‘রাবির বড় ভাইদের প্রতি ভালবাসা রইলো। এখন আল্লাহ চাইলে আগামী কয়েকটা বছর তাদের সংস্পর্শে কেটে যাবে। লাভ ইউ রাবি।’

আরেক শিক্ষার্থী লিখেছেন, ‘রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের বড় ভাইয়েরা খুব আন্তরিক। নিজে আমাদের খাটে ঘুমাইতে দিয়ে উনারা ফ্লোরে ঘুমাচ্ছেন। এত করে বললাম ভাইকে যে আমরা ফ্লোরে ঘুমাবো ভাই কিছুতেই রাজি না।’

রিহান আহমেদ অপূর্ব লিখেছেন, রাবির প্রত্যেকটা বড় ভাই একেকটা হিরার টুকরা। মানুষ এত ভালো কেমনে হয়। সারাজীবন তোমরা থাকবা এই অন্তরে।’

শানিম ওয়াসিফ নামে এক ভর্তিচ্ছু লিখেছেন, ‘রাবির ক্যাম্পাস, স্যাররা, বড় ভাইরা সবাই যেইভাবে সাহায্য করেছে সেটাই অন্যরকম। সত্যি একটা ভালোবাসা তৈরি হয়ে গেলো। চান্স পাই আর না পাই, কিন্তু যে ভালবাসা তৈরি হয়ে গেলো সেটা সত্যি বলে বুঝানো যাবেনা। ভালবাসা রইলো রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়।’

ভর্তি পরীক্ষায় আবাসিক হলে ভর্তিচ্ছুদের আশ্রয় দেওয়া শিক্ষার্থী দিপু রায় বলেন, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় সব সময় অন্যদের থেকে সেরা। দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে আসা ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীরা আমাদের কাছে আশ্রয়ের জন্য আসে ভর্তি পরীক্ষা চলাকালীন সময়ে।

আমরা চাই তারা যেন আমাদের সম্পর্কে এবং আমাদের বিশ্ববিদ্যালয় সম্পর্কে ভালো ধারণা নিয়ে যেতে পারে বরাবর সে চেষ্টা করি। ভর্তি পরীক্ষার এই দুই একদিন কষ্ট মনে হয় না। বরং যখন ছোট ভাইয়েরা পরীক্ষা দিয়ে চলে যায় রুমটা তখন মনে হয় ফাঁকা ফাঁকা লাগে।

শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়। আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি Alokito Sakal'কে জানাতে ই-মেইল করুন- dailyalokitosakal@gmail.com আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।

Alokito Sakal'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।




এই বিভাগের জনপ্রিয়

© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। Alokito Sakal | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বে-আইনি, Design and Developed by- DONET IT