রেজি. নং- ১৯৬, ডিএ নং- ৬৪৩৪

রবিবার ০৯ আগস্ট ২০২০, ২৫শে শ্রাবণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

০৪:৫১ অপরাহ্ণ

শিরোনাম
◈ লালমোহনে কৃষি প্রযুক্তি মেলা ও বৃক্ষ রোপন উদ্বোধন করলেন -এমপি শাওন ◈ দক্ষিণ আইচা ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে হামলা, প্রতিবাদে ব্যবসায়ীদের মানববন্ধন ◈ হাতিয়ায় ভাইয়ের হাতে ছোট বোনের মৃত্যু ◈ বেগমগঞ্জে বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা’র ৯০ তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে সেলাই মেশিন বিতরণঃ ◈ দুঃস্থ ও অসহায় মহিলাদের মাঝে বান্দরবানে সেলাই মেশিন বিতরণ ◈ লামায় দুইবছর পার হলেও কেনা হয়নি ‘ডিজিটাল হাজিরা ◈ লামায় রাস্তা দেখিয়ে দিতে গিয়ে ধর্ষণের শিকার শিশু ◈ তাহিরপুরে বঙ্গমাতা ফজিলাতুন্নেছার ৯০তম জন্ম দিনে সেলাই মেশিন প্রদান ◈ রাজনগরে শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা অনুষ্ঠান-কোটি টাকার ব্যয় গ্রহন করলেন জিল্লুর রহমান ◈ দেশের জন্য বঙ্গমাতার ত্যাগ ও অবদান ছিল অবিস্মরণীয় -এমপি শাওন

মুজিববর্ষকে সু-স্বাগতম

প্রকাশিত : ০৭:৩৮ PM, ৯ জানুয়ারী ২০২০ Thursday ১৩৫ বার পঠিত

আলোকিত সকাল রিপোর্ট :
alokitosakal

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সরকারের এক বছর পূর্তি উপলক্ষে জাতির উদ্দেশে দেওয়া ভাষণে বলেছেন, মুজিববর্ষ জাতিকে দেবে নতুন জীবনীশক্তি। তার উচ্চারিত শব্দাবলির মধ্যে ঘুমিয়ে আছে আমাদের সব স্বপ্ন এবং ভবিষ্যতের প্রত্যাশা। ২০০৯ সাল থেকে একটানা সরকার পরিচালনার মধ্যবর্তী সময়ের মধ্যে আমরা লক্ষ করেছি, প্রধানমন্ত্রী যে আশ্বাস দিয়েছেন, তার প্রতিটিই তিনি রক্ষা করতে সমর্থ হয়েছেন। আর সে কারণেই তার প্রতি আমাদের আস্থা দৃঢ় থেকে দৃঢ়তর হয়েছে। তিনি বলেছেন, ‘আমরা একটি সুনির্দিষ্ট লক্ষ্য নিয়ে সরকার পরিচালনা করছি। আর সে লক্ষ্য হলো সাধারণ মানুষের অর্থনৈতিক মুক্তি এবং তাদের জীবনমানের উন্নয়নসহ সবার মৌলিক অধিকার প্রতিষ্ঠা।’

বঙ্গবন্ধু আমাদের রাষ্ট্র দিয়েছেন, একটি পতাকাও দিয়েছেন। স্বল্প সময়ের কারণে তিনি সাধারণ মানুষকে দিয়ে যেতে পারেননি অর্থনৈতিক মুক্তি। স্বাধীনতার ৪৮ বছর পর সেই অর্থনৈতিক মুক্তির পদাবলি আমরা শুনতে পেলাম মুজিবতনয়া শেখ হাসিনার দৃঢ়চেতা উচ্চারণের মধ্য দিয়ে। তিনি যে অর্থনৈতিক মুক্তির কথা বলেছেন, তা ছিল জাতির জনকের আজন্ম লালিত স্বপ্নের নান্দনিক চিন্তার প্রতিফলন। বঙ্গবন্ধুর রেখে যাওয়া কাজের একটি সুন্দর পরিসমাপ্তি হবে শেখ হাসিনার যোগ্য নেতৃত্বে—এটাই দেশবাসীর প্রত্যাশা।

এদিকে আওয়ামী লীগের তৃতীয় মেয়াদে সরকার গঠনের পর দুর্নীতির বিরুদ্ধে যে শুদ্ধি অভিযান শুরু হয়েছিল, তা অব্যাহত থাকবে বলেই সবাইকে সতর্ক করেছেন প্রধানমন্ত্রী। তিনি বলেছেন, ইতোমধ্যেই নিজেকে শোধরানোর সময় দেওয়া হয়েছে। এবার আর সে সুযোগ দেওয়া হবে না। সরকার দুর্নীতির বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্সেই থাকবে। মানুষের কল্যাণের জন্য যেকোনো পদক্ষেপ নিতে সরকার কোনো ধরনের কার্পণ্য করবে না। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা হুশিয়ারি উচ্চারণ করে বলেছেন, দুর্নীতিবাজ যেই হোক, যত শক্তিশালীই হোক না কেন, তাদের একচুলও ছাড় দেওয়া হবে না।

আমরাও মনে করি, দুর্নীতিই দেশের অন্যতম প্রধান শত্রু। এই শত্রুকে বিনাশ করতে না পারলে অর্থনৈতিক মুক্তির পথ মসৃণ হবে না। অগ্রগতি ব্যাহত হবে। বঙ্গবন্ধুর লালিত স্বপ্নপূরণ হতে সময়ের ক্ষেপণ হবে। দেশের মানুষ আর সময়ক্ষেপণে আগ্রহী নয়। তারা মনে করেন, যত দ্রুত সম্ভব দেশে থেকে দুর্নীতিকে শেকড়সমেত উৎপাটন করতে হবে। আর এ কাজে শতভাগ মানুষ সরকারের পাশে থাকবে। সত্যিকার অর্থে তারা বাংলাদেশকে একটি দুর্নীতিমুক্ত দেশ হিসেবে দেখতে আগ্রহী। শতভাগ মানুষের সঙ্গে একাত্মতা ঘোষণা করে আমরাও বলতে চাই, দুর্নীতিমুক্ত হলেই বাংলাদেশের উন্নয়নের গতি সুপারসনিক পর্যায়ে পৌঁছাতে সক্ষম হবে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ২০২১ সালে স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী এবং জাতির পিতার জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন শুধু আনুষ্ঠানিকতার মধ্যে সীমাবদ্ধ থাকবে না। এর লক্ষ্য, জাতির জীবনে নতুন জীবনীশক্তি সঞ্চার করা; স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীর প্রাক্কালে জাতিকে নতুন মন্ত্রে দীক্ষিত করে জাতির পিতার স্বপ্নের সোনার বাংলাদেশ বাস্তবায়নের পথে আরো একধাপ এগিয়ে যাওয়া।

আমরা বিশ্বাস করি, বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নই আমাদের স্বপ্ন। এ স্বপ্ন সফল হোক—মুজিববর্ষের পাদপীঠে দাঁড়িয়ে আমাদের এটুকুই প্রত্যাশা।

শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়। আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি Alokito Sakal'কে জানাতে ই-মেইল করুন- dailyalokitosakal@gmail.com আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।

Alokito Sakal'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।




© ২০২০ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। Alokito Sakal | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বে-আইনি, Design and Developed by- DONET IT