রেজি. নং- ১৯৬, ডিএ নং- ৬৪৩৪

বৃহস্পতিবার ০১ অক্টোবর ২০২০, ১৬ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

০৩:৫৬ অপরাহ্ণ

শিরোনাম
◈ চকরিয়ায় লক্ষ্যারচর মন্ডলপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে নবনির্মিত শহীদ মিনার এর শুভ উদ্বোধন ◈ চকরিয়ায় পিকআপ ও সিএনজি অটোরিক্সার মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত-১ আহত- ৪ ◈ সাতকানিয়া দুই বছরের সাজাপ্রাপ্ত আসামি গ্রেফতার ◈ বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতি চকরিয়া উপজেলা কমিটি গঠিত ◈ পুঠিয়ায় রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় বীর মুক্তিযোদ্ধা রওশন আলীর দাফন সম্পুর্ণ ◈ জাতিসত্তার কবি মুহম্মদ নূরুল হুদার জন্মবার্ষিকীতে কবি ফারুক নওয়াজের নিবেদিত কবিতা ◈ ধামইরহাটে জাতীয় কন্যা শিশু দিবস পালিত ◈ মধ্যনগর উপজেলার পরিষদের স্হান পরিদর্শন করেন সিলেট বিভাগীয় কমিশনার মোঃ মশিউর রহমান ◈ জানাজার যাত্রী নিয়ে এসে নিজেই লাশ হলেন ইজিবাইক চালক ◈ কিশোরীকে গির্জায় আটকে রেখে ধর্ষণের অভিযোগে ফাদার গ্রেপ্তার

মালচিং পদ্ধতিতে লাউ চাষে সফলতা

প্রকাশিত : ১২:৩৪ PM, ১৯ অক্টোবর ২০১৯ Saturday ৩৪৬ বার পঠিত

আলোকিত সকাল রিপোর্ট :
alokitosakal

পরিবেশবান্ধব মালচিং পদ্ধতিতে দেশি জাতের লাউ উৎপাদন করে অসাধারণ সাফল্য দেখিয়েছেন তরুণ কৃষক দিদার। তিনি মাগুরা সদর উপজেলার শিবরামপুর গ্রামের বাসিন্দা।

দিদার বলেন, ‘মালচিং মেথড’ ভারত ও ইসরাইলে খুবই জনপ্রিয় একটি পদ্ধতি। ইন্টারনেটে এ পদ্ধতি সম্পর্কে জেনে মাগুরার কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরে যোগাযোগ করি। তখন তারা এ পদ্ধতিতে ফসল উৎপাদনে উৎসাহিত করে।

তিনি আরো বলেন, প্রচলিত পদ্ধতিতে লাউ বীজ সরাসরি জমিতে লাগানো হয়। কিন্তু মালচিং মেথড অনুযায়ী পেপারে মুড়িয়ে অঙ্কুরিত বীজ জমিতে রোপণ করা হয়। এ পদ্ধতিতে প্রথমে মালচিং পলিথিন দিয়ে একটি বীজতলা তৈরির পর সেখানে স্থাপন করা হয় বীজ। যেহেতু বীজগুলো পলিথিন দিয়ে মোড়ানো থাকে, তাই কোনো পোকামাকড় আক্রমণ করতে পারে না। ফলে কীটনাশক ব্যবহারেরও প্রয়োজন হয় না।

দিদার বলেন, মালচিং পদ্ধতিতে যে পেপারটি ব্যবহার হয় তা সরাসরি চায়না থেকে বাংলাদেশের বাজারে আসে। এবার ৬০ শতক জমিতে ৩শ লাউ বীজ রোপণ করেছি। সার, বীজ ও অন্যান্য উপকরণ বাবদ ৫০ হাজার টাকা খরচ হয়েছে। খরচ বাদে প্রতি মাসে লক্ষাধিক টাকা আয় হবে।

তরুণ কৃষক বলেন, বর্তমানে আমার ক্ষেতে ছয়-সাতজন শ্রমিক কাজ করেন। প্রতিদিন ১৫০-২০০ লাউ ক্ষেত থেকে কাটা হয়। মাগুরাসহ বাইরের জেলার ব্যাপারীরা ক্ষেত থেকেই লাউ কেনেন। শীতে এর চাহিদা আরো বাড়বে।

জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের উপ-পরিচালক জাহিদুল আমিন বলেন, লাউ উৎপাদনে সাধারণত অন্যান্য ফসলের তুলনায় পরিশ্রম কম। তবে মালচিং পদ্ধতি লাউ চাষে ফলন ভালো পাওয়া যায়। তাই মাগুরা, চুয়াডাঙ্গা, মেহেরপুরসহ বিভিন্ন জেলায় এ পদ্ধতিতে ফসল চাষে অনেক কৃষক সাফল্য অর্জন করেছেন।

কৃষি কর্মকর্তা আরো বলেন, প্রচলিত পদ্ধতিতে জমিতে পাঁচ-ছয়বার সেচ দিতে হয়, এ পদ্ধতিতে মাত্র দুবার সেচ দেয়াই যথেষ্ট। দেশের বিভিন্ন জায়গায় মালচিং পদ্ধতিতে লাউসহ নানা সবজি আবাদ হলেও মাগুরায় প্রথমবারের মতো আবাদ হয়েছে। দিদারের সাফল্যে আমরাও গর্বিত।

শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়। আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি Alokito Sakal'কে জানাতে ই-মেইল করুন- dailyalokitosakal@gmail.com আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।

Alokito Sakal'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।




© ২০২০ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। Alokito Sakal | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বে-আইনি, Design and Developed by- DONET IT