রেজি. নং- ১৯৬, ডিএ নং- ৬৪৩৪

মঙ্গলবার ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ৬ই ফাল্গুন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

০১:০৩ অপরাহ্ণ

শিরোনাম
◈ এ্যাডভোকেট রহমত আলীর জানাজা নামাজ মহানগরের শহীদ বরকত ষ্টেডিয়ামে সকাল সাড়ে ১০ টায় শেষ হয়েছ ◈ এইস.এস.সি পরীক্ষার কেন্দ্র পরিবর্তনের দাবীতে মানববন্ধন ◈ পীরগঞ্জে বিনামূল্যে চক্ষু শিবিরে ৫৩৭ রোগীর চিকিৎসাসেবা প্রদান,লেন্স সংযোজন ৬১ জনের ◈ চাঁপাইনবাবগঞ্জে শিবগঞ্জে ট্রাকের ধাক্কায় ১ জনের মৃত্যু ◈ সিরাজগঞ্জে মুক্তিযোদ্ধার স্ত্রীকে গলাকেটে হত্যা ◈ টেকনাফে খেলোয়াড় অসুস্থ রফিককে ইউএনও’র আর্থিক অনুদান ◈ স্বাধীনতার ৪৮ বছর পরও পায়নি মুক্তিযুদ্ধ সার্টিফিকেট ◈ ঢাকা সোনারগাঁও এলাকায় সার্জেন্ট মজিবরের সামরিক মর্যাদায় দাফন সম্পন্ন ◈ অভিযানে জব্দকৃত লাখ টাকার সরকারি ওষুধ নিয়ে দুশ্চিন্তায় ইউএনও রুহুল আমিন। ◈ সিংগাইরে বিনামুল্যে ব্লাড গ্রুপিং কর্মসুচি অনুষ্ঠিত

মালচিং পদ্ধতিতে লাউ চাষে সফলতা

প্রকাশিত : ১২:৩৪ PM, ১৯ অক্টোবর ২০১৯ Saturday ২১৮ বার পঠিত

আলোকিত সকাল রিপোর্ট :
alokitosakal

পরিবেশবান্ধব মালচিং পদ্ধতিতে দেশি জাতের লাউ উৎপাদন করে অসাধারণ সাফল্য দেখিয়েছেন তরুণ কৃষক দিদার। তিনি মাগুরা সদর উপজেলার শিবরামপুর গ্রামের বাসিন্দা।

দিদার বলেন, ‘মালচিং মেথড’ ভারত ও ইসরাইলে খুবই জনপ্রিয় একটি পদ্ধতি। ইন্টারনেটে এ পদ্ধতি সম্পর্কে জেনে মাগুরার কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরে যোগাযোগ করি। তখন তারা এ পদ্ধতিতে ফসল উৎপাদনে উৎসাহিত করে।

তিনি আরো বলেন, প্রচলিত পদ্ধতিতে লাউ বীজ সরাসরি জমিতে লাগানো হয়। কিন্তু মালচিং মেথড অনুযায়ী পেপারে মুড়িয়ে অঙ্কুরিত বীজ জমিতে রোপণ করা হয়। এ পদ্ধতিতে প্রথমে মালচিং পলিথিন দিয়ে একটি বীজতলা তৈরির পর সেখানে স্থাপন করা হয় বীজ। যেহেতু বীজগুলো পলিথিন দিয়ে মোড়ানো থাকে, তাই কোনো পোকামাকড় আক্রমণ করতে পারে না। ফলে কীটনাশক ব্যবহারেরও প্রয়োজন হয় না।

দিদার বলেন, মালচিং পদ্ধতিতে যে পেপারটি ব্যবহার হয় তা সরাসরি চায়না থেকে বাংলাদেশের বাজারে আসে। এবার ৬০ শতক জমিতে ৩শ লাউ বীজ রোপণ করেছি। সার, বীজ ও অন্যান্য উপকরণ বাবদ ৫০ হাজার টাকা খরচ হয়েছে। খরচ বাদে প্রতি মাসে লক্ষাধিক টাকা আয় হবে।

তরুণ কৃষক বলেন, বর্তমানে আমার ক্ষেতে ছয়-সাতজন শ্রমিক কাজ করেন। প্রতিদিন ১৫০-২০০ লাউ ক্ষেত থেকে কাটা হয়। মাগুরাসহ বাইরের জেলার ব্যাপারীরা ক্ষেত থেকেই লাউ কেনেন। শীতে এর চাহিদা আরো বাড়বে।

জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের উপ-পরিচালক জাহিদুল আমিন বলেন, লাউ উৎপাদনে সাধারণত অন্যান্য ফসলের তুলনায় পরিশ্রম কম। তবে মালচিং পদ্ধতি লাউ চাষে ফলন ভালো পাওয়া যায়। তাই মাগুরা, চুয়াডাঙ্গা, মেহেরপুরসহ বিভিন্ন জেলায় এ পদ্ধতিতে ফসল চাষে অনেক কৃষক সাফল্য অর্জন করেছেন।

কৃষি কর্মকর্তা আরো বলেন, প্রচলিত পদ্ধতিতে জমিতে পাঁচ-ছয়বার সেচ দিতে হয়, এ পদ্ধতিতে মাত্র দুবার সেচ দেয়াই যথেষ্ট। দেশের বিভিন্ন জায়গায় মালচিং পদ্ধতিতে লাউসহ নানা সবজি আবাদ হলেও মাগুরায় প্রথমবারের মতো আবাদ হয়েছে। দিদারের সাফল্যে আমরাও গর্বিত।

শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়। আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি Alokito Sakal'কে জানাতে ই-মেইল করুন- dailyalokitosakal@gmail.com আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।

Alokito Sakal'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।




মুজিববর্ষ: বঙ্গবন্ধুর শততম জন্মবার্ষিকী উদযাপন
26 27 days 13 14 hours 56 57 minutes 15 16 seconds

© ২০২০ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। Alokito Sakal | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বে-আইনি, Design and Developed by- DONET IT