রেজি. নং- ১৯৬, ডিএ নং- ৬৪৩৪

সোমবার ২৬ অক্টোবর ২০২০, ১১ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

১০:৪০ অপরাহ্ণ

শিরোনাম
◈ মুন্সিগঞ্জে ডিবি পুলিশের অভিযানে গাঁজাসহ ৩জন আটক ◈ বাজিতপুরে ৩ টি চোরাই মোটরসাইকেল সহ চক্রের ৩ সদস্য গ্ৰেফতার ◈ প্রতিমা বিসর্জনের মধ্য দিয়ে ঘাটাইলে শেষ হলো, শারদীয় দূর্গাপুজা ◈ সন্দ্বীপের সাবেক সাংসদ মুস্তাফিজুর রহমানের স্মরণে কাতারে দোয়া মাহফিল ◈ কলেজের খেলার মাঠে ভবন নির্মাণ না করার দাবী ◈ তাড়াশে সড়ক দুর্ঘটনায় যুবলীগ নেতা নিহত ◈ ধামইরহাটে দূর্গাপুজায় পুলিশের সার্বক্ষনিক টহল, পরিদর্শণে রাজনৈতিক নেতারা ◈ বগুড়ায় শর্মীকে সহায়তায় এগিয়ে আসল কারিগরি শিক্ষার ফেরিওয়ালা তৌহিদ ◈ রংধনু গ্রুপের চেয়ারম্যানকে দাউদপুর ইউপির নবনির্বাচিত চেয়ারম্যানের শু‌ভেচ্ছা ◈ নরসিংদীর বেলাবতে পুলিশ সুপারের পক্ষ হতে বিভিন্ন পূজা মন্ডপে উপহার সামগ্রী বিতরন

ভূমি ব্যবস্থাপনায় সারাদেশের রোল মডেল পবা উপজেলা ভূমি অফিস

প্রকাশিত : ০১:৫৬ AM, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০ Friday ১৭৯ বার পঠিত

আলোকিত সকাল রিপোর্ট :
alokitosakal

স্টাফ রিপোর্টার মোঃ জাহিদ হাসান পলাশ:
সরকার দেশের নাগরিকদের জীবনযাত্রার মান উন্নয়নে নানানমূখী উদ্যোগ গ্রহণ করেছে। দেশের ভূমি ব্যবস্থাপনায় এনেছে উল্লেখযোগ্য পরিবর্তন। সেবাপ্রার্থীরা সেবা নিতে গিয়ে যেন হয়রানীর শিকার না হন সে লক্ষ্যে সহজ ও আধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহার করে সেবা নিশ্চিত করা হচ্ছে প্রতিটি উপজেলা পর্যায়ের ভুমি অফিসে।
তেমনই সেবামূখী ও জনবান্ধব ভূমি ব্যবস্থাপনা নির্মানের লক্ষে ইতিবাচক পরিবর্তনের পথে অগ্রযাত্রায় রয়েছে রাজশাহীর পবা উপজেলা ভূমি অফিস। সেবাপ্রার্থীদের আগের মত আর হয়রানির শিকার হতে হয়না উপজেলার এই ভূমি অফিসে গিয়ে।
পবা উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) শেখ এহসান উদ্দীন জণগনের দৌড়গোড়ায় ভূমি সেবা পৌছে দিতে নিরলস ভাবে কাজ করে চলেছেন।
নতুন ভুমি অফিসার হিসেবে আসার পর থেকেই চেষ্টা করে যাচ্ছেন জনবান্ধব ভূমি ব্যাবস্থাপনা নির্মাণের। সেই লক্ষ অর্জনে ‘প্রতি স্পর্শেই সেবা’ ও ‘নাগরিক কর্নার’সহ বেশ কিছু উদ্যোগ গ্রহণ করেন তিনি।
আধুনিক রেকর্ড ব্যাবস্থাপনা:
ব্যাপক সংস্কার, পূনর্বিন্যাসের মাধ্যমে প্রথমা, দ্বিতিয়া ও তৃতীয়া নামে তিনটি আলাদা রেকর্ড রুম কমপ্লেক্স তৈরী করেন। এতে প্রায় ১ লক্ষ ৪০ হাজার নথি সংরক্ষনের ব্যবস্থা রয়েছে। পূর্বে নথি খুঁজে পেতে হিমশিম খেতে হলেও এখন খুব সহজেই প্রয়োজনীয় নথি খুঁজে পাওয়া ও সংরক্ষণ করা যায়।
নাগরিক কর্নার:
সেবাপ্রার্থীগণ সেবার বিষয়ে কি করনীয় তা না জানার কারণে অনেক সময় হয়রানির শিকার হন। এই অন্যতম সমস্যাটিকে দূর করতে ৬ টি ক্যাটাগরিতে ২২ টি সেবা সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য, প্রয়োজনীয় কাগজপত্রের তালিকা ও সরকারি ফি সম্বলিত তথ্য একসাথে করে তৈরী করেছেন এই নাগরিক কর্নার।
সার্ভিস ফ্লো-চার্ট:
অনেক সময় কর্মচারী পরিবর্তন হলে বা আইন না জানার কারনে একটি কার্যক্রমের ধারাবাহিকতা নষ্ট হয়ে যায়। এই সমস্যাটিকে দূর করতে প্রত্যেক কর্মচারী যে সার্ভিস দিচ্ছেন তার ধারাবাহিক চেকলিস্ট ও ফ্লো-চার্ট তাদের রুমে তৈরী করেছেন। যেন কোনো ভাবেই আইনের বাইরে কাজ করা সম্ভব না হয়।
সার্ভিস বুক:
ভবিষ্যতে এসি ল্যান্ড বা কর্মচারী বদলী হলেও সার্ভিস নিয়মতান্ত্রিক ভাবেই যেন প্রদান করা যায় সেই লক্ষে ভূমি অফিসের প্রত্যেকটি কার্যক্রমের অধ্যায়ভিত্তিক ভাগ করে একটি সার্ভিস বুক প্রস্তুত করা হয়। এতে সেবা দান পদ্ধতি, ফি, প্রয়োজনীয় কাগজপত্র ও ফ্লো-চার্ট সংযুক্ত করে হয়েছে।
মিসকেস হ্রাস ও খতিয়ানের ভুল সংশোধন:
খতিয়ান সাক্ষরের পর নাম, ঠিকানা বা করণিক ভুল থাকলে প্রার্থীকে আবারো মিসকেসের মাধ্যমে সমাধান করতে হয়, এতে করে প্রার্থীকে হয়রানির শিকার হতে হয়। এই ভুল সংশোধন রোধে চুড়ান্ত শুনানির সময় স্বাক্ষরের পূর্বে ডিজিটাল ডিসপ্লেতে সেবাপ্রার্থীকে তার খতিয়ানটি দেখার সুযোগ করে দিয়েছেন বর্তমান এসি ল্যান্ড। যাতে করে সেবাপ্রার্থীকে হয়রানির শিকার হতে না হয়।

মাটির মায়া:
পবা উপজেলা ভূমি অফিস সহকারী কমিশনার এর অফিস কক্ষ দ্বিতীয় তলায় হওয়ায় সেবাপ্রার্থীরা সহকারী কমিশনারের সাক্ষাত পেতেন না বা হয়রানির শিকার হতেন। এ সমস্যার সমাধানে তৎকালিন সহকারী কমিশনার মো: শাহাদাত হোসেন কবির অফিসের মূল গেটের পাশে ‘মাটির মায়া’ নামক স্থানটি প্রতিষ্ঠা করেন।
‘আপনার এসিল্যান্ড’ নামক কর্মসূচীর মাধ্যমে ‘মাটির মায়ায়’ তিনি নিয়মিত নির্দিষ্ট সময়ে বসতেন এবং সেবাপ্রার্থীদের তাৎক্ষণিক সমাধান দিতেন।

এই উদ্যোগের বিষয়টি দেশব্যাপী আলোরণ সৃষ্টি করে যা সরকারেরও নজরে আশে। ফলশ্রুতিতে দেশের বিভিন্ন ভূমি অফিসে ‘মাটির মায়া’র ধারণাটি সারাদেশে রেপ্লিকেট করা হয়।
পবা উপজেলা ভূমি অফিসের ইনভেনশন:
২০১৮ খ্রি. থেকে রাজশাহী জেলার পবা উপজেলায় পাইলটিং হিসেবে অনলাইনে ভূমি উন্নয়ন কর পরিশোধের লক্ষ্যে E-pay Land Development Tax নামক অ্যাপস্ চালু করা হয়েছে। একারণে দেশের প্রথম আধুনিক ভূমি অফিস হিসেবে শিকৃতি পেয়েছে পবা উপজেলার এই ভূমি অফিস। ফলম্রুতিতে এই অ্যাপস টি জনপ্রশাসন পদক প্রাপ্ত হয়।

পবা উপজেলা অন্তর্ভুক্ত নওহাটা ও কাটাখালী পৌরসভার সকল মৌজার ভূমি উন্নয়ন কর এই অ্যাপস্ এর মাধ্যামে পরিশোধ করা যায়। এর ফলে ভুমি মালিকগণ সহজেই হয়রানিমুক্ত ও দুর্নীতিমুক্ত ভাবে ভূমি উন্নয়ন করের দাবি জানতে ও অনলাইনে ভূমি উন্নয়ন কর পরিশোধ করতে পারবেন।

ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা:
ভুমি অফিসের পাশেই নিজস্ব জায়গায় বাগান, ‘মাটির মায়া’ কে ডিজিটালকরণ এবং ভার্চুয়াল সিমের মাধ্যমে মিসকেসের শুনানির তারিখ জানিয়ে দেয়ার ডাটাবেইজ তৈরীর পরিকল্পনা রয়েছে।

পবা উপজেলার সুবিধাভোগী বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ রকিবুল ইসলাম জানান, পবা উপজেলা ভূমি অফিসে “নাগরিক কর্ণা” এর সুবিধা গ্রহণ করে তিনি অত্যন্ত আনন্দিত এবং কিয়স্ক মেশিনের প্রশংসায় পঞ্চমুখ হয়ে বলেন ” কিয়স্ক মেশিন আমাদের নিকট আশীর্বাদস্বরূপ।”

আরেক সেবাপ্রার্থী আলিফ মাহমুদ জানান, এখানকার জনবান্ধব পরিবেশ তাকে মুগ্ধ করেছে। জমি খারিজের কাজ করতে এসে তাকে কোনো হয়রানির শিকার হতে হয়নি।

পবা উপজেলা সহকরি কমিশনার (ভূমি) শেখ এহসান উদ্দীন বলেন, জনগণ যাতে সেবা সহজেই পাই তার জন্য এসব উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে। সরকারি নির্দেশনা মোতাবেক আগামি দিনে জনসাধারণের জন্য জনবান্ধব ও কল্যাণমুখী কাজ করে যাবো বলে জানান।

শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়। আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি Alokito Sakal'কে জানাতে ই-মেইল করুন- dailyalokitosakal@gmail.com আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।

Alokito Sakal'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।




এই বিভাগের জনপ্রিয়

© ২০২০ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। Alokito Sakal | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বে-আইনি, Design and Developed by- DONET IT